মেকআপ ছাড়া পরিপাটি থাকার ৭টি উপায়!

মেকআপ ছাড়া পরিপাটি থাকার ৭টি উপায়!

shajgoj 3

এখন এমন একটা সময় চলে এসেছে যে ঘরের বাইরে শপিং মলে, অফিসে, এমনকি জিমেও সাজগোজ ছাড়া মেয়ে দেখাই যায় না। তার মাঝেও অনেকেই আছেন যারা একটুও মেকআপ করতে পছন্দ করেন না। মেকআপ মানেই সৌন্দর্য বর্ধন না। কারণ ন্যাচারাল সৌন্দর্যের কোন তুলনা হয় না। তাছাড়া আমাদের স্কিনের কিছুটা ব্রেকেরও প্রয়োজন আছে। তবুও চারিদিক একদম টিপটপ থাকা মেয়েদের পাশে মেকআপ ছাড়া হয়তো আপনাকে কিছুটা মলিন লাগতে পারে। নিচের টিপস ফলো করলে আপনি মেকআপ ছাড়াই আরও সুন্দর হয়ে থাকতে পারবেন। চলুন তবে দেখে নেই মেকআপ ছাড়া পরিপাটি থাকার ৭টি টিপস!

মেকআপ ছাড়া পরিপাটি থাকা যায় যেভাবে

১) উজ্জ্বল রঙের কাপড়

মেকআপ না করেও আপনাকে মনে হবে আপনি নিজেকে যত্ন করে গুছিয়ে রেখেছেন, যদি আপনি উজ্জ্বল রঙের জামা পরেন। ব্রাইট হলুদ, গোলাপি, লাল, আকাশী, হালকা বেগুনী ইত্যাদি রঙের জামা পরলে আপনি আত্মবিশ্বাস অনুভব করবেন। বিশেষ করে লাল রঙের জামা আমাদের আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়িয়ে দেয়। সাজগোজ করেন নি বলে সুন্দর জামাটা পরবেন না, এমন কোন কথা নেই। আলমারি থেকে আপনার পছন্দের সুন্দর কোন উজ্জ্বল জামা পড়ে ফেলুন, তাহলে মেকআপের প্রয়োজন হবে না।

২) চুলের যত্ন নিন

আমাদের একটা অভ্যাস হলো মেকআপ না করলে আমরা আর কোন কিছুরই খেয়াল রাখি না। চুলটা এলোমেলো করে বাঁধি, গুছিয়ে থাকার চেষ্টাও করি না। কিন্তু ন্যাচারাল লুকের সবচেয়ে বড় এলিমেন্ট হলো খুব সুন্দর কোন হেয়ার স্টাইল। দেখে যেন মনে হয় আপনি চুলের পেছনে কিছুটা হলেও সময় দিয়েছেন। সারাদিনের জন্য বের হলে কিছুক্ষণ পর পর খেয়াল রাখা উচিত চুলটা এলোমেলো হয়ে গেছে নাকি। চুল গোছানো না থাকলে আপনি নিজেও আত্মবিশ্বাস পাবেন না, নিজের কাছেই নিজেকে সুন্দর লাগবে না। এছাড়া পরিপাটি চুল থাকলে বাইরের মানুষ আপনাকে গোছানো ভাববে। চুল সামলে রাখতে যদি আপনার খুব ঝামেলা মনে হয় তাহলে চুল কিছুটা ছোট করে সুন্দর কোন হেয়ার কাট দিয়ে রাখুন। গোসলের পর হালকা ব্লো ড্রাই করে নিন, তাহলে চুল সেট হয়ে থাকবে।

৩) এক্সেসরিজ পড়ুন

ন্যাচারাল লুকের জন্য আপনি জায়গার উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন এক্সেসরিজ পরে আপনার লুকে কিছুটা “গ্ল্যাম” যোগ করতে পারেন। আর কিছুই না করলেন, এক জোড়া সুন্দর কানের দুল পরুন, একটা সুন্দর ব্যাগ নিন, সুন্দর একটা ঘড়ি পড়ুন। একেবারাই সাধারণভাবে গেলে কিছু যায়গায় আপনি ভীড়ের সাথে একেবারে মিশে যেতে পারেন। তাই হালকা ও ইউনিক কিছু দুল, লকেট, ঘড়ি, ব্যাগ, জুতা ইত্যাদি দিয়ে নিজের ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করুন।

৪) গ্রুমড থাকুন

মেকআপ না করলেও কিছু জিনিস আমাদের “ওয়েল গ্রুমড” একটা লুক দেয়। সাধারণত মেকআপ করলে যা চোখে পরে না, খালি চেহারায় সেসব চোখে পরে। তাই নিয়মিত আইব্রাউ, আপারলিপ করে রাখা উচিত। এছাড়া কিছু পার্সোনাল হাইজিন মেইন্টেইন করা উচিত। ঘর থেকে বের হওয়ার সময় মুখ ভালোমত ফেইসওয়াশ দিয়ে ধুয়ে ভালো কোন ময়েশ্চারাইজার লাগানো উচিত। এছাড়া মেকআপ করুন বা না করুন সানস্ক্রিন অবশ্যই মেখে বের হওয়া উচিত। তা না হলে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। ঘর থেকে বের হওয়ার আগে গোসল করে নিলে আপনাকে ফ্রেশ দেখাবে। ঠোঁট যেন ফেটে না থাকে সেজন্য পেট্রোলিয়াম জেলি সাথে রাখা উচিত। এছাড়া পারফিউম মেখে নেওয়া উচিত।

৫) ত্বকের যত্ন নিন

মেকআপ দিন কিংবা না দিন, ত্বকের যত্ন অবশ্যই নেওয়া উচিত। আমাদের সবারই উচিত একটা ভালো স্কিনকেয়ার রুটিন ফলো করা। প্রতিদিন দুইবেলা ভালো ফেইসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন, টোনার লাগান, সিরাম অ্যাপ্লাই করুন, আই ক্রিম মাখুন। সপ্তাহে একবার এক্সফোলিয়েট করুন, ন্যাচারাল স্ক্রাবার কিংবা দোকানের এক্সফোলিয়েটার দিয়ে। ছুটির দিনগুলোতে কোন ন্যাচারাল প্যাক মাখুন। চেহারার পাশাপাশি হাত পায়েরও যত্ন নিন। নিয়মিত হাত-পা ময়েশ্চারাইজ ও এক্সফোলিয়েট করুন। প্রতিদিন চেহারার যত্ন নিলে আপনার আর কিছুর প্রয়োজন হবে না। ন্যাচারালি আপনাকে সুন্দর লাগবে। মেকআপের কেমিক্যাল ছাড়া চেহারার উজ্জ্বলতা দিন দিন বাড়তেই থাকবে।

৬) স্বাস্থ্যকর খাবার খান

আমাদের ডায়েটের উপর আমাদের চেহারা অনেকখানি নির্ভরশীল। আপনি যত ভালো খাবেন, ততই সেটা আপনার চেহারায় প্রকাশ পাবে। তৈলাক্ত খাবার, ফাস্ট ফুড, জাঙ্কফুড, অতিরিক্ত মসলা ইত্যাদি খেলে আপনার চেহারায় ব্রণ দেখা যাবে, লোমকূপ বড় হবে, চেহারার সৌন্দর্য নষ্ট হবে। তাই পুষ্টিগুণ সম্পন্ন খাবার খান। তাহলে আপনার চেহারার উজ্জ্বলতা যেমন বাড়বে, তেমনি আপনার শরীর ও মনও ভালো থাকবে।

৭) প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন

আমরা খুব ভালোমতই জানি সুস্থ থাকতে পানির কোন বিকল্প নেই। ত্বকের সুস্থতা আর গ্লো এর জন্যও পানি অপরিহার্য। বেশি বেশি পানি পান করলে আপনার শরীরের সব টক্সিন বেরিয়ে যাবে, আপনাকে ন্যাচারালি সুন্দর দেখাবে।

তাহলে দেখলেন তো মেকআপ ছাড়াই কিভাবে পরিপাটি থাকা যায়! নিজেকে প্রেজেন্ট করতে খুব বেশি মেকআপের প্রয়োজন হয় না। শুধু একটু গুছিয়ে চললেই অনেক সুন্দর ও ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মনে হবে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ

121 I like it
22 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...