৩ টি স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক ব্যবহারে পান এক্সট্রা গ্লোয়িং ফেইস! ৩ টি স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক ব্যবহারে পান এক্সট্রা গ্লোয়িং ফেইস!

৩ টি স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক ব্যবহারে পান এক্সট্রা গ্লোয়িং ফেইস!

লিখেছেন - নাইমা আক্তার ডিসেম্বর ২, ২০১৮

ত্বকের যত্ন নেয়ার কথা যখন আসে, তখন আমাদের প্রকৃতিতে ফিরে যাওয়া উচিত। কারণ প্রাকৃতিক উপাদানগুলোই সব থেকে ভালো এবং ত্বকের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ। আর এতে আছে খুব ভালো সিন্থেটিক উপাদান। আয়ুর্বেদীয় উপাদান গুলোতে আছে প্রাচীন নিরাময় বিজ্ঞান এবং সৌন্দর্যের লুকানো ও গোপন রহস্য। আর তাই ত্বকের যত্নে এবং ত্বককে গ্লোয়িংফর্সা করতে আয়ুর্বেদের উপাদানগুলো বহুকাল ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তাহলে চলুন এক নজরে এমন তিনটি স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক দেখে নেয়া যাক যে প্যাক-গুলো আপনার ত্বককে করে তুলবে এক্সট্রা গ্লোয়িং।

১. চন্দন স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক

আপনার প্রয়োজন হবে-

স্কিন ব্রাইটেনিং এর জন্য চন্দন ও মধুর ফেইস প্যাক - shajgoj.com

 

আপনাকে যা করতে হবে-

মধুর সঙ্গে চন্দন পাউডার ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর প্যাক-টি আপনার মুখে ও গলায় ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। এই প্যাক-টি ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মত রাখুন যেনো প্যাক-টি ত্বকে ভালোভাবে বসে যায়। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক-টি সপ্তাহে তিন বার ব্যবহার করুন।

কেন এই প্যাক-টি আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করে তুলবে জানেন? কারণ চন্দন পাউডার-এ আছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য। আর মধু আপনার ত্বক নরম এবং নমনীয় করে তোলে। এই ভেষজ ফেইস প্যাক খুব কার্যকর ব্রণ এবং পিম্পলস-এর চিকিৎসায়। তাই আপনি নির্দ্বিধায় এই প্যাক-টি ব্যবহার করতে পারেন।

২. গাঁদা ফুলের স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক

আপনার প্রয়োজন হবে-

  • ২ টি গাঁদা ফুলের পেস্ট
  • ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া
  • ১/২ টেবিল চামচ টক দই
  • ১/২ টেবিল চামচ লেবুর রস

স্কিন ব্রাইটেনিং এর জন্য গাঁদা ফুল, চন্দন, টক দই ও লেবুর রসের প্যাক - shajgoj.com

আপনাকে যা করতে হবে-

প্রথমে ২টি গাঁদা ফুলের পাপড়ি একটি বাটিতে নিয়ে পেস্ট করে নিন। তারপর এর সাথে চন্দন পাউডার, টক দই এবং লেবুর রস ভালোমত মিশিয়ে নিন। এবার এই পেস্ট আপনার মুখে ও ঘাড়ে প্রয়োগ করুন এবং ২০ থেকে ২৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফল পাওয়ার জন্য সপ্তাহে দুই বার ইউজ করুন। Marigold বা গাঁদা ফুলে প্রদাহ ও ব্যাকটেরিয়া দূর করার উপযোগী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এই আয়ুর্বেদীয় ফেইস মাস্ক একটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার এবং নিয়মিত ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে আরো উজ্জ্বল।

৩. সুগন্ধি ফেইস প্যাক

আপনার প্রয়োজন হবে-

স্কিন ব্রাইটেনিং এর জন্য চন্দন, বেসন, হলুদ, গোলাপ জল, ল্যাভেন্ডার অয়েল ও দুধের প্যাক - shajgoj.com

আপনাকে যা করতে হবে-

উপরে বর্নিত সবগুলো উপাদান মিশ্রিত করুন এবং একটি মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। আপনি আপনার দরকার অনুযায়ী পরিমাণগুলো সমন্বয় করতে পারেন এবং পছন্দসই সামঞ্জস্য তৈরি করে নিতে পারেন। সব উপাদানগুলো ভালোভাবে মেশানো হয়ে গেলে আপনার মুখের উপর এটি প্রয়োগ করুন এবং এটি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে উষ্ণ জল দিয়ে ধুয়ে নিন। প্যাক-টি সপ্তাহে দুই বার ব্যবহার করুন।

এই ফেইস প্যাক অত্যন্ত Hydrating হয়। দুধ সাহায্য করে Blaxishes পরিষ্কার করতে এবং আপনার মুখ উজ্জ্বল করে তুলতে। চন্দন পাউডার ব্রণ সাফ করতে সাহায্য করে এবং পিম্পল নিরাময় করে। বেসন অতিরিক্ত ময়লা এবং তেল মুছে ফেলতে সাহায্য করে। প্যাক-টি আপনার ত্বকের প্রাকৃতিক তেল ধরে রাখে এবং দ্রুত ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

আয়ুর্বেদিক উপাদানগুলোতে কোন ক্ষতিকর উপাদান না থাকায় এটা আপনার ত্বকের জন্য একদম পারফেক্ট এবং নিরাপদ। তাই ত্বকের উজ্জ্বলতা প্রাকৃতিকভাবে বাড়াতে চাইলে আর দেরি না করে উপরে উল্লিখিত তিনটি স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক থেকে আপনার পছন্দমত যে কোন একটি বেছে নিয়ে আজ থেকেই ব্যবহার করা শুরু করে দিন।