গ্রীষ্মকালের সাজসজ্জায় আরাম আর ফ্যাশনের মেলবন্ধন - Shajgoj গ্রীষ্মকালের সাজসজ্জায় আরাম আর ফ্যাশনের মেলবন্ধন - Shajgoj

গ্রীষ্মকালের সাজসজ্জায় আরাম আর ফ্যাশনের মেলবন্ধন

এপ্রিল ২৫, ২০১৮

গ্রীষ্মের কড়া গরমে আরাম ধরে রাখবো না ফ্যাশন, এই চিন্তায় অনেকেই কপালে ভাঁজ ফেলেন। আরাম আর ফ্যাশনের মাঝে যে সন্ধি হতে পারে, সেটা জানা নেই অনেকেরই। অনুষ্ঠান মানেই যাদের কাছে ভারী উপাদান আর জমকালো কাজের পোশাকাদি, গয়নাগাটি আর চড়া সাজ, আরাম তাদের কাছে দূরের জিনিসই বটে! আবার আরামের সাথে বিন্দুমাত্র সমঝোতা না করার অভ্যাস যাদের, তারা ফ্যাশন জলাঞ্জলি দিয়ে থাকেন প্রায়ই। অথচ প্রাণ তাতানো গরমের দিনের জন্যেও আছে দারুণ সব ফ্যাশন ট্রেন্ড। হালকা উপাদানের পোশাক আর স্নিগ্ধ সাজেই নজরকাড়া থাকতে পারেন এই মৌসুমে।

মিষ্টি, নরম রঙগুলো খেলে উঠুক বসনজুড়ে। রোদের অত্যাচারে চোখ এমনিই ঝলসে যেতে চায়, উৎকট সব রঙ দেখিয়ে চোখকে বাড়তি যন্ত্রণা না দেয়াই শ্রেয়। পিচ, সাগর নীল, ফিরোজা, হালকা গোলাপি, হালকা সবুজ, জলপাই, চাপা বাসন্তী, চাপা সাদা- এই রঙগুলো যেকোনো উৎসবের দিনেও ফুটফুটে দেখাবে। আর সাদা তো গরমের দিনের সবচেয়ে আরামের রঙ। সাদা মিলেও যায় বেশিরভাগ রঙের সাথেই, তাই পোশাক পছন্দ করতে সাদার সাথে অন্যান্য রঙের মিশেল বেছে নিন নিশ্চিন্তে।

নরম খাদি কাপড়, প্রাকৃতিক তন্তুর কাপড়, ন্যাচারাল ডাই করা শাড়ি, কামিজ, তাঁতের শাড়ি আর থ্রি-পিস, গরমের দিনের জন্য বেশি আরামের। তাঁতের একটু নকশাদার শাড়ি আর থ্রি-পিস অনুষ্ঠানপর্বের আদর্শ পোশাক হতে পারে। সুতি কাতানের পোশাকেও উদযাপন করা যায় গরমকালের উৎসব। সহজ নিয়ম, কাপড়ের উপাদান হালকা রেখে কোনো ১/২ টি অংশে জমকালো কাজ রাখা যায়। কিংবা পুরো পোশাকজুড়েই হালকা নকশা থাকতে পারে। সালোয়ার-কামিজের সাথে কামিজে হালকা কাজ থাকলে ওড়নাটায় ভারী কাজ করা থাকতে পারে। তাতে পোশাকটা আরামদায়কও থাকবে আবার ফ্যাশনেবলও হবে। একটা হ্যান্ডপেইন্টেড শাড়িও হালকার ভেতর দারুণ জমকালো ভাব নিয়ে আসতে পারে গ্রীষ্মকালীন দাওয়াতে।

ফ্লোরাল প্রিন্ট বা ফুলেল ছাপের কাপড় গরমের দিনে তুমুল জনপ্রিয়। স্টাইলিশ শার্ট, কুর্তি তো বটেই, সালোয়ার বানাতেও পছন্দের তালিকায় থাকে এই ফ্লোরাল প্রিন্টের কাপড়। পালাজ্জোর সাথে কয়েকরঙা ফ্লোরাল প্রিন্টের খানিক ঢোলা শার্ট, একটা স্কার্ফ- আরাম আর স্টাইলের মেলবন্ধন করতে যথেষ্ট।

ভারী ধাতব অনুষঙ্গ এড়িয়ে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ এই গরমে। ছিমছাম গয়নায় সাজ সম্পূর্ণ হোক। মাটি, কাঠ, হালকা পুঁতির গয়না বা সুতায় ঝোলা লকেট- সাজপোশাকের সাথে মিল রেখে গয়না বেছে নিন এগুলো থেকে। ধাতব গয়না পরলে তা বেশ হালকা হওয়া চাই, বিশেষ করে যদি রোদের তাপে বাইরে কোথাও থাকছেন। আর নাহয় পোশাকেই সমস্ত মনোযোগ দিন এবং নিজেকে উপস্থাপন করুন এভাবেই, যাতে গয়না না থাকায় আপনার সাজের আয়োজন শূন্য না লাগে!

লিখেছেন- মুমতাহীনা মাহবুব