বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস | নতুন জীবনের জন্য আপনি প্রস্তুত তো?

বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস | নতুন জীবনের জন্য আপনি প্রস্তুত তো?

2

কনে সাজে নিজেকে দেখার শখ নেই, এমন মেয়ে বোধহয় খুঁজে পাওয়া যাবে না! ছোটবেলায় মায়ের ওড়না দিয়ে বউ সাজেনি, এমন মেয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না হয়তো! সময়ের পরিক্রমায় একদিন সত্যি সত্যিই বিয়ের কনে সাজার সময় হয়। বিয়ে মানেই জীবনের নতুন অধ্যায়ের সূচনা। কতই না জল্পনা-কল্পনা থাকে এই দিনটিকে ঘিরে। মানসিকভাবে আপনি প্রস্তুত তো নতুন জীবনের জন্য? এই সময়ে প্রতিটা মেয়েই কম বেশি মেন্টাল স্ট্রেস বা মানসিক চাপের মধ্যে দিয়ে যায়। বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস কমানোর উপায়গুলো নিয়েই আজকের ফিচার।

কনের প্রস্তুতি

বিয়ের প্রস্তুতি শুরু হওয়ার সাথে সাথে সারা বাড়ি যেন উৎসবের আমেজে মেতে ওঠে। হবু কনেও ব্যস্ত হয়ে যায় শপিং নিয়ে। কত ধরনের যে প্ল্যানিং চলে, স্টেজ কীভাবে সাজানো হবে, কোন পার্লারে সাজবো, কীভাবে চুল সেট করবো, কেমন ধরনের জুয়েলারি পরবো, আরও কত কিছু! অফিস বা পড়াশুনা সামলিয়ে টুকটাক করে সবই গুছিয়ে নিতে হয়। কতই না এক্সাইটমেন্ট! তবে খুব স্বাভাবিকভাবে বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস বা মানসিক চাপ হতে পারে।

কম বেশি সব মেয়েরাই এটা ফেইস করে, এত আনন্দের মাঝেও মনটা হুট করেই খারাপ হয়ে যায়। একটু নার্ভাস লাগে, মনে হয় সবকিছু ঠিকঠাক মতো হবে তো! নতুন পরিবেশে যেয়ে মানিয়ে নিতে পারবো তো! হবু দম্পতির জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতি নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস

বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস কমানোর উপায়

বিভিন্ন কারণেই এই সময়ে স্ট্রেস ফিল হতে পারে। লাইফ পার্টনার সাপোর্টিভ হবে কিনা, শশুরবাড়ির লোকজন কেমন হবে, নিজেকে ঠিকঠাকভাবে প্রেজেন্ট করতে পারবো কিনা, নতুন সংসার কীভাবে সাজবো এই ধরনের অনেক চিন্তাই এই সময়ে মাথায় ঘুরপাক খায়। লাভ ম্যারেজ হোক বা অ্যারেঞ্জড, মেন্টাল প্রেশার কম বেশি থাকেই। আচ্ছা, এই সময়টাতে কী করলে একটু বেটার ফিল হবে আর মেন্টাল স্ট্রেস থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে, সেটা জানেন কি? চলুন চট করে জেনে নেই এখনই।

১) সেলফ প্যামপার করুন

নিজের ভালোলাগার কাজ করুন সব দুশ্চিন্তা বাদ দিয়ে! স্কিন ও হেয়ার কেয়ার করতে পারেন। এতে কিন্তু দুই ধরনের লাভ আছে, আপনার স্ট্রেস লেভেল কিছুটা হলেও রিডিউস হবে, সেই সাথে ত্বক ও চুলও সুন্দর হবে। বাসায় বসে খুব সহজেই ত্বক ও চুলের যত্ন নেওয়া যায়। যেমন ধরুন স্ক্যাল্প ম্যাসাজ করে চুলে তেল দিলেন, মুখে উপটান লাগিয়ে নিলেন, মেনিকিওর করলেন।

২) ব্রেক নিন

বিয়ের আগে নানা ধরনের প্রস্তুতি থাকে, তাই না? যখনই স্ট্রেস ফিল করবেন, কিছুক্ষণের জন্য ব্রেক নিন। কফি বা চা নিয়ে বারান্দায় বসুন, প্রিয় বন্ধু কিংবা হবু লাইফ পার্টনারকে ফোন দিয়ে কথা বলুন, অথবা একান্তে নিজে নিজেই সময় কাটান। ইয়ারফোন কানে গুঁজে পছন্দের গান শুনুন। দেখবেন মেন্টাল স্ট্রেস উধাও! মিউজিক মানসিক অস্থিরতা কমাতে অনেকটাই হেল্প করে। এই যে ব্রেক নিলেন, এটাই আপনার মেন্টাল স্ট্রেসকে অনেকটা কমিয়ে দিবে।

মুড অফ

৩) পরিবারের সাথে সময় কাটান

নতুন একটি পরিবেশে যেতে হবে, নতুন পরিবারের সদস্যরা কেমন হবে, বিয়ের আগে এই বিষয়গুলো নিয়ে অযথা দুশ্চিন্তা করবেন না। আগে নিজ পরিবারের সাথে সময় কাটান। বাসায় বসে স্ট্রেস ফিল হলে সবাইকে নিয়ে বাইরে কোথাও খেতে যান, একসাথে বসে ওয়েডিং প্ল্যানিং করুন, দায়িত্বগুলো ভাগ করে দিন, তাদের প্রিফারেন্সগুলো জানুন। দেখবেন এই ধরনের পারিবারিক আলোচনা আপনার মানসিক চাপ অনেকটাই কমিয়ে দিবে, আপনি রিলিফ ফিল করবেন।

৪) সময়মতো ঘুমিয়ে পড়ুন

ঘুম হচ্ছে সুস্থতার চাবিকাঠি। রাত জাগলে আপনার অস্থিরতা আরও বাড়বে। ঘুমাতে যাওয়ার আগে সব ধরনের ডিভাইস থেকে নিজেকে দূরে রাখার ট্রাই করুন, পারলে এক গ্লাস দুধ পান করুন। একটা টিপস শেয়ার করি, রোজমেরি অয়েল স্ট্রেস থেকে মুক্তি দিয়ে মানসিক প্রশান্তি আনতে দারুণ কাজ করে। নারকেল তেলের সাথে জাস্ট ২/৩ ড্রপ রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিক্স করে স্ক্যাল্প ম্যাসাজ করুন। এতে কিন্তু ঘুমও ভালো হয়।

৫) বন্ধুদের সাথে প্ল্যানিং করে ফেলুন

কাছের বন্ধুদের নিয়ে খোলামেলা পরিবেশে বেড়িয়ে আসতে পারেন। মন খুলে গল্প করুন। তাদের সাথেও গায়ে হলুদ, মেহেদি সন্ধ্যা, বিয়ে নিয়ে প্ল্যানিং করুন। এই সময়টুকু পুরোপুরিভাবে ইনজয় করার চেষ্টা করুন, এতে আপনার স্ট্রেস লেভেল অনেকটাই কমে যাবে। সবচেয়ে ভালো হয়, কাজিন আর ফ্রেন্ডদের নিয়ে যদি একসাথে বসলে। বেশ ভালোভাবে তাহলে এসব প্ল্যানিং করে নিতে পারবেন। আর মানসিকভাবে আপনিও নিশ্চিন্ত ও প্রফুল্ল থাকবেন।

বন্ধুদের সাথে প্ল্যানিং

বিয়ের জন্য প্রস্তুতি’ অনেকে বলে এই বিষয়টি নাকি একটি মিথ। বিয়ের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হওয়া নাকি সম্ভব না! কিন্তু ঠিকভাবে প্ল্যানিং না করলেও তো এই স্পেশাল দিনটা ভেস্তে যাবে! তাই মোটামুটি ভালোভাবেই আপনাকে ও আপনার হবু জীবন সঙ্গীকে মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। বিয়ের আগে মেন্টাল স্ট্রেস বা মানসিক চাপ একদমই যেন আপনাকে কাবু না করতে পারে, সেজন্য সবসময় পজেটিভ মাইন্ডে থাকুন, হাসি-খুশি থাকুন। নতুন জীবনের জন্য শুভ কামনা।

 

ছবি- সাজগোজ

9 I like it
3 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...