হানি হেয়ার মাস্ক দিয়ে ইচি স্ক্যাল্প ও ড্রাই হেয়ারের সল্যুশন

হানি হেয়ার মাস্ক দিয়ে ইচি স্ক্যাল্প ও ড্রাই হেয়ারের সল্যুশন

3

রূপচর্চায় মধুর ব্যবহার হয়ে আসছে অনেক বছর আগে থেকেই। ন্যাচারাল এই ইনগ্রেডিয়েন্টটি ত্বকের জন্য বেশ বেনিফিসিয়াল বলে স্কিন কেয়ার রুটিনে অনেকেই এটি অ্যাড করেন। তবে শুধু ত্বকের জন্যই নয়, চুল ভালো রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার। ন্যাচারাল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে বলে স্ক্যাল্প নারিশড ও হেয়ার সফট রাখতে হেল্প করে মধু। চুলের বিভিন্ন বেনিফিটের জন্য ন্যাচারাল এই ইনগ্রেডিয়েন্টটি তাই অ্যাড করতে পারেন হেয়ার কেয়ার রুটিনে। স্ক্যাল্পের ইচিনেস কমাতে এবং ড্রাই ও ফ্রিজি হেয়ারকে সফট ও শাইনি করে তুলতে কার্যকরী ৪টি হানি হেয়ার মাস্ক এর কথা আপনাদেরকে জানাবো আজকের আর্টিকেলে।

চুলের জন্য হানি কেন বেনিফিসিয়াল?

১) কন্ডিশনিং করে চুলের ময়েশ্চার ধরে রাখতে হেল্প করে হানি। এতে হেয়ার ব্রেকেজ কমে আসে।

২) হানিতে আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যার কারণে ইচিনেস কমিয়ে স্ক্যাল্প নারিশড রাখতে এবং হেলদি হেয়ার পেতে হেল্প করে হানি।

চুলের জন্য মধুর উপকারিতা

৩) ন্যাচারাল এই ইনগ্রেডিয়েন্টটিতে আছে প্রোটিন, মিনারেল ও ভিটামিন। এই উপাদানগুলো হেয়ার ফলিকল স্ট্রং করে হেয়ার ফল রিডিউস করে।

৪) এতে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল প্রোপার্টিজের কারণ স্ক্যাল্পের ইনফেকশন প্রিভেন্ট হয়। সেই সাথে ড্যানড্রাফ, একজিমার মতো প্রবলেমগুলো রিডিউস হয়।

চুলের যত্নে কীভাবে ব্যবহার করবেন হানি হেয়ার মাস্ক?

হেয়ার ফল কমিয়ে হেয়ার গ্রোথ বাড়াতে, ড্রাই ও ফ্রিজি হেয়ারকে সফট ও শাইনি করে তুলতে, স্ক্যাল্পের ইনফ্ল্যামেশন কমিয়ে নারিশড করতে হেল্প করে হানি। তবে শুধু হানি অ্যাপ্লাই করলে চুল স্টিকি হয়ে যেতে পারে। তাই হেয়ার বেনিফিটগুলো পাওয়ার জন্য হেয়ার মাস্কে হানির সাথে অ্যাড করতে পারেন আরও কিছু ইনগ্রেডিয়েন্টস। চলুন জেনে নেই চুলের বিভিন্ন কনসার্ন অনুযায়ী কীভাবে হানি হেয়ার মাস্ক রেডি করবেন।

সফট ও শাইনি চুলের জন্য মধু ও অলিভ অয়েলের মাস্ক

যেভাবে মাস্ক বানাবেন ও ব্যবহার করবেন

১) ১/২ কাপ মধুর সাথে ১/৪ কাপ অলিভ অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

২) মাইক্রোওয়েভে ২০ সেকেন্ড গরম করুন।

৩) ঠান্ডা হলে মাস্কটি স্ক্যাল্পে ও হেয়ারে অ্যাপ্লাই করুন। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন।

৪) ভালো ফলাফল পেতে মাসে তিনবার ব্যবহার করুন।

হানি হেয়ার মাস্ক

অলিভ অয়েলে ফ্যাটি অ্যাসিড আছে যা চুলের গোড়া শক্ত করে। এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি প্রোপার্টিজ স্ক্যাল্পের ফাঙ্গাল ইনফেকশন দূর করতে হেল্প করে। সেই সাথে এই অয়েলটি হেয়ারকে সফট রাখে। মধু ও অলিভ অয়েল দিয়ে তৈরি হেয়ার মাস্ক ড্রাই ও ফ্রিজি হেয়ারের প্রবলেম কমিয়ে চুলকে করে তোলে সফট ও শাইনি।

হেয়ার গ্রোথ বাড়াতে কলা ও মধুর মাস্ক

যেভাবে মাস্ক বানাবেন ও ব্যবহার করবেন

১) ২টি পাকা কলার সাথে ১/২ কাপ মধু ও ১/৪ কাপ অলিভ অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

২) মাস্কটি স্ক্যাল্পে ও চুলে ভালোভাবে অ্যাপ্লাই করুন।

৩) ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

৪) যদি চুলে কলা আটকে থাকে তাহলে চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিয়ে আবার চুল ধুয়ে ফেলুন।

৫) ২ সপ্তাহে অন্তত ১ বার মাস্কটি ব্যবহার করুন।

ভিটামিন বি৬ ও পটাশিয়ামের খুব ভালো উৎস কলা। আর এই উপাদানগুলো হেলদি হেয়ার গ্রোথের জন্যও বেশ উপকারী। সেই সাথে চুল সফট রাখতেও হেল্প করে কলা। স্ক্যাল্পে যদি কোনো ধরনের ইচিনেস হয়, এই মাস্ক ব্যবহারে সেই সমস্যাও কমবে।

স্ক্যাল্প নারিশড রাখতে হানি ও কোকোনাট অয়েল মাস্ক

যেভাবে মাস্ক বানাবেন ও ব্যবহার করবেন

১) ১/২ কাপ কোকোনাট অয়েল এর সাথে ৩ টেবিল চামচ হানি ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। চুল বড় হলে তেলের পরিমাণ বাড়িয়ে নিতে পারেন।

২) মাইক্রোওয়েভে ২০ সেকেন্ড গরম করে নিন।

৩) ঠান্ডা হলে এতে মিশিয়ে নিন ১/২ কাপ টক দই।

৪) মাস্কটি চুলে ও স্ক্যাল্পে ভালোভাবে অ্যাপ্লাই করে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে নিন।

৫) ভালো ফলাফলের জন্য সপ্তাহে ১ দিন মাস্কটি অ্যাপ্লাই করুন।

কোকোনাট অয়েল ও মধু দিয়ে হানি হেয়ার মাস্ক

কোকোনাট অয়েল স্ক্যাল্পে নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে এবং হেয়ার শ্যাফটে পেনিট্রেট করে। হানি ও কোকোনাট অয়েল একত্রে হেয়ার স্ট্রং রাখতে হেল্প করে। ড্যানড্রাফ দূর করতে, স্ক্যাল্প নারিশড রাখতে এবং চুল ময়েশ্চারাইজড রাখতে হেল্প করে টক দই।

মজবুত চুলের জন্য মধু ও ডিমের মাস্ক

যেভাবে মাস্ক বানাবেন ও ব্যবহার করবেন

১) ১/২ কাপ হানি ও ১/৪ কাপ কোকোনাট অয়েল একত্রে মিশিয়ে ওভেনে ২০ সেকেন্ড গরম করে নিন।

২) এবার ১টি ডিমের সাদা অংশ এই মিশ্রণে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

৩) চুলে ও স্ক্যাল্পে অ্যাপ্লাই করে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন।

৪) চেষ্টা করুন মাসে তিনবার মাস্কটি ব্যবহার করার।

ডিমে থাকা নিউট্রিয়েন্টস স্ক্যাল্পে নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে, সেই সাথে হেয়ার রুট স্ট্রং করে তোলে। চুল মজবুত রাখতে আরও হেল্প করে কোকোনাট অয়েল।

 

ড্রাই হেয়ার, ইচি স্ক্যাল্প, হেয়ার ফলের মতো বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে হানি হেয়ার মাস্কগুলো বেশ কার্যকর। এই মাস্কে ইউজ করার জন্য অথেনটিক প্রোডাক্টগুলো পেয়ে যাবেন সাজগোজে। এছাড়া স্কিন কেয়ার, হেয়ার কেয়ার ও মেকআপের বিভিন্ন অথেনটিক প্রোডাক্ট কিনতে পারেন অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে অথবা সাজগোজের ৪টি শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার, উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) ও সীমান্ত সম্ভার থেকেও বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি।

ছবিঃ সাজগোজ, সাটারস্টক

2 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...