আইল্যাশ বড় ও ঘন দেখাতে সঠিক মাশকারা বেছে নিয়েছেন তো?

আইল্যাশ বড় ও ঘন দেখাতে সঠিক মাশকারা বেছে নিয়েছেন তো?

আইল্যাশ বড় ও ঘন দেখাতে মাশকারা ব্যবহার করছেন একজন

চোখের সাজে আমরা কত কিছুই না ব্যবহার করি। আইশ্যাডো, কাজল, আইলাইনার ইত্যাদি। কিন্তু এত কিছু ব্যবহার করার পর ও চোখের সাজ অসম্পূর্ণ থেকে যায় যদি মাশকারা আইল্যাশে ব্যবহার না করা হয়। চোখের সৌন্দর্য কয়েকগুণে বাড়িয়ে তুলতে মাশকারার বিকল্প নেই। মাশকারা আইল্যাশকে আকর্ষণীয় করে তোলে। মার্কেটে অনেক ধরনের মাশকারা-ই পাওয়া যায়। তবে সব মাশকারাই যে ভালো আউটপুট দিবে তা কিন্তু নয়! আমার পছন্দের ৬টি মাশকারার রিভিউ শেয়ার করবো যাতে আপনারাও নিজেদের জন্য সঠিক প্রোডাক্টটি সিলেক্ট করতে পারেন। আইল্যাশ বড় ও ঘন দেখাতে এই মাশকারাগুলো হতে পারে রাইট চয়েজ!

কীভাবে চিনবেন একটি ভালো মাশকারা?

আইল্যাশ বড় ও ঘন দেখাতে কোন মাশকারা ভালো চেক করে নিচ্ছেন

আমার প্রিয় ৬টি মাশকারা নিয়ে লেখার পূর্বে একটি ভালো মাশকারার বৈশিষ্ট্য নিয়ে লিখবো যাতে করে আপনারা কেনার পূর্বে ভালো মাশকারাটি খুব সহজেই বেছে নিতে পারবেন! একটি মাশকারা কিনতে গেলে যেসকল বিষয়ে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন-

প্রোপার শেইপড এবং ম্যাটেরিয়ালযুক্ত ব্রাশ

একটি মাশকারা কিনতে গেলে শুরুতেই যে বিষয়টি খেয়াল করবেন সেটি হল মাশকারা অ্যাপ্লিকেটর। যদি অ্যাপ্লিকেটরের শেইপ আঁকাবাঁকা হয় এবং লো কোয়ালিটির ম্যাটেরিয়াল দিয়ে তৈরি করা হয়ে থাকে তবে; মাশকারা আইল্যাশে অ্যাপ্লাই করলেও ভালোভাবে বসবে না। মাশকারা ব্রাশ যদি সিলিকন দিয়ে তৈরি হয় তবে বেশি ফ্লেক্সিবল হবে। আপনার চোখের আইল্যাশের আকার অনুযায়ী অ্যাডজাস্ট করে নিতে পারবেন। কোন ধরনের ইরিটেশন হওয়ারও সম্ভাবনা থাকবে না।

আইল্যাশ কন্ডিশনিং উপাদান

মাশকারা কিনতে গেলে অবশ্যই এতে আইল্যাশ কন্ডিশনিং উপাদান আছে কিনা চেক করে নিন। ল্যাশ কন্ডিশনিং উপাদান আপনার আইল্যাশকে রুক্ষ ও শুষ্ক করবে না বরং নারিশমেন্ট প্রদান করে ময়েশ্চারাইজড রাখবে। আপনার মনে নিশ্চয়ই প্রশ্ন জেগেছে যে এই উপাদান কোনগুলো? আইল্যাশ কন্ডিশনিং উপাদানগুলো হচ্ছে- প্যান্থেনল (প্রো-ভিটামিন বি৫), ক্যাস্টর অয়েল, আরগান অয়েল, ভিটামিন এ, ভিটামিন ই, আরজিনিন, সিল্ক বা কেরাটিন, রোজহিপ অয়েল, ওয়াক্স বা বি ওয়াক্স। এগুলোর এক বা একাধিক উপাদান ভালো মাশকারায় অবশ্যই খুঁজে পাবেন।

ফর্মুলায় ক্ষতিকর উপাদান থাকবে না

আমরা যেকোনো প্রোডাক্ট কিনতে গেলেই দামে কম মানে ভালো এরকম প্রোডাক্ট খুঁজি। অনেকেই আছি গুণগত মানের দিকেও খেয়াল রাখি না। দাম কম পেলেই হুজুগে কিনে ফেলি; ইনগ্রেডিয়েন্ট লিস্ট চেক করে দেখি না। তাই অনেক সময় দেখা যায় কিছু ক্ষতিকর উপাদান যেমনঃ ক্ষতিকর অ্যালকোহল, মার্কারি কিংবা নিকেলের মতন উপাদান খুঁজে পাওয়া যায় মাশকারাতে। তাই দামে কম কিংবা বেশি যেটাই হোক না কেন; অবশ্যই কেনার পূর্বে ইনগ্রেডিয়েন্ট লিস্ট চেক করে নিবেন।

লং লাস্টিং হবে

ভালো মাশকারার আরেকটি গুণ হচ্ছে এটি দীর্ঘস্থায়ী হবে। অর্থাৎ এটি বারবার রিঅ্যাপ্লাই করার প্রয়োজন পরবে না। সারাদিনে একবার আইল্যাশে অ্যাপ্লাই করলেই লং লাস্টিং হবে।

লাইটওয়েট এবং ভেলভেটি কনসিস্টেন্সি

ভালো মাশকারা চোখের পাতায় অ্যাপ্লাই করলে একটুও হেভি ফিল হবে না। লাইটওয়েট হবে, আইল্যাশে দিলে মনেই হবে না যে কোনো কিছু অ্যাপ্লাই করা হয়েছে। এছাড়াও কনসিস্টেন্সি মোটেও আঠালো হবে না, ঘন হবে না আবার অনেকবেশি পাতলাও হবে না। স্ম্যাজপ্রুফ হবে। আইল্যাশগুলো জড়িয়ে জড়িয়ে থাকবে না।

আমার পছন্দের মাশকারা

এপর্যন্ত আমি অনেকগুলো মাশকারাই ব্যবহার করেছি। এর মধ্যে আজ আমার ইউজ করা বেস্ট ৬টি মাশকারা নিয়ে লিখবো। চলুন জেনে নেয়া যাক!

মেবিলিন ল্যাশ সেনসেশনাল ফুল ফ্যান ইফেক্ট মাশকারা (Maybelline Lash Sensational Full Fan Effect Mascara)

মেবিলিন ল্যাশ সেনসেশনাল ফুল ফ্যান ইফেক্ট মাশকারা (Maybelline Lash Sensational Full Fan Effect Mascara)

প্রথমেই যে মাশকারাটি নিয়ে বলবো সেটি হল মেবিলিন ল্যাশ সেনসেশনাল ফুল ফ্যান ইফেক্ট মাশকারা। যা আমার দেখা সেরা মাশকারা গুলোর মধ্যে একটি! এটি একটি-

  • ওয়াশেবল ও স্ম্যাজপ্রুফ মাশকারা যা আপনার আইল্যাশ বিউটি এনহ্যান্সড করতে সাহায্য করবে।
  • এই মাশকারার ওয়ান্ডে আছে ১০ লেয়ারের ব্রিসল যা আপনার আইল্যাশগুলোকে একটি থেকে আরেকটিকে আলাদা রাখে ও ল্যাশে ফুল ফ্যান ইফেক্ট দেয়।
  • লাইটওয়েট ফর্মুলা। ফলে চোখের পাতা ভারী অনুভব হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।
  • এতে আছে রোজহিপ অয়েল যা আপনার আইল্যাশকে নারিশমেন্ট দিবে এবং ময়েশ্চারাইজড রাখবে।
  • আইল্যাশ জড়িয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। লং লাস্টিং এবং আইল্যাশ বড় ও ঘন দুইটাই দেখাবে।

এসেন্স ল্যাশ প্রিন্সেস ফলস ল্যাশ মাশকারা (Essence Lash Princess False Lash Mascara) 

এসেন্স ল্যাশ প্রিন্সেস ফলস ল্যাশ মাশকারা (Essence Lash Princess False Lash Mascara) 

বর্তমান সময়ে অ্যাফোর্ডেবল প্রাইসের মধ্যে যে ব্র্যান্ডের মাশকারা অনেক বেশি ফেমাস সেটি হল এসেন্স। এই ব্র্যান্ডের মাশকারার কয়েকরকমের ভ্যারিয়েশন আছে। সবগুলোই বেশ ভালো আউটপুট দেয়। তবে আমি একটি ভ্যারিয়েশন নিয়ে কথা বলবো সেটি হচ্ছে সেন্স ল্যাশ প্রিন্সেস ফলস ল্যাশ মাশকারা । এই মাশকারা আমার পছন্দের, কারণ-

  • বাজেট ফ্রেন্ডলি।
  • লাইটওয়েট ফর্মুলা।
  • এতে আছে বি ওয়াক্স, ভেজিটেবল অয়েল যা আইল্যাশকে নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে।
  • আইল্যাশকে জড়িয়ে ফেলে না। ফলস ল্যাশ ইফেক্ট দেয়। তাই; যাদের কাছে ফলস ল্যাশ পড়া ঝামেলা মনে হয় তাদের জন্য বেস্ট চয়েজ।
  • এর কনিক্যাল শেইপ ফাইবার ব্রাশ আইল্যাশকে সুন্দর লেন্থ দেয়ার পাশাপাশি ভলিউমও দেয়।
  • মাশাকারাটি আই স্পেশালিষ্ট দ্বারা পরীক্ষিত।
  • লং লাস্টিং।

লরিয়েল ল্যাশ প্যারাডাইস মাশকারা (Loreal Lash Paradise Mascara)

লরিয়েল ল্যাশ প্যারাডাইস মাশকারা (Loreal Lash Paradise Mascara)

আমার পছন্দের আরেকটি মাশকারা হচ্ছে লরিয়েল ল্যাশ প্যারাডাইস মাশকারা। এই মাশকারার প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলো হচ্ছে-

  • এতে আছে ক্যাস্টর অয়েল। যা আপনার আইল্যাশকে ময়েশচারাইজড করবে। ফলে মাশাকারা অ্যাপ্লাই করার পরও ড্রাই ফিল হবে না।
  • মাশকারা অ্যাপ্লিকেটরটি এতোই সফট যে খুব সহজে এবং কোনরকম ইরিটেশন ছাড়াই মাশাকারা অ্যাপ্লাই করতে পারবেন।
  • আইল্যাশকে বেশ সুন্দর ভলিউম ও লেন্থ দেয়।
  • লাইটওয়েট এবং লং লাস্টিং।

ডব্লিউ সেভেন লেন্থেনিং থিকেনিং মাশকারা (W7 Lengthening Thickening Mascara Black)

ডব্লিউ সেভেন লেন্থেনিং থিকেনিং মাশকারা (W7 Lengthening Thickening Mascara Black)

বর্তমানে জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড হচ্ছে ডব্লিউ সেভেন। এটি একটি বাজেট ফ্রেন্ডলি ব্র্যান্ড। ডব্লিউ সেভেনের অনেকধরনের মেকআপ প্রোডাক্ট ব্যবহার করা হয়েছে। এই ব্র্যান্ডের অনেকগুলো মাশকারাই আছে। প্রত্যেকটি মাশকারাই বেশ ভালো আউটপুট দেয়। তবে; সবচেয়ে বেশি যে মাশকারাটি আমার ভালো লেগেছে সেটি হল ডব্লিউ সেভেন লেন্থেনিং থিকেনিং মাশকারা। এই মাশকারাটি ভালো লাগার কারণ হচ্ছে-

  • বাজেট ফ্রেন্ডলি। কম বাজেটের মধ্য বেস্ট আউটপুট দিবে।
  • লাইটওয়েট ফর্মুলা।
  • রেগুলার ওয়্যারেবল মাশকারা। সিম্পল লুকের জন্য মানানসই।
  • খুব সহজে ও দ্রুত অ্যাপ্লাই করা যায়।
  • এতে আছে বি ওয়্যাক্স ।

মিস্টিন প্রো লং বিগ আই ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা (Mistine Pro Long Big Eye Waterproof Mascara)

এই মাশকারাটি আমরা আরেকটি বেশ পছন্দের মাশকারা। এই মাশকারাটি ক্লেইম করে যে এটি আইল্যাশের লেন্থ ১৫০% বৃদ্ধি করে অর্থাৎ আইল্যাশ ৫ গুণ ঘন করে। এর আরও কিছু বৈশিষ্ট্য হচ্ছে-

  • এই মাশকারার ওয়ান্ডটিতে টুইন ডিজাইন ব্রাশ টেকনোলজি দিয়ে তৈরি। ফলে আইল্যাশ লেন্থ ও থিকনেস অ্যাডজাস্ট করতে পারবেন।
  • এছাড়াও অ্যাপ্লিকেটরটিতে আছে দুই ধরনের ব্রিসল। লম্বা ব্রিসলগুলো আপার ল্যাশে অ্যাপ্লাই করার জন্য ব্যবহার করা হয়। ছোট ব্রিসলগুলো দিয়ে লোয়ার ল্যাশে মাসকারা অ্যাপ্লাই করা হয়। এতে করে চোখে ইনজুরি হওয়ার কোনো সুযোগ থাকবেনা।
  • ট্রাইপ্রুফ ফর্মুলা দিয়ে তৈরি। অর্থাৎ এটি অ্যান্টি-সিবামপ্রুফ, ওয়াটারপ্রুফ, প্রিভেনশন- স্ম্যাজিংপ্রুফ মাশকারা।
  • ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত লং লাস্টিং করে।
  • লাইটওয়েট।
  • এই মাশকারাটি আই স্পেশালিষ্ট দ্বারা পরীক্ষিত। তাই যারা চোখে লেন্স ব্যবহার করেন, নিশ্চিন্তে এই মাশকারাটি ব্যবহার করতে পারবেন।

ডব্লিউ সেভেন অ্যাবসল্যুটলি ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা (W7 Absolutely Waterproof Mascara)

ডব্লিউ সেভেন অ্যাবসল্যুটলি ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা (W7 Absolutely Waterproof Mascara)

ডব্লিউ সেভেন ব্র্যান্ডের আরেকটি বাজেট ফ্রেন্ডলি মাশকারা হচ্ছে ডব্লিউ সেভেন অ্যাবসল্যুটলি ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা। এই মাশকারার প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলো হচ্ছে-

  • ওয়াটারপ্রুফ।
  • সফট স্পাইকড অ্যাপ্লিকেটর।
  • স্পাইকগুলোর মধ্যে গ্যাপ থাকায় অ্যাপ্লাই করার সময় ল্যাশগুলো জড়িয়ে হয়ে যায় না। সেপারেট থাকে।
  • ল্যাশে খুব সুন্দর কার্ল ইফেক্ট দেয়।
  • লং লাস্টিং।

বোনাস টিপস

মাশকারা লং লাস্টিং করতে এবং মাশকারা ব্যবহার করে আইল্যাশ ঘন ও বড় দেখানোর জন্য কিছু টিপস ফলো করতে পারেন-
১/ অ্যাইল্যাশ প্রাইমার ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে মাশকারা দীর্ঘস্থায়ী হবে।
২/ মাশকারা ব্যবহারের পূর্বে আইল্যাশ কার্লার ব্যবহার করুন। এতে করে আরও বেশি সুন্দরভাবে কার্লিং ইফেক্ট দিবে।

আশা করছি, আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের জন্য হেল্পফুল ছিল। মাশকারা কিনতে আর কোনো কনফিউশন থাকবে না। সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ রয়েছে যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত। আর অনলাইনে আপনার কাঙ্ক্ষিত মাশকারাটি কিনতে পারেন শপ.সাজগোজ.কম থেকে। ভালো থাকুন।

ছবি- সাজগোজ

4 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...