তৈলাক্ত ত্বকের স্ক্রাব - Shajgoj তৈলাক্ত ত্বকের স্ক্রাব - Shajgoj

তৈলাক্ত ত্বকের স্ক্রাব

জুলাই ১, ২০১৪

হাতের নাগালেই পাওয়া কিছু অতি পরিচিত উপাদান এবার ব্যবহার করুন আপনার তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে। ঘরে তৈরি স্ক্রাব আপনি নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন, যা বাজারজাত ফেসিয়াল স্ক্রাব অপেক্ষা উত্তম ও কেমিক্যাল মুক্ত।

চলুন দেখে নিই কী করে খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন ঘরে তৈরি অসাধারণ স্ক্রাবঃ

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে তিনটি স্ক্রাবের সহজ প্রণালী দেয়া হলো যা আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল অপসারণ করে ত্বককে পরিষ্কার করে তোলে।

প্রথম স্কাবঃ

তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণের হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে প্রথমেই লোমকূপে জমে থাকা ময়লা ও জীবাণু পরিষ্কার করতে হবে। নিচের প্যাকটি আপনার ত্বককে পরিষ্কার করে এবং ব্রণের হাত থেকে রেহাই দেয়।

উপকরণঃ

১। ১ টেবিল চামচ ওটমিল    ২। ১ চা চামচ মধু     ৩। ১ চা চামচ বেকিং সোডা

ব্যবহার বিধিঃ

সবগুলো উপকরণ একত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মুখ ধুয়ে নিয়ে মিশ্রণটি ২-৩ মিনিট মাসাজ করুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এক টুকরো বরফ ঘষে নিন যা আপনার খোলা লোমকূপ বন্ধ করে দিবে।

টিপসঃ

১. লক্ষ রাখুন যেন প্যাকটি বেশি ঘন না হয়ে যায়, তবে আপনি মধু বা টকদই মিশিয়ে নিতে পারেন।

২.ওটমিল আপনার ত্বকের তেল শোষণ করে ও অতিরিক্ত ওটমিল ব্যবহারে ত্বক বেশি শুষ্ক হয়ে যাবে,যার ফলে ত্বকের তেল লগ্রন্থি আরও বেশি তেল উৎপাদন করতে শুরু করে।

দ্বিতীয় স্ক্রাবঃ

এই স্ক্রাবটি আপনার ত্বককে মসৃণ ও কোমল করে তোলে আর লেবুর ব্যবহারে আপনার ত্বকের ব্রণের প্রকোপ কমে যায়।

উপকরণঃ

১। ১/২ চা চামচ বেকিং সোডা    ২। ১/২ চা চামচ লেবুর রস   ৩। ১ টেবিল চামচ মধু

ব্যবহার বিধিঃ

সবগুলো উপকরণ একত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মুখ ধুয়ে নিয়ে মিশ্রণটি ২-৩ মিনিট মাসাজ করুন। ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

টিপসঃ

১. খুব অল্প পরিমাণে লেবুর রস ও বেকিং সোডা ব্যবহার করুন। অতিরিক্ত ব্যবহারে ত্বকে জ্বালাপোড়ার সমস্যা হতে পারে।

তৃতীয় স্ক্রাবঃ

এই স্ক্রাবটি আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল শোষণ করে নেয় ও সেই সাথে ত্বকের মৃতকোষ দূর করে। যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির সাথে সাথে দাগ হালকা করে তোলে।

উপকরণঃ

১। ১ টেবিল চামচ লাল চিনি (ব্রাউন সুগার)     ২। ১ চা চামচ মধু   ৩। ১ চা চামচ অলিভ অয়েল

ব্যবহার বিধিঃ

সবগুলো উপকরণ একত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মুখ ধুয়ে নিয়ে মিশ্রণটি ২-৩ মিনিট মাসাজ করুন। ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

টিপসঃ

১. প্যাকটি বেশি ঘন হলে আপনি মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

বি. দ্র.

১. যেকোনো ফেসিয়াল স্ক্রাব ব্যবহার করার পূর্বে হাতের একটু ছোট অংশে তা লাগিয়ে পরীক্ষা করে নিন। যদি আপনার ত্বকে জ্বালাপোড়া হয় তবে সেই প্যাক ব্যবহার করবেন না।

২. যেকোনো স্ক্রাব খুব ধীরে ধীরে পুরো মুখে মাসাজ করবেন। কখনই জোর দিয়ে মাসাজ করবেন না।

লিখেছেনঃ সামিহা মেহনাজ

ছবিঃ বিউটিহেলথটিপস.ইন