ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের যত্নে ৩টি কার্যকরী অ্যাসেনশিয়াল অয়েল!

ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের যত্নে ৩টি কার্যকরী অ্যাসেনশিয়াল অয়েল!

ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের যত্নে ৩টি কার্যকরী অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

ঢেউ খেলানো কালো এবং কার্লি চুলের আবেদন সবসময় একটু বেশি। এইধরনের চুলের নিজস্ব সৌন্দর্য রয়েছে। তবে দেখতে সুন্দর হলেও সামলানো বেশ ঝামেলাপূর্ণ। আবার এইধরনের চুলের প্রয়োজন পড়ে বাড়তি যত্নের। তবে কিছু অ্যাসেনশিয়াল অয়েল আছে যা আপনার চুলের ফ্রিজিনেস কমিয়ে আনতে এবং চুলকে ঝলমলে করতে সাহায্য করবে অনেকটাই! আজকের ফিচার থেকে জেনে নিন ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের যত্নে ৩টি  অ্যাসেনশিয়াল অয়েল এবং এগুলোর ব্যবহার সম্পর্কে।

অ্যাসেনশিয়াল অয়েল কী?

বিভিন্ন ফুল, গাছের নির্যাস থেকে একধরনের তেল তৈরি হয় যাকে অ্যাসেনশিয়াল অয়েল বলে। যে গাছ অথবা ফুল থেকে তেল সংগ্রহ করা হয় সেই গাছ বা ফুলের গন্ধ তেলে পাওয়া যায়। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিকভাবে সংগ্রহ করা হয় বিধায় অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের গন্ধ, টেক্সচারে প্রকৃতির ছোঁয়া পাওয়া যায়।

প্রতিটি অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের নিজস্ব স্বকীয়তা রয়েছে। একটি থেকে অপরটির সুবাস এছাড়াও গুণাগুণেও রয়েছে ভিন্নতা। যেমনঃ ল্যাভেন্ডার অ্যাসেনশিয়াল অয়েল অ্যাপ্লাই করলে শীতল অনুভূতি আসে এবং ভালো ঘুমে সহায়তা করে।

এছাড়াও, ত্বকের পাশাপাশি চুলের যত্নেও অ্যাসেনশিয়াল অয়েল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কীভাবে? জেনে নিন!

রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

রোজমেরি গাছের পাতা থেকে এই অয়েল সংগ্রহ করা হয়। রোজমেরি এর সুগন্ধ এবং ঔষধি ব্যবহারের জন্য পরিচিত। রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা। শুধু স্বাস্থ্য নয়; ত্বক এবং চুলের যত্নেও যুগ যুগ ধরে এই অয়েল ব্যবহার হয়ে আসছে। আমাদের বিভিন্ন কারণে চুল পড়তে পারে। রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে।

কীভাবে ব্যবহার করবেন?

১। হেয়ার ম্যাসাজ

  • গোসলের পর ৫ ফোঁটা রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল এবং ১ চা চামচ জোজোবা অয়েল অথবা নারকেল তেল মিশিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করুন।
  • ৫ -১০ মিনিট পর চুল ধুয়ে ফেলুন অথবা চুলে রেখে দিন।

২। শ্যাম্পুর সাথে রোজমেরি

  • আপনার শ্যাম্পু অথবা কন্ডিশনারের সাথে ২০-৩০ ফোঁটা প্রতি আউন্সে (৬ চা চামচ) রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন।
  • এই শ্যাম্পু চুলে ব্যবহার করুন। শ্যাম্পু শেষে ২-৩ ফোঁটা রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল হাতে নিয়ে চুলে ম্যাসাজ করুন।

স্কিনক্যাফে রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল ওয়েল

৩। হট অয়েল ম্যাসাজ

  • একটি প্যানে ২-৪ ফোঁটা রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের সাথে নারকেল/বাদাম/জলপাই তেল মিশিয়ে নিন।
  • কুসুম গরম তেল স্ক্যাল্পে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন।
  • পুরো স্ক্যাল্প ম্যাসাজ হয়ে গেলে গরম তোয়ালে বা শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে মাথাটা মুড়িয়ে নিন।
  • এভাবে ৩০ মিনিট রাখতে হবে।
  • ৩০ মিনিট পরে পানি দিয়ে চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।
  • সপ্তাহে দুইদিন এই হট অয়েল ট্রিটমেন্ট চুলে ব্যবহার করুন।

ইলাং ইলাং অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

কানাঙ্গা গাছ থেকে সংগৃহীত হলুদ রঙের ইলাং ইলাং ফুল থেকে ইলাং ইলাং অ্যাসেনশিয়াল অয়েল সংগৃহীত। এই তেলের সুবাস মনকে শান্ত রাখতে, স্ট্রেস ফ্রি থাকতে সাহায্য করে। শুধু মনকে শান্ত করতে নয়, ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলকে সিল্কি নরম করতেও ইলাং ইলাং অয়েলের জুড়ি নেই।

১। হেয়ার স্প্রে টনিক

কুসুম গরম পানির সাথে কয়েক ফোঁটা ইলাং ইলাং অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন। এটি ফ্রিজি চুলে স্প্রে করে ব্যবহার করুন।

২। অয়েল ম্যাসাজ

ইলাং ইলাং এবং নারিকেল তেল

  • ৩ টেবিল চামচ নারিকেল তেলের সাথে ৫ ফোঁটা ইলাং ইলাং অয়েল মিশিয়ে নিন।
  • এই মিশ্রণটি দিয়ে মাথার স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করুন।
  • ৩০ মিনিট পর গরম টাওয়াল দিয়ে চুল পেঁচিয়ে রাখুন। এটি নতুন চুল গ্রো করতে সাহায্য করবে।

৩। শ্যাম্পুর সাথে ইলাং ইলাং 

শ্যাম্পু অথবা কন্ডিশনারের সাথে কয়েক ফোঁটা ইলাং ইলাং অয়েল মিশিয়ে নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন।

টি ট্রি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

সৌন্দর্য সচেতন মানুষদের কাছে ট্রি টি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল বেশ পরিচিত একটি নাম। একে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। স্কিনে ট্রি টি অ্যাসেনশিয়াল অয়েলের ব্যবহার সম্পর্কে কম-বেশি আমরা সবাই জানি। ফ্রিজি, কোঁকড়া চুলকে বশে আনতে এই অয়েলের জুড়ি নেই।

১। অলিভ অয়েল এবং টি ট্রি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের যত্নে টি ট্রি ও অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল এবং টি ট্রি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল চুল বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। সেই সাথে মাথার ত্বককে আর্দ্র রাখতে ও চুলের বৃদ্ধি ত্বরান্বিত করতে খুব ভালো কাজ করবে এই মিশ্রণটি।

  • ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল এবং ৪ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল একসাথে মিশিয়ে মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করুন।
  • ২-৩ ঘন্টা পর চুল ধুয়ে ফেলুন।

২। খুশকি দূর করতে

  • স্ক্যাল্পে খুশকি হলে শ্যাম্পু করার আগে এর সঙ্গে ২ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে চুলের গোড়ায় ভালো করে ম্যাসাজ করুন।
  • ৫০০ মিলি পানির সাথে ২ টেবিল চামচ লেবুর রস আর ৪ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে তৈরি করতে নিতে পারেন মিস্ট।
  • স্ক্যাল্পে যেখানে খুশকি হয়েছে সেখানে এ মিশ্রণটি স্প্রে করে লাগিয়ে রাখুন ৪৫ মিনিট।

খুশকি দূর করতে এটি ভালো কাজ করবে।

সতর্কতা

কার্লি চুলকে প্রাণবন্ত করতে ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহার করছে একজন

১। ভালো ফলাফল পেতে অথেনটিক অ্যাসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করুন।

২। যদি মাথাব্যথা, ঘুম ঘুম ভাব অথবা অন্য কোনো সমস্যা অনুভব হয়, তাহলে অয়েল ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

৩। ইলাং ইলাং অয়েল লো ব্লাড প্রেশারের রোগীদের ব্যবহার না করাই উচিত।

৪। আপনি যদি গর্ভবতী হয়ে থাকেন তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে অ্যাসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করুন।

ফ্রিজি এবং আনম্যানেজেবল চুলের জন্য ৩টি মাস্ট হ্যাভ অ্যাসেনশিয়াল অয়েল ও এগুলোর ব্যবহারবিধি সম্পর্কে জানলেন। আশা করি, আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য হেল্পফুল ছিল। অথেনটিক হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্টস কিনতে আপনারা চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত, সেখান থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। ভালো থাকুন, নিরাপদে থাকুন।

ছবি- সাজগোজ

4 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...