ছেলেদের জন্য সেরা ৩টি ফেইস ওয়াশ | কোনটা আপনার জন্য রাইট চয়েজ?

ছেলেদের জন্য সেরা ৩টি ফেইস ওয়াশ | কোনটা আপনার জন্য রাইট চয়েজ?

2 (26)

ছেলেদের স্কিন কেয়ার বলতে গেলে সাবান বা ফেইস ওয়াশেই সীমাবদ্ধ। ময়েশ্চারাইজারের ব্যবহার অথবা সপ্তাহে একদিন স্ক্রাব ব্যবহার করতে হবে বা করা উচিৎ, এটা অনেকেরই মাথায় থাকে না। কিন্তু অন্য কিছু ব্যবহার না করা হলেও, বাহির থেকে আসার পর ফেইস ওয়াশ দিয়ে মুখটা ক্লিন করা হয়, তাই তো? মুখে সাবান ইউজ করবেন না ভুলেও! সাবানের অতিরিক্ত ক্ষারে ত্বক আরও রুক্ষ হয়ে যায়। আর বাজারে ৮০% প্রোডাক্টই মেয়েদের, তাই অনেক ছেলেদেরই বুঝতে অসুবিধা হয় যে কোন ফেইস ওয়াশটা আমার ত্বকের জন্য পারফেক্ট। যেমন আমার ত্বক রাফ হওয়ার সাথে আবার আজকাল ব্রণও দেখা দিচ্ছে। অন্যদিকে অনেকের কাছে শুনতে পাই, সেভ করার ফলে ত্বক ড্রাই ও খসখসে হয়ে যাচ্ছে। এই সমস্যাগুলো আমরা ছেলেরা রেগুলার লাইফে কমবেশি ফেইস করি। আজকে আমি ছেলেদের জন্য সেরা ৩টি ফেইস ওয়াশ নিয়ে কথা বলবো, আশা করি এতে আপনি বুঝতে পারবেন কোন ফেইস ওয়াশটি আপনার স্কিনের জন্য রাইট চয়েজ হবে।

ফেইস ওয়াশ কেনার আগে জেনে নিন কিছু বিষয় 

ছেলেদের নানা কাজে বাহিরে যেতে হয়, হয়তো কোনো কাজে, ক্লাসে কিংবা অফিসে। রোদের প্রচন্ড তাপ, দূষণ, বাইরের ধুলাময়লা এসবের ভেতর দিয়ে প্রতিদিন যেতে হয়। ফলে ত্বকে তো ইমপ্যাক্ট পরেই, আর ত্বক হয়ে ওঠে আরো রুক্ষ। তাই ত্বকের যত্নে ফেইস ওয়াশ খুব ইম্পরট্যান্ট একটি স্টেপ। ছেলেদের ত্বক কিন্তু মেয়েদের থেকে আলাদা, তাই ত্বকের যত্ন নিতে হবে আলাদা প্রোডাক্ট দিয়ে। সেভ করার জন্য ধারালো ব্লেডের ঘষায় ত্বক কিন্তু আরও রুক্ষ হয়ে যায়। এছাড়া একনে, একনে স্পট, মলিন ত্বক কিংবা ডালনেস- এসব স্কিন প্রবলেমের উপর ফোকাস করে কিন্তু রাইট ফেইস ওয়াশ আপনি রেগুলার স্কিন কেয়ারে অ্যাড করতে পারেন।

ছেলেদের ৩টি ফেইস ওয়াশ

নিউট্রোজিনা মেন স্কিন ক্লিয়ারিং একনে ওয়াশ (Neotrogena Men Skin Clearing Acne Wash)

প্রথমেই আমি একনে রিলেটেড ফেইস ওয়াশ নিয়ে কথা বলবো, যেহেতু আমি নিজে এই সমস্যায় এখন ভুগছি। আর ম্যাক্সিমাম ছেলেরাই ব্রণ, র‍্যাশ এই ধরনের স্কিন প্রবলেমে ভুগে থাকে। নিউট্রোজিনা মেন স্কিন ক্লিয়ারিং একনে ওয়াশ ব্যবহার করছি বেশ কিছুদিন ধরেই, বেশ ভালো রেজাল্ট পেয়েছি, সেই অভিজ্ঞতাটাই আমি তুলে ধরছি।

(১) স্যালিসাইলিক অ্যাসিড থাকার ফলে একনে ট্রিটমেন্টের জন্য বেষ্ট। পোরস থেকে ময়লা ক্লিন করে একনে, র‍্যাশ বা ব্রেকআউট কমাতে হেল্প করে। এছাড়া ডেড সেলও ক্লিন করে।
(২) একনে হওয়ার আরেকটি কারণ কিন্তু এক্সসেস অয়েল। স্যালিসাইলিক অ্যাসিড ত্বকের অতিরিক্ত অয়েল কন্ট্রোল করে।
(৩) ফেইস ওয়াশ ব্যবহারের পর স্কিন ড্রাই ফিল হয় না, স্কিন ফ্রেশ দেখায়।
(৪) সেভ করার আগে ফেইসে অ্যাপ্লাই করলে ফেসিয়াল হেয়ার সফট হয়, সেভ করতে ইজি হয়।
(৫) খুব মাইল্ড একটি সুগন্ধ আছে যা খুবই রিফ্রেশিং ফিল দেয়।

লরিয়াল মেন এক্সপার্ট হাইড্রা এনার্জেটিক ওয়েক-আপ ইফেক্ট ফেইস ওয়াশ (L’Oreal Men Expert Hydra Energetic Wake-Up Effect Face Wash)

স্কিনে হাইড্রেশন প্রভাইড করে ইনস্ট্যান্টলি এনার্জেটিক দেখাতে এই ফেইস ওয়াশটি বেশ ভালো কাজ করে। সারাদিনের ক্লান্তি দূর করার জন্য পাশাপাশি স্কিনে সতেজতা ধরে রাখে। এরসাথে এটি ত্বকের অন্য প্রবলেমগুলোকে টার্গেট করে কাজ করে।

(১) এটি জেল ফর্মুলার ফেইস ওয়াশ, অনেকে জেল বেইজড ক্লেনজার প্রিফার করেন।
(২) এই ফেইস ওয়াশ GUARANA উপাদানটি রয়েছে। এতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকায় স্কিনের ড্যামেজ কমিয়ে আনে, আর অ্যান্টি এজিং বেনিফিট দিয়ে থাকে।
(৩) আর সাথে রয়েছে ভিটামিন সি, যা স্কিনকে ব্রাইট করতে হেল্প করবে এবং টায়ার্ড লুকিং ফেইসকে ইনস্ট্যান্টলি এনার্জেটিক করে তোলে।
(৪) স্কিনকে ভেতর থেকে ক্লিন করে আর স্কিন ফ্রেশ দেখায় নিমিষেই।

গার্নিয়ার মেন পাওয়ার হোয়াইট ডাবল অ্যাকশন ফেইস ওয়াশ (Garnier Men Power White Double Action Face Wash)

গার্নিয়ার ব্র্যান্ডটি বেশ পপুলার অলরেডি। গার্নিয়ার মেন পাওয়ার হোয়াইট ডাবল অ্যাকশন ফেইস ওয়াশটি রিজেনেবল প্রাইসে পেয়ে যাবেন। এই ফেইস ওয়াশে একই সাথে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন সি রয়েছে, দুইটি উপাদানের উপকারিতা একসাথে পেয়ে যাবেন। কী কী স্কিন বেনিফিটস পাবেন সেটা দেখে নিন।

(১) ডেড সেল ক্লিন করে স্কিনের ডালনেস কমায়।
(২) ত্বকের উপরিভাগে জমে থাকা ডার্ট, পলুশন ক্লিন করে রিফ্রেশিং ফিল দেয়।
(৩) স্যালিসাইলিক অ্যাসিড অতিরিক্ত অয়েল কন্ট্রোল করে একনে প্রিভেন্ট করে।
(৪) ভিটামিন সি থাকায় স্কিনের স্পট হালকা হয় এবং স্কিন দেখতেও ব্রাইট লাগে।
(৫) স্কিনের ড্যামেজ রিপেয়ার করতে হেল্প করে।

ত্বক যখন খুব বেশি ড্যামেজ হয়ে যায়, তখন সেটা কিন্তু আপনার কনফিডেন্স লেভেলটাও কমিয়ে দেয়। স্কিনকে পরিষ্কার রাখা বেসিক স্কিন কেয়ারের প্রথম ধাপ, আর এরজন্য প্রয়োজন ভালোমানের ফেইস ওয়াশ। আমাদের কিন্তু ত্বকের যত্ন স্টেপ ধরে ধরে করা হয় না, তবে ফেইস ওয়াশ, ময়েশ্চারাইজার আর সানস্ক্রিন– এই ৩টি জিনিস ব্যবহার করা উচিৎ। আর সাথে ভালো মানের সেভিং ক্রিম বা ফোম। অথেনটিক স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কিনতে আমার সবসময়ই ভরসা শপ.সাজগোজ.কম। ছেলেদের জন্যও নানারকম স্কিন ও হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট পেয়ে যাবেন এখানে। অনলাইনে অর্ডার করে ঘরে বসেই প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে যাই। তাছাড়া সাজগোজের দুইটা আউটলেট আছে, যেটা যমুনা ফিউচার পার্ক আর সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত। তাহলে আজ এই পর্যন্তই। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

ছবি- সাজগোজ

 

16 I like it
5 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...