গরমে হিজাবিদের হেয়ার কেয়ার রুটিন কেমন হওয়া উচিত?

গরমে হিজাবিদের হেয়ার কেয়ার রুটিন কেমন হবে?

hijabi

গরমকালে চুলে কত ধরণের সমস্যা যে দেখা যায়! চুল পড়া, চিটচিটে স্ক্যাল্প, ড্যানড্রাফ, রুক্ষতা আরও কত কী প্রবলেম আমরা কম বেশি সবাই ডেইলি ফেইস করছি। যারা মডেস্ট গেটআপ করেন বা পর্দা মেনটেইন করেন, তারা বাইরে বের হলে হিজাবেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। কিন্তু এই গরমে দীর্ঘ সময় স্কার্ফ দিয়ে মাথা ঢেকে চুলের সমস্যা আরও বেড়ে যাচ্ছে কি? কীভাবে সহজেই চুল ও স্ক্যাল্পের যত্ন নেওয়া যায়, এই প্রশ্ন অনেকেই করেন। ব্যস্ত লাইফে আমাদের চাই ইজি সল্যুশন। গরমে হিজাবিদের হেয়ার কেয়ার রুটিন কেমন হওয়া উচিত, সেটাই আজ আমরা জানবো। সেই সাথে হিজাবিদের জন্য মাস্ট হ্যাভ একটি শ্যাম্পুর রিভিউও জেনে নিবো।

গরমে হিজাবিদের চুলের যত্ন

হিজাবিদের ডেইলি হেয়ার কেয়ার

হিজাব পরে থাকার কারণে মাথার ত্বক ঘেমে চুলের গোড়ায় ব্যাকটেরিয়া ও ফাঙ্গাস সৃষ্টি হতে পারে, যার কারনে ইচিনেস বা চুলকানি, ফাঙ্গাল ইনফেকশন, অয়েলি স্ক্যাল্প আরও অনেক ধরণের সমস্যা হয়। ডেইলি হেয়ার কেয়ার রুটিনে চুল ও মাথার ত্বক পরিচ্ছন রাখাই মেইন স্টেপ। চলুন চট করে জেনে নেই যে, প্রতিদিনের হেয়ার কেয়ার রুটিনটা কেমন হবে-

১) প্রতিদিন যদি আপনাকে বাইরে যেতে হয় এবং হিজাব পরিধান করে লং টাইম থাকতে হয়, তাহলে বাসায় ফিরে শ্যাম্পু করে নিন। এতে চুলের গোঁড়া পরিষ্কার থাকবে। ঘাম আর ময়লা জমে খুশকি হওয়ার চান্স থাকবে না।

২) শ্যাম্পু করার পর চুলকে কন্ডিশনিং করা প্রয়োজন। মাথার তালু বাদে চুলে ভালোভাবে কন্ডিশনার লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। এরপর পানি দিয়ে প্রোপারলি ধুয়ে ফেলুন।

৩) অনেকে গোসলের পর চুল পুরোপুরি না শুকিয়েই হিজাব পরেন, এটা করবেন না। সবসময় চুল বাতাসে পুরোপুরিভাবে শুকিয়ে নিতে হবে। খুব তাড়াহুড়া থাকলে হেয়ার ড্রায়ার ইউজ করতে পারেন।

৪) চুল আঁটসাঁটভাবে না বেঁধে হালকা করে বেনি না লুজ বান করে নিতে পারেন। রেগুলার হিজাব পরলে চুল খুব শক্ত করে বাঁধা যাবে না, এতে চুলের গোঁড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সাপ্তাহিক হেয়ার কেয়ার

হিজাবিদের জন্য চুলের এক্সট্রা কেয়ার নেওয়াটা খুবই প্রয়োজন। ছুটির দিনে কিংবা ফ্রি টাইমে নিজেকে কিছুটা সময় দিন। হিজাবের নিচে চুল ঢাকা থাকে, তাই বলে কি চুলের যত্ন নিবেন না? খুব সহজে বাসাতেই ঘরোয়াভাবে সাপ্তাহিক হেয়ার কেয়ার করে নিতে পারেন। গরমে হিজাবিদের হেয়ার কেয়ারে উইকলি কী করা যেতে পারে, সেটা দেখে নিন।

১) স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে ও চুল পড়া কমাতে অয়েল ম্যাসাজ খুবই কার্যকরী। বিশুদ্ধ নারকেল তেলের সাথে কয়েক ফোঁটা ক্যাস্টর অয়েল বা আমন্ড অয়েল দিয়ে মাথার তালু আলতোভাবে ম্যাসাজ করে নিন। সপ্তাহে ১-২ দিন চুলে তেল লাগাতে ভুলবেন না।

২) হিজাব পড়ার ফলে গরমে অনেকেরই খুশকির সমস্যা বেড়ে যায়। সাপ্তাহিক হেয়ার কেয়ার রুটিনে অ্যাড করুন হোমমেড মাস্ক। মেহেদি, টকদই, লেবুর রস দিয়ে প্যাক বানিয়ে চুলে লাগাতে পারেন। ৩০-৪০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৩) গরমে আরেকটি সমস্যা ফেইস করেন হিজাবিরা, সেটা হচ্ছে নিষ্প্রাণ চুল। পাকা কলা, ডিম, টকদই আর আমলা পাউডার দিয়ে প্যাক বানিয়ে অ্যাপ্লাই করুন চুলে। কিছু সময় রেখে চুল ভালোমানের শ্যাম্পু দিয়ে ওয়াশ করে নিন। এভাবে প্যাক ইউজ করলে চুলের গোঁড়া মজবুত হবে, আর চুল হবে সিল্কি।

হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট সিলেকশনে কোন বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন?

হিজাবিদের হেয়ার প্রবলেমগুলোকে টার্গেট করে স্পেশাল হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট এখন মার্কেটে পাওয়া যায়। কিন্তু কোন প্রোডাক্টটি আসলেই কাজ করবে, দীর্ঘ সময় ধরে চুলকে ড্যানড্রাফ মুক্ত রাখবে, স্ক্যাল্প নারিশড করবে, সেটা সিলেক্ট করাটা একটু কঠিন, তাই না? আপনি যখনই কোনো প্রোডাক্ট কিনবেন, সেটার ইনগ্রেডিয়েন্ট লিস্ট চেক করে নিতে ভুলবেন না। আপনার প্রবলেমের সল্যুশনে সেই উপাদানগুলো হেল্পফুল কী না, সেটা একটু স্টাডি করে নিবেন।

হিজাবিদের হেয়ার কেয়ারের জন্য কোন শ্যাম্পু ভালো হবে এবং কেন?

আগেই বলেছি, হিজাবিদের চুলের সমস্যা সমাধানে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা মেনটেইন করা খুবই জরুরি। আর সেজন্য প্রয়োজন রেগুলার শ্যাম্পু করা। ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু আমার রিসেন্ট ফেবারিট প্রোডাক্ট। হিজাব পড়ার ফলে খুশকির সমস্যা বেড়ে যাচ্ছিলো আর গরমে আমি একটা শ্যাম্পু খুঁজছিলাম যেটা আমাকে রিফ্রেশিং ফিল দেবে, সেই সাথে খুশকি থেকে পরিত্রাণ দেবে। এক ফ্রেন্ডের সাজেশনে আমি ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু ইউজ করা শুরু করেছি বেশ কিছুদিন আগে আর পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারলাম! এক কথায়, আমার ইউজ করা বেস্ট হিজাব শ্যাম্পু এটি। কিন্তু কেন আর কী উপাদান আছে এতে? জানি এই প্রশ্নের উত্তর আপনিও জানতে চাচ্ছেন।

ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পুতে আছে নিউট্রিয়াম ১০, প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলস। প্রোডাক্টটি ক্লেইম করে যে, এটি স্ক্যাল্পের ন্যাচারাল প্রটেকটিভ লেয়ার অ্যাক্টিভেট করে, যেটা নিশ্চিত করে লং লাস্টিং ড্যানড্রাফ কন্ট্রোল হেয়ার। হ্যাঁ, ইট ওয়ার্কস! হিজাব পরিধানে সারাদিনের চিটচিটে চুল, খুশকি এসব সমস্যা সমাধানে দারুন কাজ করেছে শ্যাম্পুটি। আমি তো রেগুলার বেসিসে ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু ব্যবহার করছি। এটা আমার চুলে বেশ ভালো স্যুট করেছে। হিজাবিদের লিম্প ফ্রি আর ড্যানড্রাফ ফ্রি হেয়ার পেতে এটা মাস্ট হ্যাভ একটি প্রোডাক্ট!

তাহলে আমাদের জানা হয়ে গেলো, হিজাবের সাথেও কীভাবে স্বাস্থ্যজ্জ্বল চুল পেতে পারেন। গরমে হিজাবিদের হেয়ার কেয়ারের সাথে একটি ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু নিয়েও ছোট্ট রিভিউ জেনে নিলেন। আশা করছি, আজকের আর্টিকেলটি হিজাবিদের জন্য হেল্পফুল ছিল। স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের জন্য অথেক্টিক প্রোডাক্ট আপনারা চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ ভিজিট করতে পারেন, যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

ছবি- সাজগোজ, সাটারস্টক

11 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...