সুন্দর চুল পেতে স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু সিলেকশন!

সুন্দর চুল পেতে স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু সিলেকশন!

5 (26)

আমরা আমাদের ত্বক নিয়ে খুব কনসার্নড থাকি, তাই না? ত্বকের যত্নে কতকিছুই না ব্যবহার করি আমরা, ত্বকে যেকোনো সমস্যা হলেই আমরা উদ্বিগ্ন হয়ে যাই। কিন্তু চুলের প্রতি আমরা অনেকে বেশ উদাসীন। স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহারের বিষয়টাকে একদমই গুরুত্ব দেই না। যেকোনো শ্যাম্পু ব্যবহার করলেই তো হয়! এতে আর কী এমন ক্ষতি হবে! আপনিও কি এমনটাই ভাবেন? ঠিক এভাবেই আমরা আমাদের চুলের মারাত্মক ক্ষতি করে বসি। চুলে কী ধরনের শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল প্রোপার কেয়ার পাবে সেটা নিয়ে কনফিউশনে আছেন? সুন্দর চুল পেতে স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু সিলেকশন নিয়েই আমাদের আজকের ফিচার।

সুন্দর চুল পেতে স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন বুঝতে হবে প্রথমেই

আমরা অনেকেই কিন্তু বুঝে উঠতে পারি না আমাদের চুলের ধরন ঠিক কেমন। আপনার চুল কোন ধরনের তা অনেকগুলো ফ্যাক্টরের উপর নির্ভর করে। যেমন- চুলের ঘনত্ব, গ্রিজিনেস এবং কার্ল প্যাটার্ন ইত্যাদি। আমাদের স্কিন টাইপের মতো চুলও কয়েক ধরনের হয়ে থাকে। হেয়ার টাইপ অনুযায়ী কোন শ্যাম্পুটি আপনার জন্য বেস্ট অপশন হতে পারে, সেটা এখন সাজেস্ট করবো। চলুন জেনে নেয়া যাক স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু কীভাবে নির্বাচন করবেন।

হেয়ার টাইপ অনুযায়ী শ্যাম্পু সিলেকশন

চুলের ঘনত্ব অনুযায়ী

চুলের ঘনত্ব অনুযায়ী চুলকে ২ ভাগে ভাগ করা যায়, পাতলা চুল এবং ঘন চুল।

থিন হেয়ার বা পাতলা চুল

আপনার চুল সেকশন করলে সহজেই স্ক্যাল্প দেখতে পারেন? এছাড়াও আঙ্গুল দিয়ে চুলের মধ্যে টাচ করলে স্ক্যাল্প সহজেই ফিল করতে পারেন? এর মানে হচ্ছে আপনার চুল পাতলা। এধরনের চুলের জন্য ভলিউম বাড়ায় এমন শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। কারণ এধরনের শ্যাম্পুতে আছে প্রোটিন ও পলিমারস, যা চুলের বাউন্সিভাব এনহ্যান্স করতে হেল্প করে। এছাড়াও থাকে কোলাজেন, যা চুলের ভলিউম বাড়াতে বেশ হেল্পফুল। এধরনের চুলের জন্য অনেক রকম ভলিউম শ্যাম্পুই আছে, তবে আমি যেই দুইটি প্রোডাক্ট সাজেস্ট করছি সেগুলো ট্রাই করে দেখতে পারেন।

১) হারবাল এসেন্স ডেইলি ডিটক্স ভলিউম শ্যাম্পু (Herbal Essences Daily Detox Volume Shampoo)
  • এতে আছে ক্রিমসন অরেঞ্জ ও মিন্ট এক্সট্র্যাক্ট, যা আপনার স্ক্যাল্পকে রিফ্রেশিং ফিল দিবে।
  • এই শ্যাম্পু সিলিকন ও প্যারাবেন ফ্রি।
  • চুল প্রোপারলি ক্লিন করে।
  • পিএইচ ব্যালেন্সড।
  • প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারবেন।
২) ওজিএক্স বায়োটিন অ্যান্ড কোলাজেন শ্যাম্পু (OGX Biotin & Collagen Shampoo)
  • এতে আছে ভিটামিন বি৭, বায়োটিন, হাইড্রোলাইজড কোলাজেন, হাইড্রোলাইজড হুইট প্রোটিন, হুইট প্রোটিন পলিমার।
  • এই শ্যাম্পুও সিলিকন, প্যারাবেন ও সালফেট ফ্রি।
  • চুলকে ভলিউমাইজিং ও হেলদি ইফেক্ট দেয়।
  • ভিটামিন বি৭ এবং বায়োটিন চুলের গ্রোথ বাড়ায়, কোলাজেন বিল্ড আপ করে।
  • এতে আছে জেসমিন ও ভ্যানিলার নির্যাস যা আপনার স্ক্যাল্প এবং চুলের দুর্গন্ধ দূর করে।
থিক হেয়ার বা ঘন চুল

আপনি যদি আপনার চুলকে একপাশে সেকশন করলে দেখেন যে মাথার স্ক্যাল্প সহজে দেখা যাচ্ছে না এবং আঙ্গুল চুলের ভেতরে দিলে স্ক্যাল্প সহজে খুঁজে পাওয়া যায় না তবে আপানার চুল ঘন। হাইড্রেটিং ও ময়েশ্চারাইজিং উপাদান আছে যা চুলকে যথেষ্ট ময়েশ্চার ও হাইড্রেশন প্রোভাইড করবে এবং স্মুথিং ইফেক্ট দিবে এরকম শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। এধরনের চুলের জন্য আমি যে ২টি শ্যাম্পু সাজেস্ট করবো, সেটা এখনই দেখে নিন।

১) হারবাল এসেন্স হ্যালো হাইড্রেশন শ্যাম্পু (Herbal Essences Hello Hydration Shampoo)
  • এই শ্যাম্পুতে আছে নারিকেলের নির্যাস এবং ময়েশ্চার রিচ সিস্টেম যা আপনার থিক ও ড্রাই চুলকে যথেষ্ট হাইড্রেশন প্রোভাইড করবে।
  • এই শ্যাম্পু গ্লুটেন, প্যারাবেন, সালফেট, সিলিকন ফ্রি।
  • এতে কোনো মিনারেল অয়েল নেই।
  • কোকোনাট এসেন্স থাকার কারণে শ্যাম্পুর টেক্সচার বেশ ক্রিমি হয়।
  • ডিপ ক্লিন করে এবং হাইড্রেশন প্রোভাইড করে।
  • চুল পড়া কমাতে ভূমিকা রাখে।
  • প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারবেন।
  • পিএইচ ব্যালেন্সড।
  • কালার সেইফ।
২) ট্রেসেমি বোটানিক কার্ল হাইড্রেশন শ্যাম্পু (TRESemmé Botanique Curl Hydration Shampoo)
  • এই শ্যাম্পুতে আছে বোটানিক কার্ল হাইড্রেশন সিস্টেম, শিয়া বাটার এবং হিবিসকাস অয়েল যা আপনার থিক ও কার্লি চুলকে করবে আরও বেশি ম্যানেজেবল।
  • এছাড়াও প্রোভাইড করবে যথেষ্ট ময়েশ্চার ও হাইড্রেশন।
  • এই শ্যাম্পু প্যারাবেন ও ডাইস (dyes) ফ্রি।
  • চুল জেন্টলি ক্লিনিং করে এবং সফট রাখে।
  • কালার সেইফ।

কার্ল প্যাটার্ন অনুযায়ী

কার্ল প্যাটার্ন অনুযায়ী চুল প্রধানত ২ ধরনের, স্ট্রেইট হেয়ার বা সোজা চুল এবং কার্লি হেয়ার বা কোঁকড়ানো চুল।

স্ট্রেইট হেয়ার বা সোজা চুল

এই ধরনের চুলের জন্য এমন ধরনের ইনগ্রেডিয়েন্টযুক্ত শ্যাম্পু লাগবে যা আপনার চুলকে এক্সট্রা স্মুথিং ও ময়েশ্চারাইজিং ইফেক্ট দিবে। হেয়ার কিউটিকল সিল করে চুলের স্ট্রেইট ও স্মুথভাব সবসময় থাকে। এধরনের চুলের জন্য কোন শ্যাম্পুগুলো ব্যবহার করতে পারেন, সেটা দেখে নিন।

১) ডাভ স্ট্রেইট অ্যান্ড সিল্কি শ্যাম্পু (Dove Straight & Silky Shampoo)
  • এই শ্যাম্পুতে আছে অ্যাডভান্সড ড্যামেজ কেয়ার ও রিপেয়ার টেকনোলজি।
  • এছাড়াও এতে আছে মাইক্রো ময়েশ্চার সিরাম যা আপনার চুলের কিউটিকলে কোনো ড্যামেজ থাকলে রিপেয়ার করে।
  • চুলকে স্ট্রেইট ও ম্যানেজেবল করে।
  • নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে।
  • এছাড়াও এই শ্যাম্পু হেয়ার সারফেস স্মুথ করে এবং শাইনিভাব আনে।
  • নিয়মিত ব্যবহারে চুলকে হেলদি রাখে।
২) সানসিল্ক পারফেক্ট স্ট্রেইট শ্যাম্পু (Sunsilk Perfect Straight Shampoo)
  • স্ট্রেইট লক টেকনোলজি এবং সিল্ক প্রোটিন যা আপনার চুলের অ্যালাইনমেন্ট ঠিক রাখে এবং সারাদিন স্ট্রেইট রাখে।
  • এছাড়াও চুলকে শাইনি রাখতে হেল্প করে।
কার্লি হেয়ার বা কোঁকড়ানো চুল

কার্লি হেয়ারে ফ্রিজিনেস অনেক বেশি দেখা যায়। তাই এধরনের চুলের জন্য এমন ধরনের ইনগ্রেডিয়েন্টযুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন যাতে চুলের ফ্রিজিনেস কমে যায় এবং কার্লগুলোও সুন্দর থাকে। এধরনের চুলের জন্য ট্রেসেমি বোটানিক কার্ল হাইড্রেশন শ্যাম্পুটি ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও যে শ্যাম্পুটি আমি নিজে ইউজ করে বেনিফিট পেয়েছি, সেটার ছোট্ট রিভিউ দিচ্ছি।

ট্রেসেমি কেরাটিন স্মুথ শ্যাম্পু (TRESemmé Keratin Smooth Shampoo)
  • এই শ্যাম্পুতে আছে খুবই অল্প পরিমাণে সালফেট। ইনফিউসড কেরাটিন এবং মেরুলা অয়েল আছে, যা চুলের কেরাটিন রিস্টোর করে।
  • নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে চুলকে সুন্দর রাখতে হেল্প করে।
  • কার্লি চুলের ফ্রিজিনেস কন্ট্রোল করে ম্যানেজেবল রাখে।
  • চুলের জট কমায়, হেলদি ও শাইনি করে।

স্ক্যাল্পের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু

স্ক্যাল্পের ধরন মেইনলি ৩ প্রকার; অয়েলি, ড্রাই এবং নরমাল।

অয়েলি স্ক্যাল্প 

স্ক্যাল্পে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত সিবাম প্রোডাকশন হলেই স্ক্যাল্প অয়েলি হয়ে যায়। ফলে চুল পড়ার হার বাড়ে। চুল আঠালো ও তেলতেলে হয়ে যায়। এছাড়াও খুশকি সমস্যা দেখা দেয়। এধরনের চুলের জন্য অ্যালোভেরা এবং হারবাল নির্যাস দিয়ে তৈরি শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।

১) নিউট্রোজিনা টি/ জেল অয়েলি স্ক্যাল্প অ্যান্টি-ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু (Neutrogena T/Gel Oily Scalp Anti-Dandruff Shampoo)
  • স্যালিসাইলিক এসিড ও জেন্টল মেলন এক্সট্র্যাক্ট স্ক্যাল্পের অয়েল কন্ট্রোল করে ফলে ড্যানড্রাফ কমে আসে।
  • চুলের ড্যামেজ রিপেয়ার করে।
  • চুল ভালোভাবে ক্লিন করে।
  • চুলকে ঝলমলে করে তোলে।
২) হারবাল এসেন্স বী স্ট্রং শ্যাম্পু( Herbal Essences Bee Strong Shampoo)

এই শ্যাম্পুটির নাম অনেকেই শুনে থাকবেন, এটি কিন্তু খুব জনপ্রিয় একটি শ্যাম্পু! আমার নিজেরও খুবই পছন্দের। কোঁকড়া চুলের স্ক্যাল্প অনেকসময় তেলতেলে হয়। ফলে খুশকি দেখা দেয়, স্ক্যাল্প অয়েলি থাকে আর ফ্রিজিনেস তো আছেই! পাশাপাশি আগা ফাটার সমস্যাও দেখা দেয়। চুলের গোড়া নরম হয়ে সহজেই চুল পড়া শুরু হয়। সব সমস্যার সমাধানে কাজ করে এই শ্যাম্পু!

  • চুলের ড্যামেজ রিপেয়ার করে।
  • চুলের গোড়া স্ট্রং করে, ফলে চুল পড়া কমে আসে।
  • চুলকে সিল্কি ও শাইনি করে।
  • চুলকে অনেকটাই ফ্রিজ ফ্রি এবং ম্যানেজেবল করে তোলে।
৩) এক্সপেল অ্যালোভেরা শ্যাম্পু ফর স্মুথ শাইনি হেয়ার (Xpel Aloe Vera Shampoo For Smooth & Shiny Hair)
  • মূল উপাদান হচ্ছে অ্যালোভেরা যা আপনার চুলকে করবে সিল্কি, সফট এবং ম্যানেজেবল।
  • এই শ্যাম্পু চুলের রুট এবং স্ক্যাল্পকে নারিশমেন্ট প্রোভাইড করে।
  • ড্যামেজ কমিয়ে আনে এবং চুলকে হেলদি রাখে।

শুষ্ক বা ড্রাই

প্রয়োজনের তুলনায় বেশি সিবাম প্রোডাকশন হওয়া যেমন ভালো না, ঠিক তেমনি কম সিবাম প্রোডাকশন হওয়াও ভালো না। ড্রাই হেয়ারের স্ক্যাল্প অধিকাংশ ক্ষেত্রে ড্রাই হয়। প্রোপারলি সিবাম প্রোডাকশন না হলে চুলে রাফনেস চলে আসে, চুল ময়েশ্চারাইজড হয় না। চুল পাটের আঁশের মত হয়ে যায়! এধরনের চুলের জন্য ময়েশ্চার প্রোভাইডিং শ্যাম্পু প্রয়োজন। যেমন- হারবাল এসেন্স হ্যালো হাইড্রেশন শ্যাম্পু, ট্রেসেমি বোটানিক কার্ল হাইড্রেশন শ্যাম্পু (যদি কার্লি অ্যান্ড ড্রাই হেয়ার হয়)। এছাড়াও ব্যবহার করতে পারেন-

নিউট্রোজিনা টি/ জেল শ্যাম্পু ফর ড্রাই হেয়ার (NEUTROGENA T/Gel® Shampoo for Dry Hair)

আপনার শুষ্ক চুলের পাশাপাশি যদি স্ক্যাল্পে ড্যানড্রাফের সমস্যা থাকে তবে এই শ্যাম্পুটি বেছে নিন। এতে আছে স্যালিসাইলিক এসিড ও জেন্টল মেলন এক্সট্র্যাক্ট, আরও আছে জেসমিন ফুলের নির্যাস। এই শ্যাম্পুর বৈশিষ্ট্যগুলো দেখে নিন-

  • এতে আছে স্যালিসাইলিক এসিড ও পাইরোকটোন অলিমাইন উপাদান যা স্ক্যাল্পের খুশকি নির্মূল করে।
  • এটি রিচ ল্যাথারিং এবং নন-ড্রাইং ফর্মুলায় তৈরি।
  • চুলে দুর্গন্ধ থাকলে সেটি দূর করে।
  • নিয়মিত ব্যবহারে ড্যামেজ কমিয়ে চুলে হেলদি লুক আনে।

নরমাল স্ক্যাল্প 

এই ধরনের স্ক্যাল্প ও চুল পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার! এক্ষেত্রে স্ক্যাল্পে কোনো সমস্যা থাকে না, সিবাম প্রোডাকশনও ব্যালেন্সড। তবে খুশকি, ফ্রিজিনেস কিংবা তেল চিটচিটে ভাব না থাকলেও এসকল সমস্যা যাতে না দেখা দেয় সেজন্য চুলের ধরন অনুযায়ী অবশ্যই সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। নরমাল স্ক্যাল্পের জন্য দি বডি শপ বানানা ট্রুলি নারিশিং শ্যাম্পু একটি বেস্ট চয়েজ।

দি বডি শপ বানানা ট্রুলি নারিশিং শ্যাম্পু ( The Body Shop Banana Truly Nourishing Shampoo)
  • চুলকে প্রোপার নারিশমেন্ট প্রোভাইড করার পাশাপাশি জেন্টলি ক্লিন করে।
  • এটি সিলিকন ফ্রি শ্যাম্পু।
  • ১০০% ভেজিটেরিয়ান।
  • এতে আছে বানানা পাল্প যা আপনার চুলকে ময়েশ্চারাইজড রাখবে দিনভর।

আশা করি, চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু নির্বাচন করতে আর কোনো ধরনের কনফিউশন হবে না। সুন্দর চুল পেতে স্ক্যাল্প ও চুলের ধরন অনুযায়ী সঠিক শ্যাম্পু বেছে নেওয়াটা খুবই জরুরী। অথেনটিক শ্যাম্পু কিনতে আপনারা চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত, সেখান থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। ভালো থাকুন, নিরাপদে থাকুন।

ছবি- সাজগোজ, সাটারস্টক

3 I like it
2 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...