মন ও মস্তিষ্ক থাকুক আপনার নিয়ন্ত্রণে - Shajgoj

মন ও মস্তিষ্ক থাকুক আপনার নিয়ন্ত্রণে

আমাদের মন ও মস্তিষ্কের মাঝে প্রায় সময় দ্বন্দ্ব হয়ে থাকে। প্রায়ই মস্তিষ্ক কোনো কাজ করতে চাইলে মন থেকে ঠিক মতো সাড়া পাওয়া যায় না। তাই নিজেদের এই মন এবং মস্তিষ্ক বশে রাখার একটি সর্বোচ্চ পন্থা হল মেডিটেশন। মেডিটেশন হচ্ছে কোনো একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে মনোনিবেশের মাধ্যমে মনকে শান্ত রেখে বিশেষ কিছু অর্জন করা। এর মাধ্যমে আপনি কোনো প্রকার দ্বিধা ছাড়া সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

মেডিটেশন-

  • মানসিকভাবে শক্ত করে তোলে। এটির কারণে  আপনি যেকোনো পরিস্থিতি হাসিমুখে মোকাবেলা করতে পারবেন।
  • আপনার ভেতরকার মনের শান্তি বাইরেও পরিস্থিতেও প্রতিফলিত হবে।
  • আপনার আবেগ গুলোকে বহিঃপ্রকাশে নিয়ন্ত্রণ করবে।
  • তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া দেখানো হ্রাস পাবে।
  • মনকে প্রবল মানসিক চাপ থেকে দূরে রাখার একটি কার্যকরী প্রক্রিয়া এটি। আর চাপমুক্ত থাকবেন বলে আপনার মুখে সহজে বলিরেখার ছাপ পড়বে না। আপনার ত্বক থাকবে লাবণ্যময়।

[picture]

মেডিটেশনের জন্য যা যা দরকার-

  • মেডিটেশনটির জন্য পরিবেশটি অবশ্যই শান্ত হতে হবে।
  • পরিবেশটি স্বল্প আলোর এবং মেডিটেশন মিউজিক দিয়ে উপযুক্ত করে তুলতে হবে।
  • বসার আসন/ জায়গাটি অবশ্যই আরামদায়ক হতে হবে।
  • মেডিটেশন মেঝেতে / চেয়ার বসেও হতে পারে।
  • আরামদায়ক অবস্থানে স্বাভাবিকভাবে পাদুটো আড়াআড়িভাবে বসে এবং হাতদুটি আঁকড়ে ধরে বসুন।
  • এবার চোখ বন্ধ করুন। আপনি যখন চোখ বন্ধ করবেন তখন আপনার মনে অনেক চিন্তা ঘোরাঘুরি করবে। তবে আপনি কোনো চিন্তা / প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করবেন না; বরং বিরক্ত না হয়ে চেষ্টা করবেন আপনার স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাসের উপর মনোনিবেশ করতে।
  • শুধুমাত্র স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাসের উপর মনোনিবেশ করতে পারলে আপনি একটা সময় পুরোপুরি চিন্তাহীন হয়ে যাবেন। এই চিন্তাহীন অবস্থাকে বলা হয় নির্মলস্থিতি। আর এটাই হচ্ছে মেডিটেটর স্টেইট।
  • এই স্টেইটে আপনি সৃষ্টিসংক্রান্ত শক্তি লাভ করবেন।
  • এভাবে যতবেশি মেডিটেশন করবেন ততবেশি আপনি নিজের মন ও মস্তিষ্কেরর উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারবেন।

বিঃ দ্রঃ- এই মনস্থির করে মেডিটেশন করুন যে, আপনিই পারবেন নিজেকে জয় করতে।

লিখেছেনঃ শর্মিষ্ঠা দেব

ছবিঃ হাফিংটনপোস্ট.কম

2 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...