ইন্সট্যান্ট পারফেক্ট লুক পেতে বিবি পাউডারের ব্যবহার সম্পর্কে জানেন তো?

ইন্সট্যান্ট পারফেক্ট লুক পেতে বিবি পাউডারের ব্যবহার সম্পর্কে জানেন তো?

3 (2)

একটু মনে করে দেখুন তো ছোট বেলায় সাজগোজ বলতে আমরা কিন্তু মুখের জন্যে একটা ভালো ক্রিম, পাউডার, চুলের জন্যে তেল এবং সাজের জন্য লিপস্টিককেই বুঝতাম! বড় হতে হতে আমরা পরিচিত হয়েছি নানা রকম প্রসাধনীর সাথে। জেনেছি নানা ব্র্যান্ড নিয়ে। স্কিন টাইপ, স্কিন টোন আরও কতকিছু সম্পর্কে এখন আমরা জানি, তাই না? অনেকেই সুন্দর করে সেজেগুজে পরিপাটি থাকতে পছন্দ করে, আবার অনেকেই জাস্ট কোনরকম নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পারলেই খুশি!

তবে সাজগোজ করতে পছন্দ করি বা নাই করি, ডেইলি ইউজের জন্যে একটি পাউডার কিন্তু আমাদের সবার কাছেই থাকে। শখের চেয়ে একে প্রয়োজনই বলা চলে। আমরা অনেকেই বাইরে যাওয়ার আগে খুব হেভি কিছু অ্যাপ্লাই করতে চাই না। আবার একটু কিছু না দিলেও যেন ফেইসটাকে খুবই মলিন দেখায়। এই সমস্যার সমাধান হতে পারে বিবি পাউডার। আজকে আমরা জেনে নিবো, ডেইলি ইন্সট্যান্ট পারফেক্ট লুক পেতে বিবি পাউডারের ব্যবহার নিয়ে।

বিবি পাউডার কি? 

বিবি পাউডার অনেকটা হালকা ধরণের, নরমাল পাউডারের মতই এবং ঝরঝরে হয়ে থাকে। এটি সহজেই হাত দিয়ে অথবা পাউডার ব্রাশ দিয়ে ইউজ করা যায়। ক্রিম জাতীয় কোন প্রসাধনী ব্যবহার করে এই পাউডার দিয়ে সেট করে নিতে পারেন। পাশাপাশি মুখের অতিরিক্ত তেলতেলে ভাব শুষে নেয় এবং ত্বকে একটা ম্যাট ফিনিশিং এনে দেয়।

বিবি পাউডার ব্যবহারের সুবিধা

আপনার স্কিন টাইপ যেমনই হোক না কেন, কোন চিন্তা ছাড়াই ইউজ করতে পারবেন বিবি পাউডার। তবে বিশেষ করে তৈলাক্ত ত্বকের জন্যে এটি হতে পারে নিঃসন্দেহে একটি বেষ্ট চয়েস। এই পাউডারটি আমাদের স্কিনে দারুণ কিছু কাজ করে। চলুন জেনে নেই সেগুলো-

১) ইন্সট্যান্ট ত্বকের অয়েলি ভাব দূর করে

মেকআপ লুক পারফেক্টভাবে ক্রিয়েট করার পরও মাঝে মাঝে একটু টাচ আপ লাগেই। বিশেষ করে যাদের অয়েলি স্কিন,তাদের মুখ দ্রুত ঘামে। এক্ষত্রে হালকা একটু বিবি পাউডার দিয়ে নিলেই লুকটি সেট হয়ে যাবে এবং মেকআপ লং লাস্টিং হবে।

২) সান প্রোটেকশন হিসেবে কাজ করে

বিবি পাউডারে কিছু ইনগ্রেডিয়েন্টস থাকে যা বিশেষ করে সূর্যরশ্মি থেকে আমাদের ত্বককে সুরক্ষা দেয়। যেমন, টাইটানিয়াম ডাইঅক্সাইড, জিংক অক্সাইড ইত্যাদি। স্কিন কেয়ারে সানস্ক্রিন তো মাস্ট। পাশাপাশি এক্সট্রা সুরক্ষা পেতে ব্যবহার করতে পারেন বিবি পাউডার।

৩) ত্বকের মলিনতা কমিয়ে আনে এবং দেয় গ্লোয়িং লুক 

যাদের স্কিন নিষ্প্রাণ, ফ্যাকাসে বা মলিন দেখায় তাদের জন্যে বিবি পাউডার একটি বেস্ট সল্যুশন। ঝটপট কোথাও বের হচ্ছেন বা হুটহাট ছবি তুলতে যেয়ে স্কিনটাকে মলিন দেখাচ্ছে, এমন কিন্তু প্রায়ই হয়, তাই না? বিবি পাউডার ত্বকের এই নিষ্প্রাণভাব মুহূর্তেই কমিয়ে আনে এবং চেহারায় একটা উজ্জ্বল আভা এনে দেয়।

৪) কাজ করে লুজ পাউডারের মতো

সাধারণত মেকআপ করার পর তা পারফেক্ট ভাবে সেট করতে আমরা লুজ পাউডার ব্যবহার করে থাকি। অনেক সময় হাতের কাছে লুজ পাউডার বা কমপ্যাক্ট পাউডার কোনটাই থাকে না। বিবি পাউডার ইউজ করে এক্ষেত্রে নিশ্চিন্তে থাকতে পারবেন। যদিও বিবি পাউডার লুজ পাউডারের মত এত বেশি লং লাস্টিং হবে না, হাই কভারেজ দিবে না, তারপরও প্রয়োজনে এটি আপনার বন্ধু হবে ঠিকই। মানে, কাজ চালিয়ে নিতে পারবেন আর কি!

কেনার আগে এবং ব্যবহারের সময় খেয়াল রাখবেন কিছু বিষয়

  • মার্কেটে অনেক ব্র্যান্ড-এর নানা শেইডের বিবি পাউডার পাওয়া যায়। চেষ্টা করবেন আপনার স্কিন টোনের সাথে মিলিয়ে প্রোডাক্টসটি কিনতে।
  • বেস্ট রেজাল্ট পাওয়ার জন্যে ব্রাশ ব্যবহার না করে বেকিং করতে বিউটি ব্লেন্ডার বা স্পঞ্জ ব্যবহার করুন। আগে বিউটি ব্লেন্ডার বা স্পঞ্জটি ভালো করে পানিতে ভিজিয়ে নিয়ে, চিপে চিপে পানি বের করে নিন। এরপর হালকা ভেজা অবস্থায় বিউটি ব্লেন্ডার বা স্পঞ্জ ব্যবহার করে বিবি পাউডার লাগিয়ে নিন।
  • ইনগ্রেডিয়েন্স লিস্ট চেক করে নিবেন, টাকা বাঁচাতে যেয়ে ব্র্যান্ড-এর সাথে কম্প্রোমাইজ করবেন না। অবশ্যই প্রোডাক্টের কোয়ালিটি নিশ্চিত হয়ে নিবেন।
  • যদি ফেইস প্রাইমার থাকে, তবে অবশ্যই তা আগে অ্যাপ্লাই করে নিবেন।
  • বিবি পাউডার মুখে লাগিয়ে সেটিং স্প্রে দিয়ে সেট করে নিতে পারেন। এতে লং লাস্টিং হবে এবং মুখ ঘেমে যাওয়ার চান্স থাকবে না!

স্কিন কেয়ার বা মেকআপ রিলেটেড অনেক ধরণের প্রোডাক্টসের সাথেই আমরা পরিচিত। কিন্তু বিবি পাউডারের ব্যবহার নিয়ে আমরা অনেকেই জানি না। আশা করছি আজকের টপিকের মাধ্যমে বিবি পাউডার নিয়ে আপনাদের কিছু বেসিক ধারণা দিতে পেরেছি। যারা খুব লাইট মেকআপ প্রেফার করেন বা হালকা কভারেজ চাচ্ছেন, তাদের জন্যে নিঃসন্দেহে এটি হতে পারে একটি লাইফ সেভার প্রোডাক্ট। অবশ্যই অথেনটিক শপ থেকে প্রোডাক্ট কিনবেন। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন!

ছবি- সাজগোজ

12 I like it
2 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...