শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমিয়ে আনতে ৫টি দারুণ হ্যাকস!

শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমিয়ে আনতে ৫টি দারুণ হ্যাকস!

1 (74)

গতকালই তো শাওয়ার নিলাম! আজকেই চুল এমন আঠালো হয়ে গেলো কীভাবে!” এই শীতে চুলে হাত দিতেই আপনারও কি এমন লেগেছে কখনো? চুলের তৈলাক্ততা, হুটহাট ফ্রিজিনেস বা আঠালোভাব এগুলো তো আমাদের প্রত্যেকের চুলেরই কমন সমস্যা! কিন্তু শীত এলেই তা যেন একদম অতি মাত্রায় বেড়ে যায়, তাই না? সল্যুশন হিসেবে সব সময় হয়তো শাওয়ার নেওয়া বা শ্যাম্পু করা সম্ভব হয় না। আবার চুল ঠিকঠাক না থাকলে হুট করে কোথাও বের হতে গেলেও পরতে হয় বিপাকে। এমন সময় শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমানোর হ্যাকস জানা থাকলে কিন্তু মন্দ হয় না! আমাদের লাইফস্টাইলকে একটু সহজ করতে এই হ্যাকসগুলো কিন্তু কাজ করতে পারে ম্যাজিকের মতো! কী সেই হ্যাকসগুলো? চলুন সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।

চুলের এই স্টিকিনেস বা অয়েলিভাব দেখা দেয় কেন?

শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমানোর হ্যাকস জানার আগে চলুন জেনে নেওয়া যাক, চুল কী কী কারণে অয়েলি হতে পারে। সমস্যা শুরু হওয়ার আগেই যদি এর কারণ সম্পর্কে জানা থাকে তাহলে সমস্যার সমাধান কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি করা সম্ভব! সাধারণত নিচে উল্লেখিত কারণগুলোর জন্য এই হেয়ার প্রবলেমটি হতে পারে-

  • প্রয়োজনের অতিরিক্ত শ্যাম্পু করলে
  • অতিরিক্ত হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট চুলে ব্যবহার করলে
  • নিয়মিত চুল স্ট্রেইট ও ব্লো ড্রাই করলে
  • আবহাওয়ার প্রভাবে
  • কন্ডিশনার সঠিক নিয়মে ব্যবহার না করলে
  • জেনেটিকাল বা বংশগত কারণে

শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমাবেন কীভাবে?

১) ঝটপট সমাধান দিতে পাউডার বা বেবি পাউডার এর ব্যবহার

তেল চিটচিটে চুল চটজলদি ঝরঝরে ও সিল্কি করার সহজ একটি সমাধান হতে পারে পাউডার বা বেবি পাউডার এর ব্যবহার। এর জন্য হাতের তালুতে অল্প পরিমাণে পাউডার ঢেলে নিয়ে দুই হাতের তালুতে ভালোভাবে মেখে নিন। এবার দুই হাত দিয়ে চুলের উপরের অংশ অর্থাৎ মাথার তালুর অংশে এপাশ ওপাশ করে লাগিয়ে নিন। কিছুক্ষণের মাঝেই দেখবেন চুলের তেলতেলে ভাব অনেকটাই কমে এসেছে! চাইলে আগের দিন রাতে ঘুমানোর আগেও এই ট্রিকসটি অ্যাপ্লাই করে নিতে পারেন। এতে চুলে কোনো রকম সাদাটেভাব থাকবে না।

২) অয়েল ফ্রি ওয়েট ওয়াইপস এবং হেয়ার ড্রাইয়ার

ফেসিয়াল ওয়াইপস এর ব্যবহার তো আমরা অনেকেই জানি। কিন্তু চুলের অয়েলিনেস ঝটপট কমিয়ে আনতে অয়েল ফ্রি ওয়েট ওয়াইপস এর ব্যবহার আমরা অনেকেই জানি না! এর জন্য একটি অয়েল ফ্রি ওয়েট ওয়াইপস দিয়ে চুলের সামনের পার্টের যে অংশগুলো অয়েলি হয়ে আছে, সেখানে বিলি কেটে কেটে মুছে নিন। মোছা হয়ে গেলে চুল ভেজা ভেজা অবস্থায় থাকবে কিছু সময়ের জন্য। এই অবস্থায় হেয়ার ড্রাইয়ার ব্যবহার করে চুল শুকিয়ে নিন। ব্যস! হয়ে গেলো ঝটপট সমাধান।

৩) চূলের সামনের পার্ট সেকশন করে ওয়াশ করে নেওয়া 

চুলের অয়েলিনেস ঝটপট কমিয়ে আনতে আমার সবচেয়ে পছন্দের হ্যাকসটি হলো, চুলের সামনের পার্ট সেকশন করে নিয়ে ওই পার্টটুকু ওয়াশ করে নেওয়া। আমাদের অনেকের চুলের সামনের অংশে নানা রকম হেয়ার কাট দেয়া থাকে। কারো চুলে ফ্রন্ট লেয়ার বা কারো চুলে ব্যাংগস কাট দেয়া থাকে। তাড়াহুড়ায় যাদের প্রোপারলি শাওয়ার নেওয়া হয় না, তাদের জন্য এটি হতে পারে একটি লাইফ সেভিং হ্যাকস।

এর জন্য চুলের সামনের হেয়ার কাটের অংশটি প্রথমেই আলাদা করে নিন। আলাদা করা অংশটুকু হ্যান্ড শাওয়ার দিয়ে ভিজিয়ে তাতে একদম অল্প পরিমাণে শ্যাম্পু দিয়ে ওয়াশ করে নিন। এবার হেয়ার ড্রাইয়ার দিয়ে চুল শুকিয়ে নিন! দেখবেন নিমিষেই আপনার চুলের সামনের পার্টের অয়েলিনেস কমে গেছে। এছাড়াও চুলে দারুণ ভলিউম আসে যা মুহূর্তেই আপনার লুকে চেঞ্জ আনবে।

৪) ড্যাব ড্যাব করে চুলে ব্লটিং পেপার ইউজ করা 

ফেইসের অয়েলিনেস কমিয়ে এনে ম্যাট লুক পেতে আমরা অনেকেই ব্লটিং পেপার এর ব্যবহার নিয়ে জানি! কিন্তু ফেইসের পাশাপাশি চুলের অয়েলিনেস কমাতেও যে এটি ইফেক্টিভ হতে পারে, এভাবে আমরা অনেকেই ভেবে দেখিনি হয়তো। ব্লটিং পেপার এর কাজ-ই যেহেতু অয়েল শুষে নিয়ে তেলের পরিমাণ কমিয়ে আনা, তাই এটি ফেইসের পাশাপাশি চুলের অয়েলিনেস কমাতেও দারুণ কার্যকরী। অয়েল ফ্রি ওয়েট ওয়াইপস এর মত এটিও চুলে সেকশন করে করে পার্ট বাই পার্ট ড্যাব করে নিন। কয়েকবার ড্যাব করে নিলেই দেখতে পাবেন, পেপারে চুলের অয়েল উঠে এসেছে।

৫) ফেসিয়াল টিস্যু পেপারের ব্যবহার

চুলের অয়েলিনেস কমাতে ব্লটিং পেপার খুব ভালো কাজ করলেও আমাদের অনেকের হাতের কাছেই এটি থাকে না! কিন্তু এর পরিবর্তে আমরা খুব সহজেই পাতলা টিস্যু পেপার ইউজ করতে পারি। রেগুলার একটি ফেসিয়াল টিস্যু পেপার নিয়ে সেটাকে দুই ভাগ করে নিন। এরপর ব্লটিং পেপার এর মতোই ঠিক একইভাবে চুলে সেকশন করে করে পার্ট বাই পার্ট ড্যাব করে নিন। মুহূর্তেই দেখতে পাবেন দারুণ ডিফারেন্স!

চুলের সমস্যা তো সারা বছরই থাকে। কিন্তু এই শীতে এর মাত্রা যেন বেড়ে যায় বহুগুণ! আশা করছি, শাওয়ার ছাড়াই ঝটপট চুলের অয়েলিনেস কমানোর এই হ্যাকসগুলো আপনাদের লাইফকে কিছুটা হলেও সহজ করে তুলবে। তবে যেকোনো হ্যাকস তাৎক্ষণিক সমস্যার সমাধান দিলেও সময় করে নিজের ত্বক এবং চুলের যত্ন নেওয়া কিন্তু মাস্ট। সেলফ কেয়ারের ব্যাপারে অবহেলা করা যাবে না! লেখাটি ভালো লাগলে এবং এমন আরও টপিকস নিয়ে জানতে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না! অথেনটিক প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত, সেখান থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন।

ছবি- সাজগোজ

 

4 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...