চুলের ফ্রিজিনেস এবং রুক্ষতা দূর করতে ৫টি হেয়ার মাস্ক

চুলের ফ্রিজিনেস এবং রুক্ষতা দূর করতে ৫টি হেয়ার মাস্ক

1 (1)

ঘুম থেকে উঠে চুলে হাত দিয়েই মনটা খারাপ হয়ে গেল? একটু বাহিরে বের হলেই বা একদিন চুলে শ্যাম্পু না করলেই চুল আর চুলের অবস্থায় থাকেনা! বাহিরের ধুলাবালি আর আবহাওয়া প্রভাবে সহজেই চুল তার মলিনতা হারায়। এছাড়াও ঔষধ, মানসিক চাপ, এন্ড্রোজেনের মাত্রা বৃদ্ধি, পল্যুশন আমাদের চুলকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। আমরা প্রতিটি মানুষ যেমন একজন অন্যজন থেকে আলাদা তেমনি চুল বুঝে একেকজনের ট্রিটমেন্টের ধরণও আলাদা। চুলের যত্নে তেল, শ্যাম্পু, কন্ডিশনার ব্যবহার করলেই কিন্তু যথেষ্ট নয়। পাশাপাশি নিয়মিত একটি হেয়ার মাস্ক হেয়ার কেয়ারে রাখা মাস্ট। হেয়ার মাস্ক ব্যবহারের ফলে চুলের গোড়া হাইড্রেটেড থাকে, চুল উজ্জ্বল ও ঘন হয়। তবে হেয়ার মাস্ক কেনার আগে তাড়াহুড়া না করে প্রথমেই বুঝে নিতে হবে আপনার চুলের প্রয়োজন অনুযায়ী কোন হেয়ার মাস্কটি ব্যবহার করতে হবে। আপনার চুল যদি ড্রাই বা শুষ্ক হয় তবে চেষ্টা করবেন নারিশিং মাস্ক ব্যবহার করতে। আর যদি স্ক্যাল্প অয়েলি হয় তবে আপনার প্রয়োজন ক্লে বেসড মাস্ক। আমার আজকের লিখাটি মূলত তাদের জন্যেই যারা বুঝে উঠতে পারছেন না চুলের যত্নে কোন হেয়ার মাস্কটি বেছে নিবেন। এখানে আমি কথা বলব ৫টি হেয়ার মাস্ক নিয়ে।

চুলের ড্যামেজ কমাতে হেয়ার মাস্ক এর উপকারিতা কী?

চুলের যত্নে যেকোন প্রোডাক্ট বাছাই করার আগে আমাদের জেনে নেয়া উচিৎ এর উপকারিতাগুলো নিয়ে । হেয়ার মাস্ক আমাদের চুলের নানা রকম সমস্যা সমাধানে কাজ করে। যেমন-

(১) পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন সরবরাহ করে।

(২) আমাদের চুলকে কোমল করে এবং সাইনি লুক দেয়। যাদের চুলের টেক্সচারে সমস্যা থাকে, তা রিপেয়ারে সাহায্য করে।

(৩) প্রতিদিন নানা কারণে চুল ড্যামেজ হয়। যেমন- বাহিরের ধুলাবালি ময়লা চুলকে নিষ্প্রাণ করে দেয়। হেয়ার মাস্ক ব্যবহারে এই সমস্যাগুলোর সমাধান হয়।

(৪) মাথার স্ক্যাল্প এর বিভিন্ন সমস্যা, যেমন- খুশকি এবং ইচিং জনিত সমস্যার সমাধান করে।

(৫) চুলকে স্মুথ এবং সফট করে তোলে।

(১) লেডর হেয়ার অ্যাম্পুল (Lador Perfect Hair Fill up Hair Ampoule)

প্রথমেই আমি কথা বলব, লেডর হেয়ার অ্যাম্পুল নিয়ে। চুলের রুক্ষতা কমাতে, চুলের আগা ফেটে যাওয়ার মতো সমস্যা কমাতে, চুলকে ময়েশ্চারাইজড রাখতে সাহায্য করে এই হেয়ার অ্যাম্পুল। আর এতে মেথিলাপারাবেন, প্রপালপারাবেন থাকার কারণে চুলের গুনাগুণ বজায় থাকে। এছাড়াও এই অ্যাম্পুলে রয়েছে খুব সুন্দর একটা মাইল্ড স্মেল, যা খুবই রিফ্রেশিং!

লেডর হেয়ার অ্যাম্পুল কেন ব্যবহার করবো?

  • আমরা অনেকেই এখন চুলে কালার করে থাকি। চুলে কালার করার কারণে এবং অতিরিক্ত হিট ব্যবহারের কারণে চুল অনেক রুক্ষ হয়ে যায়। এই অ্যাম্পুলটি ব্যবহার করার ফলে আমাদের চুল হারানো সতেজতা ফিরে পাবে সহজেই।
  • চুলে প্রোটিনের ঘাটতি পূরণ করতে হেল্প করবে।
  • এটি চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।
  • চুলকে মজবুত করতে সাহায্য করে।
  • চুলের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে থাকে।
  • চুলে চমৎকার টেক্সচার দিয়ে থাকে।

(২) মামাআর্থ আরগান হেয়ার মাস্ক (Mamaearth argan hair mask with argan, avocado oil and milk protein for frizz-free & stronger hair)

এতদিন  তো ঠিকঠাকই ছিল, হুট করেই চুল যেন একটু বেশিই ড্রাই এবং খড়খড়ে মনে হচ্ছে? শীতকালে এটি আমাদের সবার জন্যেই একটি কমন সমস্যা। অনেকের আবার সারাবছরই এমন সমস্যা লেগেই থাকে। মামাআর্থ আরগান হেয়ার মাস্কটি মূলত চুলের ফ্রিজিনেস এর সল্যুশন হিসেবে কাজ করে। যাদের চুল অনেক রাফ তাদের জন্যে এটি হতে পারে বেষ্ট একটি অপশন।

মামাআর্থ আরগান হেয়ার মাস্ক কেন ব্যবহার করবো?

  • চুলের ফ্রিজিনেস অনেকটাই কমিয়ে আনে।
  • তেল চিটচিটে ভাব দুর করে।
  • যাদের চুলে আগা ফাটার মত সমস্যা আছে তাদের জন্যে এটি দারুণ হেল্পফুল হবে।
  • চুলে কালার করা বা নানা ধরণের স্টাইল করার ফলে যাদের চুল অনেক বেশি ড্যামেজ হয়ে গেছে, তাদের চুল রিপ্যায়ারে কাজ করবে।
  • এতে থাকা রোজমেরি অয়েল মাথার ত্বকের আর্দ্রতা পুনরায় ফিরিয়ে আনে।
  • চুলের গ্রোথ বাড়ায়।
  • অ্যাভোকাডো অয়েল চুলকে ভিতর থেকে শক্তিশালী করে চুল পড়া কমিয়ে আনে।

(৩) পাম হেয়ার মাস্ক (Plum Olive & Macadamia Mega Moisturizing Hair Mask)

এই হেয়ার মাস্কটি অনেকেরই খুবই পছন্দের। এতে থাকা অলিভ অয়েল, ম্যাকডামিয়া তেল, শিয়া মাখন চুলকে ডিপলি ক্লিন করার পাশাপাশি, চুলের উজ্জ্বলতা এবং সফটনেস ধরে রাখে।

পাম হেয়ার মাস্ক কেন ব্যবহার করবো?

  • চুলকে ভিতর থেকে কন্ডিশনিং করে
  • এতে থাকা প্রো-ভিটামিন বি5 চুলকে বাইরের ধুলাবালি এবং ইউভি থেকে সুরক্ষা দেয়।

এই সিলিকনমুক্ত হেয়ার মাস্ক ক্ষতিগ্রস্থ চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে, নরম করে এবং পুষ্টি যোগাতে সহায়তা করে।

  • এতে থাকা সালফেটস চুলকে প্রপারলি ক্লিন করতে সহায়তা করে।
  • এতে রয়েছে, সিলিকনস যা চুলকে সাইনি করে তুলে।
  • এটি একটি ডীপলি হাইড্রেটিং হেয়ার মাস্ক, যা চুলের রুক্ষতা এবং ফ্রিজিনেস দূর করে।
  • এই মাস্কটি ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি থেকে চুলকে প্রটেক্ট করে।

(৪) প্যানটিন প্রো-ভি স্মুথ এবং স্লিক মাস্ক (Pantene Pro-V Smooth & Sleek Mask)

এই হেয়ার মাস্কটির সবচেয়ে ভাল দিক হলো, এটি খুব দ্রুত চুলে কাজ করে। স্পেশালি চুলের ফ্রিজিনেস কমাতে এবং চুলকে স্মুথ করতে কাজ করে।

প্যানটিন প্রো-ভি স্মুথ এবং স্লিক মাস্ক কেন ব্যবহার করবো?

  • চুলের ফ্রিজিনেস কন্ট্রোল করে লম্বা সময় ধরে।
  • চটজলদি চুলকে শাইন এবং সফট করতে সাহায্য করে।
  • চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।
  • তেল চিটচিটে ভাব দূর করে।
  • নানা রকম স্টাইল করার ফলে চুলের যে ক্ষতি হয় তা থেকে চুল রক্ষা করে।

(৫) এক্সপেল আরগান অয়েল হাইড্রেটিং হেয়ার মাস্ক (Xpel Argan Oil Hydrating Hair Mask)

সবশেষে শেয়ার করব, এক্সপেলের আরগান অয়েল হাইড্রেটিং হেয়ার মাস্কটি নিয়ে। এই মাস্কটি একবার ব্যবহার করলে আপনি সহজেই অন্য কোন ব্র্যান্ড এ সুইচ করতে চাবেন না। চুল রুক্ষ হওয়ার পাশাপাশি যাদের স্ক্যাল্প অনেক বেশি ড্রাই হয়ে থাকে তাদের জন্যে এটি হতে পারে বেস্ট চয়েজ।

এক্সপেল আরগান অয়েল হাইড্রেটিং হেয়ার মাস্ক কেন ব্যবহার করবো?

  • এই হেয়ার মাস্কটি চুলের ন্যাচারাল ট্রিটমেন্ট হিসেবে কাজ করে। বিশেষ করে ড্রাই এবং ড্যামেজড হেয়ারের জন্যে এটি দারুণ কার্যকরী।
  • চুলে চমৎকার টেক্সচার দিয়ে থাকে।
  • হেলদি চুল নিশ্চিত করে।
  • সব ধরনের হেয়ারে সহজেই মানিয়ে যাবে।

সারাদিনের শত ব্যস্ততায় নিজের চুল এবং স্কিনের যত্ন নেয়ার সময় সুযোগ তেমন একটা করা হয়ে উঠেনা। যারা বাসায় মাস্ক বা প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন না, তাদের জন্যে এই হেয়ার মাস্কগুলো ব্যবহার করা মাস্ট। যাদের মনে এই হেয়ার মাস্ক গুলো নিয়ে নানা প্রশ্ন ছিল, আশা করছি এখন খুব সহজেই বুঝতে পারবেন কোন মাস্কটি আপনার জন্যে ভাল হবে।

স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের জন্য অথেনটিক প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে আপনারা সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ ভিজিট করতে পারেন, যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

23 I like it
8 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...