খুশকিমুক্ত চুল পেতে মেহেদির ৪টি প্যাক!

মেহেদির ৪টি প্যাক চুলকে করবে খুশকিমুক্ত!

Untitled-1

চুল স্ট্রেইট কিংবা কোঁকড়ানো- যাই হোক না কেন খুশকির হাত থেকে রক্ষা নেই! আমরা অনেকেই জানি যে মেহেদির প্যাক চুলের গোড়া মজবুত করার পাশাপাশি খুশকি দূর করতে কার্যকরী ভুমিকা রাখে। মেহেদির ৪টি প্যাক সম্পর্কে আজ আপনাদের জানাবো! চলুন তবে জেনে নেই খুশকি কী, খুশকি কেন হয় এবং কীভাবে মেহেদির প্যাক ব্যবহার করে খুশকিমুক্ত চুল পাবেন।

খুশকি আসলে কী? 

মাথার তালুর সাদা বর্ণের মৃত চামড়াকে খুশকি বলে। মাথার তালু শুষ্ক হলে সাধারণত খুশকি দেখা যায়। এছাড়া সেবোরহেইক ডারমাটাইটিস (Seborrheic Dermatitis) একজিমা, সোরিয়াসিস (Psoriasis) বা ম্যালাসেজিয়া (Malassezia) নামক ছত্রাকের আক্রমণেও খুশকি হতে পারে। যে কোনো বয়সের মানুষের খুশকি দেখা দিতে পারে। ড্রাই হোয়াইট ফ্লেকস পিঠে, ঘাড়ে পড়তে দেখা যায়। আর অয়েলি ফ্লেকস মাথার তালুতে আটকে থাকে।

চুলে খুশকি হওয়ার কিছু কারণ

১) আবহাওয়ার পরিবর্তন

২) হরমোনাল চেঞ্জ

৩) নিয়মিত চুল পরিষ্কার না করা

৪) ভেজা অবস্থায় চুল নিয়মিত বাধা

৫) হেয়ার প্রোডাক্টের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ইত্যাদি।

মেহেদিতে হবে খুশকিমুক্ত চুল

চুল পড়া কিংবা চুলকে সিল্কি করতে অনেকেই চুলে মেহেদি ব্যবহার করে থাকে। আবার চুলে ন্যাচারাল একটা কালার আনতে মেহেদি ব্যবহার করে থাকেন অনেকে। এই মেহেদি দূর করে দিতে পারবে আপনার চিরশত্রু খুশকিকে! সপ্তাহে একবার মেহেদির প্যাক ব্যবহার করুন। তবে মেহেদির এই প্যাক তেল দেওয়া চুলে ভালো কাজ করবে না। তাই তেল ছাড়া পরিষ্কার চুলে এই প্যাকগুলো ব্যবহার করুন।

মেহেদির উপকারিতা

চুল সুন্দর ঝলমল করতে মেহেদির জুড়ি নেই। সুন্দর এবং ঝলমলে করা ছাড়াও মেহেদি চুলের আরো কিছু উপকার করে থাকে। যেমন:

১) মেহেদির অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান মাথার তালু বা স্ক্যাল্প সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

২) চুলের আগা ফাটা, চুলের রুক্ষতা দূর করে থাকে।

৩) নতুন চুল গজাতেও মেহেদির জুড়ি নেই।

৪) মেহেদি চুলের প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে।

আসুন, এক নজরে দেখে নেওয়া যাক খুশকি দূর করার জন্য মেহেদির ৪টি প্যাক কী কী-

১. মেহেদি ও লেবুর প্যাক

যা যা লাগবে

  • ৪ টেবিল চামচ মেহেদি পাতার গুঁড়ো
  • লেবুর রস
  • টকদই পরিমাণমতো

যেভাবে তৈরি করবেন

১) মেহেদির গুঁড়োর সাথে লেবুর রস মিশিয়ে নিন।

২) এরপর এতে টকদই দিয়ে দিন।

৩) মেহেদি, লেবুর রস এবং টকদই একসাথে ভালো করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন।

৪) মেহেদি, টকদইয়ের মিশ্রণটি চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ভালো করে লাগিয়ে নিন। এই প্যাকটি চুলে ৩০ মিনিট রেখে দিন।

৫) ৩০ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন। শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

২. মেহেদি, মেথি এবং অলিভ অয়েল

যা যা লাগবে

  • ৪ টেবিল চামচ হেনা পাউডার
  • ১ টেবিল চামচ মেথি পেস্ট
  • ১ চা চামচ অলিভ অয়েল

যেভাবে তৈরি করবেন

১) একটি কাঁচের পাত্রে মেহেদি গুঁড়ো, মেথি পেস্ট এবং অলিভ অয়েল একসাথে মিশিয়ে রাখুন।

২) এই মিশ্রণটি ১২ ঘন্টা কিংবা সারারাত প্যাকটি রেখে দিন।

৩) পরেরদিন সকালে প্যাকটি চুলে ব্যবহার করুন। প্যাকটি চুলে ২ থেকে ৩ ঘন্টা রাখুন।

৪) তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

৩. খুশকিমুক্ত চুল পেতে মেহেদি এবং ডিম

যা যা লাগবে

  • ৩ টেবিল চামচ মেহেদির গুঁড়ো
  • পানি
  • ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল
  • ২ টেবিল চামচ ডিমের সাদা অংশ

যেভাবে প্যাক তৈরি করবেন

১) একটি পাত্রে মেহেদির গুঁড়ো, ডিমের সাদা অংশ, অলিভ অয়েল এবং পরিমাণমতো পানি একসাথে মিশিয়ে নিন।

২) মিশ্রণটি চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ভালোভাবে লাগিয়ে নিন।

৩) পেস্টটি মাথায় লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন।

৪) ৩০ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু করুন এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

 

৪. মেহেদি ও সরিষা তেল 

যা যা লাগবে

  • ২৫০ মিলি সরিষা তেল
  • মেহেদি পাতা
  • এক চা চামচ সরিষা

যেভাবে তৈরি করবেন

১) একটি পাত্রে সরিষা তেল নিয়ে সেটি গরম করতে দিন। তেল কিছুটা গরম হয়ে এলে চুলা বন্ধ করে দিন।

২) গরম তেলের মধ্যে মেথি এবং মেহেদি পাতা দিয়ে দিন। এটি সারা রাত রেখে দিন। মেহেদি পাতার রং চেঞ্জ হয়ে এলে বুঝতে পারবেন মেহেদি পাতার রস তেল শুষে নিয়েছে।

৩) পরের দিন একটি বোতল বা কনটেইনারে তেলটি ছেকে নিন।

৪) এই তেলটি আলতোভাবে সম্পূর্ণ চুলে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন।

৫) এক ঘন্টার পর চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন। শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

এই তেলটি আপনি সংরক্ষণ করতে পারবেন অনেকদিন।

মেহেদির এই প্যাকগুলো নিয়মিত ব্যবহারে চুলের খুশকি দূর করার পাশাপাশি চুলকে করবে সিল্কি, ঝলমলে। এছাড়া আপনি যদি চুলের যত্নে অথেনটিক প্রোডাক্ট খুঁজে থাকেন, তবে সাজগোজ হতে পারে আপনার জন্য ভরসার জায়গা। অনলাইনে কিনতে চাইলে ভিজিট করুন শপ.সাজগোজ.কম। সাজগোজের ৪টি শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার, উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) ও সীমান্ত সম্ভার থেকেও বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি।

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ, shopify

13 I like it
2 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...