হেয়ার গ্রোথ সিক্রেট | ৬টি উপাদানে ঘরোয়াভাবেই চুল হোক স্বাস্থ্যজ্জ্বল ও লম্বা! - Shajgoj
[agg-ad id="76677" align="center"]

হেয়ার গ্রোথ সিক্রেট | ৬টি উপাদানে ঘরোয়াভাবেই চুল হোক স্বাস্থ্যজ্জ্বল ও লম্বা!

hair-care

কয়েকমাস আগে পার্লার থেকে হেয়ার কাট করতে যেয়ে চুল অনেকটা ছোট হয়ে গেলো। স্টাইল করতে গেলে মানানসই হেয়ার কাটের দরকার আছে কিন্তু মনটা বেশ খারাপ লাগছিলো। কত কষ্ট করে চুল বড় করলাম, যত্ন নিলাম! শুরু করলাম রিসার্চ আর এক্সপেরিমেন্ট, কিভাবে চুল তাড়াতাড়ি বড় করা যায়। স্বাস্থ্যজ্জ্বল লম্বা চুল পেতে আমরা কতকিছুই না ট্রাই করি। সহজলভ্য কিছু প্রাকৃতিক আর অরগানিক উপাদান চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে দারুণ ভূমিকা রাখে, সেটা জানা আছে কি? রেগুলার হেয়ার কেয়ারের পাশাপাশি চুলের যত্নে ব্যবহার করতে পারেন সেই ৬টি উপাদান। চলুন তাহলে জেনে নেই হেয়ার গ্রোথ সিক্রেট, কোন কোন উপাদানগুলো চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে!

হেয়ার গ্রোথ সিক্রেট

প্রাকৃতিক উপাদানের উপর আমাদের সবারই ভরসা আছে, কারণ এগুলোর কোনো সাইড ইফেক্ট থাকে না। শ্যাম্পু, কন্ডিশনার ছাড়া চুলের যত্নে আমরা অনেকেই কেমিক্যাল জাতীয় প্রোডাক্টগুলো এড়িয়ে চলি। আজ আমরা এমন কিছু উপাদান সম্পর্কে জানবো যেগুলো চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে অব্যর্থ ইনগ্রেডিয়েন্টস হিসাবেই পরিচিত।

ঘরোয়াভাবেই স্বাস্থ্যজ্জ্বল ও লম্বা চুল কিভাবে পাবেন? 

১) এগ মাস্ক বা ডিমের প্যাক

দারুণ একটি হেয়ার লেন্থ বুস্টিং মাস্ক বানিয়ে ফেলতে পারেন ডিম ও টকদই দিয়ে। সাথে সামান্য মধু ও কিছুটা তরল দুধ যোগ করলে পারলে আরও ভালো হয়। ৩০ মিনিট পর চুল ধুয়ে ফেলবেন। সপ্তাহে অন্তত ১ বার এই এগ মাস্ক বা ডিমের প্যাক লাগিয়ে নিলে চুল হবে লম্বা ও সুন্দর। কারণ এই প্যাকটি আপনাকে কেরাটিন প্রোটিনের যোগান দেবে, যাতে চুলের আগা ফাটা কমে আসে এবং হেলদি হয়ে ওঠে। তাই একে আপনি ম্যাজিকাল হেয়ার মাস্কও বলতে পারেন!

২) আমলা

চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে আমলকী বা আমলার ভূমিকা আমাদের সবারই কম বেশি জানা। আমলকী পাউডার বা পেস্ট মেহেদির সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে রাখুন। ৪৫ মিনিট পর চুল ধুয়ে নিন ভালোমানের মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে। অথবা কুসুম গরম তেলে আমলা পাউডার মিক্স করে হট অয়েল ম্যাসাজও করে নিতে পারেন। এতে আপনার চুলের বৃদ্ধি তরান্বিত হবে কেননা আমলার ফ্যাটি এসিড হেয়ার ফলিকলে প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগায়।

৩) এসেনশিয়াল অয়েল

দুই থেকে তিন ড্রপ রোজমেরী কিংবা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিলিয়ে নিন যেকোনো হেয়ার প্যাকের সাথে। সাপ্তাহিক হেয়ার কেয়ারে প্যাক লাগানো অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ডিম, মধু, কলা অথবা যেটা আপনাকে স্যুট করে, সেই উপাদানগুলো দিয়ে প্যাক বানিয়ে চুলে লাগিয়ে নিন। কিংবা রাতে ঘুমানোর আগে যেকোনো তেলের সাথে দুই ড্রপ রোজমেরী কিংবা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিলিয়ে মাথার তালুতে মালিশ করতে পারেন। এতেও বেশ উপকার পাবেন। এসেনশিয়াল অয়েল চুলের গোঁড়া মজবুত করে আর চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে সক্রিয় ভূমিকা রাখে।

৪) অ্যালোভেরা জেল

আসলে এই উপাদানটি নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই! সর্বগুণে গুণান্বিত এই উপাদানটি দিয়ে স্ক্যাল্প ম্যাসাজ করতে পারেন, প্যাকে ইউজ করতে পারেন, তেলের সাথে মিক্স করে লাগাতে পারেন। অ্যালোভেরা জেলের সাথে অলিভ অয়েল ও মেথি মিলিয়ে কনটেইনারে রেখে দিন। এটি চুলে লাগিয়ে সারারাত রেখে সকালে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন শ্যাম্পু দিয়ে। অ্যালোভেরাতে থাকা এসেনশিয়াল অ্যামিনো এসিড, মিনারেলস চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, গোঁড়া মজবুত করে এবং এতে চুল তাড়াতাড়ি বৃদ্ধিও পায়।

৫) ক্যাস্টর অয়েল 

খাঁটি নারকেল তেলের সাথে ১ চামচ ক্যাস্টর অয়েল মিলিয়ে চুলের গোঁড়ায় ম্যাসাজ করে নিন সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন। এতে হেয়ার রুটে রক্ত সঞ্চালন বাড়বে, চুল ভেতর থেকে মজবুত হয়ে উঠবে। হেয়ার ফলিকলে পর্যাপ্ত পুষ্টি নিশ্চিত করলে চুলের বৃদ্ধি নিয়ে আর চিন্তা করতে হবে না। ক্যাস্টর অয়েলে থাকে ভিটামিন ই, প্রোটিন, ফ্যাটি এসিড, মিনারেলস যেগুলো চুলে ম্যাজিকের মত কাজ করে। এমনকি চুলের আগা ফাটা রোধ করে ও নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

৬) জোজোবা অয়েল

আরেকটি সিক্রেট টোটকা হচ্ছে জোজোবা অয়েল দিয়ে হেয়ার কেয়ার! ওমেগা ৬, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন বি কমপ্লেক্সসহ উপকারী ইনগ্রেডিয়েন্টযুক্ত এই তেল হেয়ার গ্রোথের জন্য সুপরিচিত। আপনার পছন্দের হেয়ার অয়েলের সাথে জোজোবা অয়েল এবং ভিটামিন ই ক্যাপসুল মিশিয়ে নিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে নিন। সপ্তাহে অন্তত ৩ বার এটি ব্যবহার করুন, দ্রুতই ফল পাবেন। আমন্ড বা বাদাম তেল, বিশুদ্ধ নারকেল তেল এগুলোর সাথে মিক্স করলে আরও বেশি বেনিফিসিয়াল হবে। এই অয়েল থেরাপি চুল পরা কমায়, স্ক্যাল্পে ডেড সেলস দূর করে, চুল ভেঙে পরার সমস্যা কমিয়ে দেয় এবং চুলের গোঁড়ায় পুষ্টি যোগায়।

 

তাহলে জানা হয়ে গেলো, চুলের দ্রুত বৃদ্ধির জন্য কোন ৬টি উপাদান হেয়ার কেয়ারে রাখতে হবে। সেই সাথে পর্যাপ্ত পানি পান করবেন, জাঙ্ক ফুড বা তেলে ভাজা খাবার এড়িয়ে চলবেন, হেলদি ডায়েট চার্ট মেনে চলবেন। ব্যস, স্বাস্থ্যজ্জ্বল লম্বা চুল পাওয়া কিন্তু কঠিন কিছু না! প্রয়োজন একটু যত্ন আর সচেতনতা।

[shajgoj_shop columns=2 skus=’11245, 10690, 1002, 2473′]

আপনি চাইলে অনলাইনে অথেনটিক হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট কিনতে পারেন শপ.সাজগোজ.কম থেকে। তাছাড়া, সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপে নিজে গিয়েও কিনতে পারেন, যা যমুনা ফিউচার পার্ক ও সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত।

ছবি- সাজগোজ, ইমেজেসবাজার

46 I like it
4 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...