চকো বাটার ফেসিয়াল | মাত্র ৩টি ধাপে করে ফেলুন ত্বকের যত্ন!

চকো বাটার ফেসিয়াল | মাত্র ৩টি ধাপে করে ফেলুন ত্বকের যত্ন!

চকো বাটার ফেসিয়াল

কে না চায় একটু কম ঝামেলায় সুন্দর ত্বকের অধিকারিণী হতে? অমূলক প্রশ্ন করলাম, তাই না? আসলে আমরা সবাই চাই ব্যস্ততার মধ্যে কম কষ্ট করে ভালো ফল পেতে। তাহলে আজ আপনাদের জন্য তেমন একটি ফেসিয়ালের কথাই বলব। চকো বাটার ফেসিয়াল হলো আমার জন্য কম কষ্টের ফেসিয়াল। এই ফেসিয়াল-এ যে সকল উপকরণ আছে, তা ত্বককে এক্সফলিয়েট করে আর্দ্রতা যোগায়। প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকার ফলে, ফ্রি-রেডিক্যাল-এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে আপনার ত্বককে সুরক্ষা করে। এই ফেসিয়াল-এর মাধ্যমেই আপনার ত্বক হয়ে উঠবে নরম তুলতুলে, স্বাস্থ্যকর আর উজ্জ্বল অথচ এটার জন্য বাড়তি কোন খরচ নেই! হাতের কাছে থাকা উপাদানগুলো দিয়ে সহজে সেরে নিতে পারেন এই উপকারি ফেসিয়াল-টি।

চকো বাটার ফেসিয়াল বানানোর উপকরণ

  • ১/৪ কাপ কোকো পাউডার, যা আমাদের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যোগাবে
  • ২ টেবিল চামচ ঘন ক্রিম
  • ২ চা চামচ মোটা দানার চিনি, ত্বককে এক্সফলিয়েট করে
  • অল্প মধু
  • ২ টেবিল চামচ মাখন, ত্বককে রাখে আর্দ্র
  • ১ চা চামচ অলিভ অয়েল
  • পরিমাণ মত পানি

 চকো বাটার ফেসিয়াল করার পদ্ধতি

১) চকোলেট মাস্ক অ্যাপ্লাই

প্রথমে আমাদের চকোলেট মাস্ক বানাতে হবে। তাই ছোট একটি বাটিতে কোকো পাউডার নিন। তারপর এতে ঘন ক্রিম ঢালুন। এরপর কোকোর সাথে ক্রিম ততক্ষণ পর্যন্ত ফেটান যতক্ষণ না ঘন মিশ্রণে পরিণত হয়। মিশ্রণটি দেখতে ঘন গলানো চকোলেট-এর মত দেখতে হবে। এবার আঙ্গুলের ডগা দিয়ে পুরো মুখে মিশ্রণটি লাগিয়ে ফেলুন। সতর্ক থাকবেন যেন চোখ বা ঠোঁটে না লাগে। ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে ম্যাসাজ করে মাস্ক তুলে ফেলুন। নরম ত্বকের স্পর্শ পেয়ে খুশি আটকে রাখতে পারছেন না বোধ হয়। অপেক্ষা করুন এই ফেসিয়ায়াল-এর শেষে কথা দিলাম আপনার খুশি দ্বিগুণ হয়ে যাবে!

২) এক্সফলিয়েট করা

এবার পালা সুগার এক্সফলিয়েটর বানানোর। একটি পাত্রে চিনি আর মধু নিন তারপর ভালোভাবে মেশান। এই মিশ্রণটি হাতে নিয়ে সার্কুলার মোশনে হালকা হাতে মুখে ম্যাসাজ করুন। তারপর চিনি গলে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ফেসিয়াল-এর এই ধাপটিতে আপনি ত্বকে এক ধরনের আরাম অনুভব করবেন। কুসুম গরম পানির ছিটা দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন।

৩) ত্বক আর্দ্রকরণ

এই ধাপটিতে মাখনের নরম স্পর্শে ত্বকে আর্দ্রতা যোগানো হবে। আপনার নিষ্প্রাণ ত্বকটি যেন প্রাণ খুঁজে পাবে আর ত্বক হয়ে উঠবে ঝলমলে, ঠিক যেন ১৩-১৪ বছর বয়সে যেমনটি ছিলেন আপনি। ছোট একটি বাটিতে মাখন আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে আঙ্গুলের সাহায্যে সুগার এক্সফলিয়েটর-এর  মত ম্যাসাজ করে মুখে লাগান আর অপেক্ষা করুন ৫ মিনিট। অপেক্ষার পালা শেষ। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে আবার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখটা পরিষ্কার করে ফেলুন। হয়ে গেলো আপনার চকো বাটার ফেসিয়াল!

দেখলেন তো অল্প কিছু উপকরণ তাও আবার যা সবসময় আমদের হাতের কাছেই থাকে, তা দিয়ে কিভাবে ফেসিয়ালের কাজ সেরে ফেললেন! তাহলে আর পার্লার-এ যাওয়ার ঝামেলা না করে, বাড়তি টাকা না গুনে অবসর সময়ে ঘরে বসেই করে ফেলুন চকো বাটার ফেসিয়াল! এই ফেসিয়াল-এর সবচেয়ে উপকারি দিক হলো যে, যে কোন বয়সি আর যে কোন ত্বকের অধিকারিণীরা এটি করতে পারেন।

তবে হ্যাঁ, ২০ বছর হলেই করা উচিত। কারণ, এর আগে সবার ত্বক অনেক নাজুক থাকে। আরেকটি কথা বলে রাখা ভালো, অ্যালার্জিক বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। তাই আগেই পুরো মুখে অ্যাপ্লাই না করে অল্প জায়গায় টেস্ট করে দেখুন। এই ফেসিয়াল-এর শেষে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে কুসুম কোমল, উজ্জ্বল আর স্বাস্থ্যকর।

ছবি – সংগৃহীত: সাটারস্টক

3 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...