ডে টাইম মেকআপ | ন্যাচারাল ও ফ্ললেস লুকের জন্য ফলো করুন ৭টি স্টেপস!

ডে টাইম মেকআপ | ন্যাচারাল ও ফ্ললেস লুকের জন্য ফলো করুন ৭টি স্টেপস!

1

বাইরে বের হলে একটু আধটু মেকআপ তো করা হয়ই, তাই না? ভার্সিটি, অফিস, আউটিং তো আছেই; আর কোথাও গেলে একটু তো পরিপাটি হয়ে হাজির হতে হয়। দিনের বেলায় হালকা ও স্নিগ্ধ মেকআপেই বেশি ভালো লাগে। ডে টাইম মেকআপ এর ক্ষেত্রে কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত। ড্রেস, অকেশন, ওয়েদার অনুযায়ী সাজে আসে ভিন্নতা। ন্যাচারাল ও ফ্ললেস লুক পেতে কোন কোন স্টেপগুলো ফলো করতে হবে সেটা নিয়েই আজকের আর্টিকেল।

ডে টাইম মেকআপ লুক

ডে টাইম মেকআপ লুক ক্রিয়েট করতে স্কিন প্রিপারেশন বা বেইজ মেকআপ এর ক্ষেত্রে কিছু বিষয়ে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে। অফিসে যাওয়ার সময় আপনার গেটআপ বা সাজ যেমন হবে, বন্ধুদের সাথে কোথাও বেড়াতে গেলে মেকআপ লুক তেমন হবে না, এটাই স্বাভাবিক। তবুও বেসিক কিছু রুলস আছে, যেগুলো ফলো করলে আপনার ওভারঅল লুক বেশ মার্জিত, স্নিগ্ধ ও পরিপাটি লাগবে। চলুন জেনে নেই বিস্তারিত।

১) আইস কিউব দিয়ে ম্যাসাজ করে নিন প্রথমেই

মেকআপ শুরুর আগে স্কিন ভালোভাবে ক্লিন করে নিতে হবে। এরপর একটি আইস কিউব টিস্যুতে পেঁচিয়ে মুখে আলতোভাবে ম্যাসাজ করে নিন। এতে স্কিনের সেবাম প্রোডাকশন কন্ট্রোলে থাকবে, ওপেন পোরসের ভিজিবিলিটি কমবে ও স্কিন ফ্রেশ দেখাবে। যাদের স্কিন অয়েলি, বাইরে বের হলেই মুখ ঘেমে তেলতেলে হয়ে যায়, তাদের জন্য এটি একটি লাইফ সেভার হ্যাকস।

আইস কিউব দিয়ে ম্যাসাজ

২) মেকআপের আগে সানস্ক্রিন অ্যাপ্লাই করা মাস্ট

সূর্যরশ্মির ক্ষতিকর প্রভাবে ত্বকে খুব দ্রুত বয়সের ছাপ চলে আসে। এছাড়া সানবার্ন, ডার্ক স্পটস, পিগমেন্টেশন এই ধরনের সমস্যাও দেখা দেয়। তাই দিনের বেলায় বাইরে বের হলে সানস্ক্রিন ক্লিপ করা যাবে না। স্কিন টাইপ ও কনসার্ন অনুযায়ী এখন বিভিন্ন ধরনের সানস্ক্রিন পাওয়া যায়। স্কিনে খুব তাড়াতাড়ি অ্যাবজর্ব হয়ে যায়, লং টাইম প্রোটেকশন দেয় ও ম্যাট ইফেক্ট দেয়, এমন একটি সানস্ক্রিন আপনাকে বেছে নিতে হবে।

৩) ন্যাচারাল বেইজ ক্রিয়েট করতে অ্যাপ্লাই করুন বিবি ক্রিম

ডে টাইম মেকআপ লুকে বিবি ক্রিম দিয়েই খুব সুন্দর ও ন্যাচারাল বেইজ ক্রিয়েট করতে পারেন। নো ফাউন্ডেশন মেকআপ লুকেও দিনের বেলাতে আপনাকে বেশ মার্জিত ও পরিপাটি লাগবে। চাইলে হালকা বা লাইট কভারেজ দেয়, এমন ফাউন্ডেশন ইউজ করতে পারেন। তবে আপনার স্কিনটোনের সাথে যেন সেটা পুরোপুরি ম্যাচ করে, সেদিকে খেয়াল রাখবেন। চোখের নিচে কালো দাগ ও ফেইসের স্পটস হাইড করতে কনসিলার বা কালার কারেক্টর অ্যাপ্লাই করতে পারেন।

৪) লুজ পাউডার বা কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে সেট করে নিন

পারফেক্ট ফিনিশিং এর জন্য লুজ পাউডার বা কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে বেইজ মেকআপ কমপ্লিট করুন। বড় ফেইস ব্রাশের সাহায্যে টি-জোনে লুজ পাউডার ডাস্টিং করে নিন। এতে ফেইসের অয়েলিনেস বা শাইনিভাব অনেকটাই কন্ট্রোল হবে। ন্যাচারাল ও ফ্ললেস লুক পেতে এই স্টেপটি অনেক বেশি ইফেক্টিভ! ছোট একটি ব্যাগে মেকআপের এই টুকটাক আইটেমগুলো ক্যারি করতে ভুলবেন না।

ডে টাইম মেকআপ

৫) ওয়াটার প্রুফ আইলাইনার ও মাশকারা দিয়ে কমপ্লিট করুন চোখের সাজ

দিনের বেলায় কালারফুল আই মেকআপ অ্যাভোয়েড করাটাই বেটার। চাইলে আপনি ন্যুড শেইডস বা একদম লাইট শেইডের আইশ্যাডো কালার পিক করতে পারেন। ভ্রু জোড়া শেইপ করে নিন প্রথমেই। আইব্রো পেন্সিল বা আইব্রো জেল ইউজ করতে পারেন। স্ম্যাজ প্রুফ, সোয়েট প্রুফ ও ওয়াটার প্রুফ আইলাইনার ও মাশকারা অ্যাপ্লাই করতে হবে। এতে গরমের দিনে বাইরে বের হলেও আপনার আই মেকআপ নষ্ট হবে না।

 

৬) স্কিনটোনের সাথে মিলিয়ে হালকা ব্লাশ দিয়ে নিন

ব্লাশ আপনার টোটাল লুককে কমপ্লিট করে। মেকআপের মাধ্যমে ন্যাচারাল লুক ফুটিয়ে তুলতে চাইলেও একটুখানি ব্লাশ অ্যাপ্লাই করতে হয়। যারা ফর্সা ত্বকের অধিকারী, তাদের জন্য সফট পিংক, লাইট পীচ, লাইট অরেঞ্জ বেশ ভালো অপশন। উজ্জ্বল শ্যামলা হলে পিংক আর কোরালের ওয়ার্ম শেইডগুলো ইজিলি ক্যারি করতে পারেন। শ্যামবর্ণের সাথে মভ কালারের ব্লাশ বেশ ভালো মানায়। অরেঞ্জ, ব্রিক রেড, ব্রাউনিশ পিংক এই ধরনের কালারও দারুণ স্যুট করে।

৭) ঠোঁটে দিন মানানসই লিপস্টিক বা টিন্টেড লিপবাম

অফিসে বা ভার্সিটিতে রেগুলার ইউজের জন্য ন্যুড, ব্রাউন বা পিংকিশ শেইডের লিপস্টিক বেশ ভালো মানিয়ে যায়। আপনার আউটফিটের সাথে ম্যাচ করে পারফেক্ট শেইডটি বেছে নিন। ডে টাইম মেকআপ লুকে আমি ম্যাট লিকুইড লিপস্টিকগুলো প্রিফার করি। অনেকে লিপস্টিকের বদলে টিন্টেড লিপবাম দিতে পছন্দ করেন।

পারফেক্ট মেকআপ লুক

লাস্ট ফিনিশিং ফর পারফেক্ট মেকআপ লুক

স্কিনে হাইড্রেশন ও ফ্রেশনেস ফিরিয়ে আনতে ফেইস মিস্ট দারুণ কাজ করে। ইনস্ট্যান্টলি হাইড্রেটেড স্কিন পেতে ফেইস মিস্ট স্প্রে করে নিন এবং বাইরে বের হলে ব্যাগেও ক্যারি করুন। ডে টাইম মেকআপ লুককে লং লাস্টিং করতে সেটিং স্প্রে ইউজ করতে পারেন। এতে রোদে বা ঘামে মেকআপ ছড়িয়ে যাবে না। যারা সারাদিনের জন্য বাইরে বের হচ্ছেন এবং স্কিন অয়েলি হয়ে যাওয়ার টেন্ডেন্সি আছে, তাদের জন্য সেটিং স্প্রে মাস্ট হ্যাভ একটি প্রোডাক্ট।

শিমারি, শাইনি বা চকচকে ইফেক্ট দেয়, এমন মেকআপ প্রোডাক্ট দিনের বেলায় ইউজ না করাই ভালো। সাথে একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন, বাসায় ফিরে কিন্তু খুব ভালোভাবে মেকআপ রিমুভ করতে হবে। ন্যাচারাল ও ফ্ললেস লুক পেতে এই ছোট ছোট ট্রিকসগুলো বেশ কাজে দিবে আশা করি। মেকআপের জন্য প্রয়োজনীয় সব প্রোডাক্টস শপ.সাজগোজ.কম এ পেয়ে যাবেন। সাজগোজের ৪টি শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার, উত্তরার পদ্মনগর ( জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) ও সীমান্ত সম্ভার থেকেও বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি।

 

ছবি- সাজগোজ

49 I like it
9 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...