ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক স্ক্রাব - Shajgoj

ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক স্ক্রাব

Honey-Cinnamon

স্ক্রাবিং আমাদের ত্বকের জন্য অতীব প্রয়োজন। স্ক্রাব করলে মুখের মরা চামড়া পরিষ্কার হয়, লোমকূপ থেকে ময়লা দূর হয়, এতে করে ত্বক আগের তুলনায় অনেক বেশি কোমল হয়। এটি ব্ল্যাকহেড্‌স, হোয়াইট হেড্‌স থেকে শুরু করে ব্রণ আর রিংকেল্‌স নিরাময়ে ও বেশ কার্যকরী। বাজারে বিভিন্ন ব্রান্ডের ফেসিয়াল স্ক্রাব পাওয়া যায়। অনেকক্ষেত্রে নকল অথবা মুখের সাথে মোটেই মানানসই নয়, এমন স্ক্রাব ব্যবহারে উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হয়। এসব হয়রানি থেকে রক্ষা পেতে বাসায় খুব সহজেই প্রাকৃতিক উপায়ে স্ক্রাবিং টা সেরে ফেলতে পারেন।

আজ আমরা ঘরোয়া উপায়ে কী ব্যবহার করে স্ক্রাব করতে হয়, তা জানব। এখানে আমি বেশ কয়েকটি ফেসিয়াল স্ক্রাব সম্পর্কে লিখব। আপনি আপনার ত্বকের ধরন অনুযায়ী পছন্দসই যেকোনোটি বেছে নিতে পারেন।

স্ক্রাব-১

সামান্য পরিমাণে চাল নিন। সামান্য একটু পিষে নিন, যাতে দানা দানা থাকে, একেবারে পাউডার করবেন না। তারপর চালের গুঁড়োর পরিমাণ অনুযায়ী তাতে মধু মিশান। খুব থকথকে একটি পেস্ট হবে। তারপর একটি লেবু গোল করে কেটে নিন। লেবুতে এই পেস্টটি লাগিয়ে নিয়ে মুখে আস্তে আস্তে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে স্ক্রাব করুন। এভাবে তিন মিনিট করার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। লেবু ব্যবহার করতে না চাইলে হাত দিয়েও করতে পারেন।

স্ক্রাব-২

একটি মাল্‌টা গোল করে কেটে নিন। এতে চিনি নিয়ে স্ক্রাব করুন। ৩-৪ মিনিট করার পর ধুয়ে ফেলুন। মাল্‌টা আর চিনির এই স্ক্রাবটি বেশ উপকারী। ব্যবহারে উপকৃত হবেন।

[picture]

স্ক্রাব-৩

দেড় চা চামচ দারচিনি গুঁড়ো নিন। তাতে এক টেবিল চামচ মধু দিন। মিক্স করতে থাকুন যতক্ষণ না পর্যন্ত একটি ঘন পেস্ট তৈরি হয়। পেস্ট করার পর তা পরিষ্কার হাত দিয়ে সার্কুলার মুভমেন্টে আস্তে আস্তে মুখে লাগান। লাগানো হয়ে গেলে ২০ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

স্ক্রাব-৪

একটি বাটিতে টকদই নিন। আস্তে আস্তে মুখে লাগিয়ে নিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ধুয়ে ফেলুন। দইয়ের বি৬ ন্ত্বকের রক্ত চলাচল ত্বরান্বীত করে। ত্বকের সজীবতা ফিরিয়ে আনে। আপনি চাইলে দইয়ের সাথে কমলার খোসা শুকিয়ে গুঁড়ো করে মিশিয়ে নিতে পারেন।

স্ক্রাব-৫

একটি পরিষ্কার পাত্রে এক চা চামচ নারিকেল তেল নিন। তাতে এক চা চামচ চিনি নিন। নেড়ে একটি থকথকে মিশ্রণ তৈরি করুন। এতে আধ চা চামচ কিংবা কয়েক ফোটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। মুখে লাগান। আলতোভাবে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পর ভেজা তোয়ালে দিয়ে মুছে ফেলুন। তারপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই অয়েল বেস্‌ড স্ক্রাবটি শুষ্ক ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। নারিকেল তেল ব্যবহার করতে না চাইলে অলিভ অয়েল নিতে পারেন।

টিপ্‌স-

(১) স্ক্রাব করার আগে মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

(২) সপ্তাহে ১ বার অথবা ২ বার স্ক্রাব ব্যবহার করুন।

(৩) স্ক্রাব করার সময় ত্বক বেশি ঘষাঘষি করবেন না ।

(৪) স্ক্রাব করার পর ত্বক কিছুটা ফটোসেনসিটিভ হয়ে পড়ে। তাই বাইরে বের হবার আগে সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন।

(৫) প্রত্যেকবার স্ক্রাব করার পর পোর মিনিমাইজার ব্যবহার করবেন। এজন্য টোনার ব্যবহার করতে পারেন অথবা গোলাপজল তুলার বলে নিয়ে মুখে লাগাতে পারেন।

(৬) ব্রণযুক্ত ত্বকে স্ক্রাব ব্যবহার করবেন না।

লিখেছেন- নীল

ছবি- হানি.কম

17 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...