মুখের মেদ কমানো | ৪ টি সহজ ব্যায়ামে হয়ে উঠুন আকর্ষণীয়!

মুখের মেদ কমানোর ৪টি ব্যায়াম!

একটা ব্যাপার খেয়াল করেছেন, অনেকরই শরীরে মেদ বাড়লেই সবার আগে মুখেই তার প্রভাব পড়তে শুরু করে। ফলে মুখ ভারী দেখায়, গাল ফুলে যায়, বিশেষত থুতনির কাছে মেদ জমে যায়। এই সমস্যা মেকআপ দিয়েও সমাধান করা যায় না। মুখের মেদ কমানোর সহজ এবং নিরাপদ ও সম্ভবত একমাত্র উপায় হচ্ছে ব্যায়াম বা এক্সারসাইজ

মুখের মেদ কমাতে এক্সারসাইজ

অ্যারোবিক বা যোগাভ্যাসের অভ্যাস থাকলে তাতে পরিবর্তন আনার প্রয়োজন নাই। মুখের মেদ কমানোর জন্য শরীরে মেদ বা ফ্যাট কমানোর পাশাপাশি নিয়মিত এক্সারসাইজের সাথে মুখের জন্য আলাদা করে কিছু এক্সারসাইজ করলে ফলাফলটা একটু জলদি পেতে পারেন। চলুন তবে কিছু মুখের ব্যায়াম দেখে নেয়া যাক!

মুখের মেদ কমাতে টিপস 

১) চোখের মেদ 

চোখ দুটি বন্ধ করে, চোখের পাতার উপর আঙ্গুল রাখুন। এবার চোখের পাতা নিচের দিকে নামানোর চেষ্টা করুন এবং একই সঙ্গে ভুরু উপরে তোলার চেষ্টা করুন। প্রতিদিন ৫ মিনিট এই এক্সারসাইজটি করলে আপনার কপালটি টোনড হবে।

অনেকের মুখে মেদ জমলে চোখের তলাতেও মেদ জমে। আর তাই চোখের মেদ কমাতে চোখ দুটি বন্ধ করে রিল্যাক্স করুন। এবার চোখ দুটি বন্ধ অবস্থায় চোখের মনি উপরে তুলুন এবং নিচে নামান। প্রতিদিন ১০ মিনিট এই এক্সারসাইজটি করুন। এরপর চোখ বন্ধ অবস্থায় যতটা সম্ভব ভুরু উপরের দিকে তোলার চেষ্টা করুন। এক্সারসাইজটি করার সময় চোখ খোলা যাবে না। তারপর ১০ মিনিট রিল্যাক্স করুন। প্রতিদিন ১০ মিনিট এই এক্সারসাইজটি করুন।

২) গালের ফোলা ভাব কমান 

মুখের মধ্যে আঙ্গুল ঢুকিয়ে যতটা সম্ভব জোরে চুষুন এবং ১০ পর্যন্ত গুনতে থাকুন, অতঃপর আঙ্গুল বের করে নিন। প্রতিদিন ১০ বার নিয়মিত এই এক্সারসাইজ করলে গালের ফোলাভাব অনেকটাই কমে যাবে এবং মুখের ভারী ভাবটাও কমে যাবে।

৩) ঘাড় ও গলার মেদ 

আস্তে আস্তে আপনার মাথাটি পেছনের দিকে হেলাতে থাকুন, যতক্ষণ না পর্যন্ত আপনি আপনার ঘাড়ে চাপ অনুভব না করছেন। এবার আপনি আপনার চোয়ালটি একবার ডান হতে বাম দিকে, আরেকবার বাম হতে ডান দিকে নড়ানোর চেষ্টা করুন এবং এটি ৫ বার করা হলে আস্তে আস্তে রিল্যাক্স করুন। এই এক্সারসাইজটি আপনি দিনে ৫ বার করলে আপনার ঘাড় এবং গলার মাসল টোন হবে।

৪) থুতনির মেদ কমাতে

হা করুন। যতটা সম্ভব আপনার মুখ খোলার চেষ্টা করুন যতক্ষণ পর্যন্ত না আপনি গালে, ঠোঁটে এবং থুতনিতে চাপ অনুভব না করছেন।

এরপর ১০ পর্যন্ত গুণতে থাকুন এবং রিলেক্স করুন। প্রতিদিন ৫ মিনিট এই এক্সারসাইজটি করুন।  এতে করে মুখের মাসল টোন হবে, রক্ত সঞ্চালন বাড়াবে  এবং অতিরিক্ত মেদ কমাবে।

তাহলে এবার জেনে নিলেন তো মুখের মেদ কিভাবে কমাতে পারবেন! শরীরের অন্যান্য জায়গার মেদের মতো মুখের মেদ কমাতে এতো কষ্ট করে আলাদা সময় বের করতে হবে না। দিনের যেকোনো সময়, যেকোনো জায়গায় আপনি মুখের মেদ কমানোর এই ব্যায়ামগুলো করে নিতে পারেন। তবে আজ থেকেই শুরু করে দিন! বাড়তি মেদ কমিয়ে নিজের মুখে ফিরে পান সেই মিষ্টি মায়া!

ছবি- সংগৃহীত: ইমেজেস বাজার; সাজগোজ

 

 

75 I like it
9 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...