ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার ২টি উপায়! ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার ২টি উপায়!

ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার ২টি উপায়!

লিখেছেন - ফারিতাহ মনসুর সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯

চোখের সাজকে আরো ড্রামাটিকভাবে ফুটিয়ে তুলতে ফেইক আইল্যাস না পরলে যেন লুকটাই কমপ্লিট হয় না। কিন্তু ফেইক আইল্যাস পড়তে জানলেও আমরা অনেকেই তা সঠিকভাবে ক্লিন করতে জানিনা। যার ফলে পছন্দের আইল্যাসটি দুই একবার পড়ার পর আর পড়া হয় না। কারণ ফেইক আইল্যাস সঠিকভাবে ক্লিন করতে না জানলে এটি খুব সহজেই ছিঁড়ে যেতে পারে। আবার অন্যদিকে ল্যাস গ্লু, মাসকারা এমনকি আই লাইনার এসব কিছুর মিশ্রণে ল্যাস থেকে গ্লু ক্লিন করা অনেকটাই অসাধ্য সাধনের মতো হয়ে যায়। তবে, সঠিকভাবে ল্যাস ক্লিন করে রাখলে পছন্দের ল্যাসটি অনেকবার ব্যাবহার করা সম্ভব। আজকে আমরা আপনাদের দেখাবো ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার ২টি কার্যকরী ট্রিকস সম্পর্কে।

ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার উপায়

চলুন তাহলে জেনে নেই, ফেইক আইল্যাস ক্লিন করার সিম্পল ২টি ট্রিকস।

ট্রিকস নাম্বার- ১ 

আইল্যাস ক্লিনিং-এ নারকেল তেল, কটন প্যাড, কটন বাড, টুইজার - shajgoj.com

যা যা লাগবে

  • নারকেল তেল
  • কটন মেকআপ প্যাড
  • কটন বাড
  • টুইজার

ফেইক ল্যাসগুলোকে একটি কটন প্যাডের মধ্যে রাখি। এরপর একটি কটন বাড নিয়ে সেটিকে নারকেল তেল এর মধ্যে ভিজিয়ে নেই। একটি টুইজার দিয়ে ফেইক ল্যাসটিকে হালকাভাবে ধরি এবং কটন বাডটি দিয়ে হাল্কাভাবে ল্যাস গ্লু এর উপর ঘষতে থাকি যতক্ষণ পর্যন্ত গ্লু একেবারে আলগা হয়ে উঠে না আসে। তারপর গ্লু একেবারে উঠে আসলে আরও একটি কটন প্যাড  নিয়ে, ল্যাসের উপর চেপে চেপে বাকি তেলটুকু প্যাডের সাহায্যে শুষে নেই। এরপর ক্লিন করা ল্যাস আবার আগের মত ল্যাসের বক্সে রেখে দিন।

ট্রিকস নাম্বার- ২ 

আইল্যাস ক্লিনিং-এ কটন প্যাড, আই মেকআপ রিমুভার, টুইজার - shajgoj.com

যা যা লাগবে

  • কটন মেকআপ প্যাড
  • আই মেকআপ রিমুভার
  • টুইজার

আই মেকআপ রিমুভার এমন কিছু উপাদান দিয়ে তৈরি যা খুব সহজেই লাইনার, কাজল এগুলোকে একেবারে সেইফভাবে ক্লিন করে থাকে। তাই সেই আই মেকআপ রিমুভার ব্যাবহার করে খুব সহজেই কিন্তু ফেইক ল্যাশ থেকে গ্লু ক্লিন করা যায়। দুটি কটন প্যাড নিয়ে সেগুলোকে আই মেকআপ রিমুভারে ভিজিয়ে নেই। এবার ফেইক ল্যাসগুলোকে দুটি কটন প্যাডের মাঝে রেখে দেই। এভাবে মেকআপ রিমুভারে ভেজান কটন প্যাডের ভেতর ল্যাস গুলোকে অন্তত ৩০ সেকেন্ড রেখে দেই। তারপর ল্যাসগুলো থেকে একটি টুইজারের সাহায্যে আস্তে আস্তে উঠিয়ে নেই। এরপর একটি কটন বাড মেকআপ রিমুভারে ভিজিয়ে নিয়ে সেটি দিয়ে অবশিষ্ট গ্লুকে ল্যাস থেকে মুছে নেই। তারপর ল্যাসের বক্সে ল্যাসগুলোকে রেখে দিন। এতে করে ফেইক ল্যাসের শেইপ ঠিক থাকবে।

আপনি চাইলে আপনার পছন্দমতো আইল্যাস কিনতে পারেন অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে। আবার যমুনা ফিউচার পার্ক ও সীমান্ত স্কয়ার এ অবস্থিত সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ থেকেও কিনতে পারেন আপনার পছন্দের আইল্যাসটি!

ব্যাস, সিম্পল এই স্টেপসগুলো ফলো করলেই ল্যাস হয়ে যাবে একেবারে নতুনের মত ক্লিন। ল্যাস সবসময় সঠিকভাবে ক্লিন করা উচিত। নাহলে জমে থাকা গ্লু, লাইনার, মাসকারা এসব কিছু থেকে ব্যাকটেরিয়া জন্ম নিতে পারে, যা পরবর্তীতে চোখের বিভিন্ন রকম ইনফেকশনের কারণ হতে পারে।

 

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ; ইমেজেসবাজার.কম