ব্রণের দাগ দূর করতে আমার পছন্দের ১টি জাদুকরী ফেইস প্যাক!

ব্রণের দাগ দূর করতে আমার পছন্দের ১টি জাদুকরী ফেইস প্যাক!

ব্রণের দাগ - shajgoj

ব্রণের দাগ দূর করতে আমরা কত রকমের প্রোডাক্ট ব্যবহার করি! বেশ কিছুদিন আগের কথা। ব্যস্ততার কারণে স্কিনের ভালোমত কেয়ার নেয়া হচ্ছিল না। আয়নার দিকে একদিন হঠাৎ তাকাতেই মনে হলো কত যুগ আমি আয়না দেখি না। আর মুখের স্কিনের দিকে খেয়াল করতেই দেখলাম যে প্রচুর ব্রণ উঠে গেছে। এমন আমার মাঝে মাঝেই হয়। স্কিন কেয়ার করতে ভুলে গেলে/করা না হলেই ব্রণ ওঠে। কি করে আগের অবস্থায় ফেরত যাওয়া যায় সেটা ভাবছিলাম। ওদিকে আমার সাধের মুলতানি মাটির কৌটোটাও খুঁজে পাচ্ছিলাম না যে হোমমেইড ফেইস প্যাক বানিয়ে লাগাবো। পরে ভাবলাম, ধুর!! লাগবেনা মুলতানি মাটি। অন্য সব ইনগ্রিডিয়েন্টস দিয়েই প্যাক বানিয়ে ফেলব।

যেই ভাবা সেই কাজ। প্যাক বানিয়ে লাগিয়ে ফেললাম। পরদিন সকালে উঠে মুখ ধুয়ে স্কিনে বেশ পরিবর্তন দেখলাম। ব্রণগুলি শুকিয়ে আসছে। দেখে তো আমি বেশ খুশি। সপ্তাহে ৩ দিন প্যাক-টি লাগাতেই স্কিন আবার আগের মত।

Sale • Scrubs & Exfoliators, Face Packs & Peels, Day & Night Cream

আচ্ছা, অনেক তো আমার স্টোরি বললাম। এবার চলুন, আপনাদের সাথেও শেয়ার করি ফেইস প্যাক-টি কিভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন।

ব্রণের দাগ দূর করতে ফেইস প্যাক

১. হলুদ গুঁড়ো

হলুদে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল, অ্যান্টি-সেপটিক ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি প্রোপারটিস যা স্কিন প্রবলেমস,  বিশেষ করে ব্রণ দূর করতে বেশ ভালো কাজ করে।

ব্রণের দাগ দূর করতে হলুদ গুঁড়ো - shajgoj.com

তবে, ফেইস প্যাক বানানোর জন্যে রান্না ঘরে গিয়ে হলুদের কৌটা থেকে হলুদ গুড়ো নিয়ে আবার ব্যবহার করতে যাবেন না যেন। সবসময়, হলুদ কেনার পর স্কিন কেয়ারের জন্যে ছোট একটি আলাদা কৌটায় হলুদ গুঁড়ো রাখবেন।

 

২. মধু

ব্রণের দাগ দূর করতে মধু - shajgoj.com

মধুকে ন্যাচারাল ব্লিচিং এজেন্ট বলা হয় এবং এটি স্কিনের পিগমেন্টেশনস লাইট করতে সাহায্য করে। এছাড়াও এটি আমাদের স্কিনকে ময়েশ্চারাইজ করে।

 

৩. অ্যালোভেরা জেল

ব্রণের দাগ দূর করতে অ্যালোভেরা জেল - shajgoj.com

অ্যালোভেরা জেল স্কিনকে হাইড্রেট, ময়েশ্চারাইজ করে স্কিনকে একটা সুদিং ফিল দেয়। এছাড়াও এটি ব্রণ দূর করতে বেশ কাজে দেয়। তবে কোনো ইনগ্রেডিয়েন্ট-এ এলার্জি থাকলে ফেস প্যাক-টি না ব্যবহার করাই ভালো।

ব্রণের দাগ দূর করতে ফেইস প্যাকটি যেভাবে বানাবেন

১. প্রথমে একটি ক্লিন বাটি নিয়ে এর মধ্যে এক চা চামচ মধু, এক চিমটির একটু বেশী হলুদ গুঁড়ো, ১/৪ চা চামচ এলোভেরা জেল নিয়ে ভালোভাবে সবকিছু মিশিয়ে নিন। ব্যস! আপনার প্যাকটি রেডি।

২. মুখ প্রথমে ফেস ওয়াস দিয়ে ক্লিন করে নিয়ে আমি একটা স্ক্রাব ব্যবহার করি । এরপর মুখ ধুয়ে, স্কিন-টা টাওয়েলের সাহায্যে প্যাট ড্রাই করে নিয়ে একটি ব্রাশ/আঙুলের সাহায্যে প্যাক-টি পুরো মুখে লাগিয়ে নেই। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে নিয়ে মুখ পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলি। মার্কেটে অ্যাভেইলেবল অ্যালোভেরা জেল পুরো মুখে লাগিয়ে নেই ময়েশ্চারাইজার হিসেবে।

৩. এই ফেস প্যাক-টি সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন এবং এই প্যাক-টি অবশ্যই রাতের বেলা ব্যবহার করবেন।

এই তো ছিল, আমার পছন্দের একটি ব্রণের ফেস প্যাক। ইনগ্রিডিয়েন্ট-গুলো খুবই সাধারণ কিন্তু বেশ কার্যকরী হয়েছিলো আমার ক্ষেত্রে। কিন্তু সবার স্কিন যেহেতু এক না সেহেতু আমার মতই ভালো ফল পাবেন কিনা সেটা ১০০% শিওর হয়ে বলতে পারছি না। তবে ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আশা করছি, সুফল পাবেন।

ছবিঃ সংগৃহীত – সাজগোজ.কম

61 I like it
8 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...