বাইক চালিয়ে স্কিনে সানট্যান পরে যাচ্ছে?

বাইক চালিয়ে স্কিনে সানট্যান পরে যাচ্ছে?

2 (7)

নিজের প্রয়োজনে, জীবিকার জন্য কিংবা বিভিন্ন কাজে ছেলেদের তো রোজই বাসা থেকে বের হতে হয়। যাতায়াতের দ্রুততার জন্য বাইক চালিয়ে যেতে অনেকেই প্রিফার করেন। এখন তো পাঠাও, উবার বাইকের মতন রাইড শেয়ারিং ঢাকা শহরে বেশ জনপ্রিয়। সারাদিন রোদে ঘোরাফেরা করে দিনশেষে বাসায় ফিরে দেখলেন রোদে স্কিন পুড়ে কালো হয়ে গেছে! জানি, বাইকারদের জন্য বা যারা বাইরে রাইড করেন, তাদের জন্য এটা বেশ কমন প্রবলেম। বাইক চালিয়ে স্কিনে সানট্যান পরে যাচ্ছে? তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য!

আপনার স্কিন কালারে অসামঞ্জস্যতা আছে?

বেশিরভাগ মেয়েরা নিজের ত্বক নিয়ে বেশ সচেতন, কিন্তু ছেলেরা অনেকেই এখনো বেসিক স্কিন কেয়ার নিয়ে কনসার্ন না। রোদে তো ছেলেরাও যায় আর দিনশেষে ত্বকে ময়লা নিয়ে ঘরে ফেরে, তাহলে স্কিন কেয়ার ছেলেদের জন্য নয় কেন? তাকিয়ে দেখুন তো, আপনার বডির স্কিনে কালারে অসামঞ্জস্যতা আছে কি না? শরীরের যেই পার্টটুকু ঢাকা থাকে, সেটা ব্রাইট! আর যেই অংশটূকু রোদে এক্সপোসড হয়, সেটা তুলনামুলক ডার্ক! স্কিন কালারে এই অসামঞ্জস্যতা আপনাকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে যে, বেসিক স্কিন কেয়ার করা আপনার জন্য কতটা জরুরি। স্কিন কেয়ার ও সান প্রটেকশন শুধু মেয়েদের জন্য নয়! এটা সবার জন্য সমানভাবে প্রয়োজন।

বাইক চালিয়ে স্কিনে সানট্যান পরে যাচ্ছে! এর সমাধান কী?

কড়া রোদ, পলিউশন আপনার স্কিনকে দ্রুত ড্যামেজ করে দেয়। কালচে ত্বক, অল্প বয়সে স্কিনে বয়সের ছাপ চলে আসা, মলিন ও ড্রাই দেখানো এগুলো সবই কিন্তু সান ড্যামেজের জন্য হচ্ছে। ফুলস্লিভ ড্রেস পরে কতক্ষণ সূর্যের আলো থেকে নিজেকে আগলে রাখবেন? একটু সতর্ক থাকলে খুব সহজেই ত্বকে সানট্যান পরা রোধ করা যায়। কীভাবে? সেটা জেনে নিন এখনই।

১) সানস্ক্রিন ইউজ করুন

সানস্ক্রিন অ্যাপ্লাই করা মাস্ট! দিনের বেলা বাসা থেকে বের হওয়ার সময় মুখে, গলায়, হাতে অর্থাৎ রোদে এক্সপোসড হয় যেই অংশটুকু, সেখানে খুব ভালোভাবে সানস্ক্রিন মেখে নিন। অন্তত এসপিএফ ৫০ আছে, এমন সানকেয়ার প্রোডাক্ট আপনাকে ভালো কভারেজ দিবে। ২/৩ ঘণ্টা পরপর সানস্ক্রিন রিঅ্যাপ্লাই করতে হয়। এটাই সূর্যের ইউ ভি রশ্মি থেকে নিজের স্কিনকে সুরক্ষিত রাখার সবচেয়ে ইফেক্টিক উপায়।

২) বাসায় ফিরে ক্লেনজিং 

বাসায় ফিরে স্কিন ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে ধুলোময়লা, ঘাম জমে ত্বকের পোরগুলো বন্ধ হয়ে যায়। এতে আপনার স্কিনে কালচে ছোপ পরা, খসখসে ভাব, ব্রণ বা র‍্যাশ হওয়া ইত্যাদি সমস্যা দেখা যায়। তাই বাসায় ফিরে ভালোভাবে শাওয়ার নেয়া কিন্তু মাস্ট। গোসলের সময় রিফ্রেশিং ফিল দেয়, এমন সোপ বা শাওয়ার জেল ইউজ করবেন। ধুলোময়লা ভালোভাবে পরিষ্কার করতে বডি স্ক্রাব ইউজ করতে পারেন। এতে ত্বকের উপরিভাগে জমে থাকা ডেড সেলস, ডার্ট সব ক্লিন হয়ে যাবে।

৩) স্কিন ময়েশ্চারাইজড রাখুন

যারা বাইক রাইড করেন, তাদের স্কিনটা বেশ রুক্ষ হয়ে যায়, তাই না? অনেকক্ষণ রোদে থাকলে সানট্যান পরার সাথে সাথে স্কিন কিন্তু ড্রাই ফিল হয়। ত্বকের হাইড্রেশন ঠিক রাখতে রাতে ঘুমানোর আগে অ্যালোভেরা জেল ইউজ করতে পারেন। এতে ধীরে ধীরে ট্যানিং কমে আসবে, স্কিন রিপেয়ার হবে, খসখসে ভাবটাও দূর হবে। শাওয়ারের পর ত্বকের প্রয়োজন অনুসারে একটা বডি লোশন ব্যবহার করবেন। ছেলেদের স্কিন তুলনামূলক হার্শ হয়, একটু কেয়ার করলেই কিন্তু আপনার স্কিন ভালো থাকবে।

ব্যস, খুব সহজেই কিন্তু সূর্যের আলোর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখা যায়। সানস্ক্রিন অ্যাপ্লাই করে বের হতে হবে আর সানস্ক্রিনটা নিজের সাথে ক্যারি করবেন। বাইকার যারা আছেন, আর যারা বাইকে চড়ে নিজের গন্তব্যে যান, তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটা হেল্পফুল ছিল আশা করি।

মেনস কেয়ারের ভ্যারাইটি প্রোডাক্ট আপনি পেয়ে যাবেন শপ.সাজগোজ.কম থেকে। অথেনটিক সানকেয়ার প্রোডাক্ট, বডি লোশন, শাওয়ার জেল/বডি স্ক্রাব, পারফিউম পেতে এখনই ভিজিট করুন কিংবা সাজগোজের দুটো শপেও পেয়ে যাবেন আপনার কাঙ্ক্ষিত প্রোডাক্ট, যেটা যমুনা ফিউচার পার্ক ও সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত।

ছবি- সাজগোজ, সাটারস্টক

5 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...