ত্বকের উজ্জ্বলতায় গোলাপজল | ৩টি প্যাকের মাধ্যমে করুন স্কিন কেয়ার

ত্বকের উজ্জ্বলতায় গোলাপজল | ৩টি প্যাকের মাধ্যমে করুন স্কিন কেয়ার

3

ত্বকের উজ্জ্বলতা হারানো আজকাল সব মেয়েদের একটি প্রধান সমস্যা। নিয়মিত যত্নের অভাবে ত্বক হয়ে যায় প্রাণহীন এবং হারিয়ে ফেলে স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা। অনেক কিছু ব্যবহার করেও অনেক সময় স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরে পাওয়া যায় না। তাই আজকে আমরা আপনাদের জানাবো বিবর্ণ ও প্রাণহীন ত্বকের প্রাণ ফিরে পেতে রোজ ওয়াটার বা গোলাপজল দিয়ে তৈরি কিছু কার্যকরী প্যাক নিয়ে। তো চলুন জেনে নেই ত্বকের উজ্জ্বলতায় গোলাপজল এর ৩টি সহজ প্যাক কিভাবে ব্যবহার করতে পারেন!

ত্বকের উজ্জ্বলতায় গোলাপজল

উজ্জ্বল দাগহীন ত্বক পেতে আমরা কতোকিছুই না করে থাকি। কিন্তু সবসময় উপকার পাই কি? আজকে আমরা গোলাপজল দিয়ে তৈরি এমন কিছু কার্যকরী প্যাক সম্পর্কে জানাবো যার সাহায্যে আপনার ত্বক হবে উজ্জ্বল দাগহীন।আদিকাল থেকে রোজ ওয়াটার বা গোলাপজল বিশ্বজুড়ে সৌন্দর্যের প্রধান উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছে। গোলাপজলযুক্ত মাস্ক আপনার ত্বককে হাইড্রেট এবং উজ্জ্বল করতে সাহায্য করবে। চলুন জেনে নেই রোজ ওয়াটার দিয়ে তৈরি কিছু মাস্ক সম্পর্কে।

(১) নিম এবং গোলাপজল

নিমে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাজা নিম পাতার একটি পেস্ট তৈরি করে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল মিশিয়ে নিন। আপনার মুখে লাগান এবং শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

(২) মুলতানি মাটি, রোজ ওয়াটার ও লেবুর রস

মুলতানি মাটি ব্রণ শুকানোর ক্ষেত্রে সহায়তা করে, গোলাপজল ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে এবং লেবুর রস ব্রণের দাগ থেকে মুক্তি দেয়। মুলতানি মাটির সাথে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল এবং ২-৩ ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রাখুন। শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

(৩) রোজ ওয়াটার, অ্যাসেনশিয়াল অয়েল ও মধু 

এক চামচ গোলাপজল, ২ চামচ মধু এবং ২ চামচ অ্যাসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে একটি প্যাক বানাতে হবে। এই প্যাকটি পুরো মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিবো শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এটি উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

গোলাপজল কী কাজ করে? 

গোলাপজল আপনার ত্বককে হাইড্রেট করতে পারে। এটি স্কিনের তেল উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করে। ত্বকের পিএইচ (PH) ভারসাম্য বজায় রাখতে গোলাপজল খুবই কার্যকর। গোলাপজল বা রোজ ওয়াটার টোনার বা ক্লিনজার হিসাবেও ব্যবহার করা যায়। এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল (Antibacterial) বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনার মুখের খোলা লোমকূপগুলো বন্ধ করতে সাহায্য করবে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে এর উপকারিতা অনেক।

আপনি যদি রেগ্যুলার স্কিন কেয়ারে অথেনটিক প্রোডাক্ট খুঁজে থাকেন, তবে সাজগোজ হতে পারে আপনার জন্য নির্ভরযোগ্য জায়গা। সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ রয়েছে যার একটি সীমান্ত স্কয়ার ও অপরটি যমুনা ফিউচার পার্কে অবস্থিত। আর অনলাইনে প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে কিনতে পারেন শপ.সাজগোজ.কম থেকে।

জেনে নিলেন তো কীভাবে খুব সহজে ঘরোয়া উপায়েই ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে পেতে পারেন! নিয়মিত এই প্যাকগুলো ব্যবহার করুন এবং ফিরে পান ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা!

 

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ

22 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...