মুখে চালধোয়া পানি ব্যবহারে হবে ত্বকের সৌন্দর্য ও কোমলতা বৃদ্ধি!

চালধোয়া পানি ব্যবহারে হবে ত্বকের সৌন্দর্য ও কোমলতা বৃদ্ধি!

ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে চালধোয়া পানি - shajgoj

আপনি কি কখনও মুখে চালধোয়া পানি ব্যবহার করেছেন? যদি উত্তরটি হয় না তবে আমি বলব আসলেই আপনি অনেক কিছু মিস করেছেন। চালধোয়া পানির উপকারিতা এত বেশি যা আপনি শুধুমাত্র তা ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন। ব্রণের দাগ থেকে শুরু করে বলিরেখার সমস্যা পর্যন্ত সমাধান করতে পারে এই টোনার। যদিও এই টোনার বানাতে শুধুমাত্র পানি এবং চালেরই প্রয়োজন হয়। উপকরণ কম হলেও উপকারিতা কিন্তু অনেক। এটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক তাই ত্বকের কোন ধরনের ক্ষতি হয় না। এই টোনারটির সবচেয়ে ভালো লাগার বিষয় হল অনেক কম উপকরণ দিয়ে এবং অনেক কম সময়ে এটি বানানো যায়। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক এই টোনারটি বানাতে আপনার কী কী লাগবে।

উপকরণ

  • ১/২ কাপ চাল
  • পানি

চালধোয়া পানি তৈরির প্রক্রিয়া

  • প্রথমেই চালগুলো পরিষ্কার কিনা তা ভালো করে দেখে নিন। চালে কোন ময়লা থাকলে তা ঝেরে নিন। হালকা করে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এতে করে ময়লাগুলো পরিষ্কার হয়ে যাবে।
  • এরপর একটি পাত্রে চালটুকু নিয়ে তাতে পানি দিয়ে দিন। পানি ততটুকুই দিবেন যাতে চালটা পুরো পানিতে ডুবে থাকে।
  • ১৫ মিনিটের জন্য চাল পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এতে করে চালের ভিটামিনগুলো সব পানিতে চলে যায়।
  • ১৫ মিনিট পর পানি থেকে চালগুলো আলাদা করে ফেলুন। যেকোন একটি পাত্রে চালের পানি সংরক্ষণ করুন। অবশিষ্ট চাল ভাত রান্নার কাজে ব্যবহার করুন।

মুখে চালধোয়া পানি যেভাবে ব্যবহার করবেন

১. ক্লিঞ্জার হিসেবে

ক্লিঞ্জার হিসেবে চালের পানি অনেক উপকারি। পানি দিয়ে প্রতিবার মুখ না ধুয়ে চাইলে কয়েকবার চালের পানি ব্যবহার করতে পারেন।

২. টোনার হিসেবে

একটি কটন বলে চালের পানি নিয়ে মুখে এবং গলায় লাগিয়ে নিতে পারেন টোনার হিসেবে এই চালের পানি। প্রতিদিন সকালে এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই টোনার লাগাতে পারেন। আপনি যদি ক্লিঞ্জার এবং টোনার হিসেবে চালের পানি ব্যবহার করেন তবে সাথে সাথেই পরিবর্তনটা বুঝতে পারবেন। চালের পানি ব্যবহারের ফলে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে কোমল, মসৃণ এবং প্রাণবন্ত।

তবে যদি সাথে সাথে পরিবর্তন নাও হয় তবে আপনি চালের পানি প্রতিদিন ব্যবহার করুন। এটি অনেক তাড়াতাড়ি কাজ করে।

টিপস

যেকোন ধরণের ত্বকের জন্য চালের পানি অনেক উপকারি। আপনি এই চালের পানি তৈরির ৫ দিন পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে এটি ব্যবহার করতে পারবেন। সময় পার হয়ে এলে আবারও নতুন করে তৈরি করে নিন এবং পরবর্তী ৫ দিনের জন্য ব্যবহার করুন।
প্রতিদিন চালের পানি ব্যবহার করুন এবং নিজের ত্বককে রাখুন কোমল, মসৃণ এবং প্রাণবন্ত।

 

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ

10 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...