রূপচর্চায় আলুর গুণাগুণ - Shajgoj

রূপচর্চায় আলুর গুণাগুণ

20160718-4430

শুধুই কি ফ্রেঞ্চফ্রাই?নাহ! আলুর আছে আরো নানান গুণ। তাও রুপচর্চায়! ভিটামিন বি আর সি সমৃদ্ধ আলু আপনার স্কিন, বডি আর চুলকে করবে উজ্জ্বল, শীতল আর ঝলমলে। সাথে সাথে অ্যান্টিরিঙ্কেল  হিসেবেও আলুর আছে সু্খ্যাতি। তাই আলুকে আপনার স্কিনের বন্ধু ভাবতেই পারেন। ভাবছেন, আলুকে কাজে লাগাবেন কীভাবে? একেক ধরনের স্কিন প্রব্লেম সামলাতে একেকভাবে আলুকে  ব্যবহার করতে হবে। আসুন দেখি আলুর গুণগুলো কীভাবে কেমন করে কাজে লাগাতে হবে।

চোখের সৌন্দর্যে  আলুর ব্যবহার :

  • ডার্ক সার্কেল ও চোখের ফোলা ভাব কমাতে : চোখে আলুর প্রলেপ ডার্ক সার্কেল কমাতে সব থেকে সেফ এবং ন্যাচারাল পদ্ধতি। আলু পাতলা গোল গোল করে কেটে চোখের ওপর দিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ভালো হয় যদি আলুটা ফ্রিজ রেখে ঠান্ডা করে নেয়া যায়। তাহলে একি সাথে এটা চোখের ফোলা ভাব ও কমিয়ে দিবে।
  • চোখের নিচের রিঙ্কেল কমাতে : আলু ছেচে রস করে এর সাথে মধু মিশিয়ে চোখের নিচে লাগিয়ে আলতো হাতে ম্যাসাজ করতে হবে। নিয়মিত লাগালে আস্তে আস্তে চোখের নিচের রিঙ্কেল দূর হয়ে যাবে।

[picture]

মুখের ত্বকের জন্য আলু :

  • ব্রণের দাগ সারাতে ও উজ্জল ত্বকের জন্য আলু  : ব্রণের দাগ সারাতে আলুর রস সরাসরি দাগের উপর ও লাগাতে পারেন অথবা রস নিয়ে টোনারের মত মুখে লাগিয়ে নিয়ে কিছুক্ষন পরে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বক উজ্জল হয়ে যাবে কয়েক শেড। কয়েকদিনেই বুঝতে পারবেন পার্থক্যটা।
  • এক্সফলিয়েটিং  টোনার : কাচা আলু ছেচে রস বের করে এর সাথে দুই চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা। এটা হাইপার পিগমেন্টেসন, অতিরিক্ত মুখ ঘামান ও স্কিনের মরা চামরা দূর করে স্কিনকে ঝকঝকে করে তুলবে।

ত্বকের রিঙ্কেল সারাতে আলুর বিভিন্ন ব্যাবহার:

  • আলুর ক্লিঞ্জার: একটা  শশা, একটা আলু একসাথে মিশিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। এরসাথে  মিশান এক চা চামচ বেকিং সোডা ও এক চামচ পানি। একটা  বোতল এ ভরে ফ্রিজে রাখুন। প্রতিবার ব্যবহারের আগে ঝাকিয়ে নিন। ব্যস তৈরী হোমমেইড সুদিং ক্লিঞ্জার।
  • অয়েলি স্কিন মাস্ক হিসেবে: আলু ছিলে ভালো মত ছেচে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। এর সাথে মিশাতে হবে এক চা চামচ গোলাপ জল অথবা এক চা চামচ চাল ফুটানো পানি ও এক চা চামচ লেবুর রস। এবার মুখে মেখে কমপক্ষে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  • ড্রাই স্কিন মাস্ক হিসেবে: অয়েলি স্কিনের মাস্ক এর মতই বানাতে হবে শুধু লেবুর রস এর জায়গায় মধু দিতে হবে।
  • অ্যান্টিএজিং মাস্ক হিসেবে: আলু ভালোমত পেস্ট বানিয়ে এর সাথে এক চা চামচ টক দই মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন আধা  ঘণ্টা। ভালোমত মুখ ধুয়ে ফেলুন। দেখুন স্কিনের কোমলতা।
  • ত্বকের উজ্জলতা বাড়ানোর জন্যে মাস্ক: একটা টিস্যু, ওয়াশক্লথ অথবা পেপার টাওয়েল নিয়ে ফ্রেশ আলুর রসে ভিজিয়ে মুখে দিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। নিয়মিত করে দেখুন ফ্লোলেস ত্বক কাকে বলে।

বডির স্কিনে আলুর উপকারীতা 

  • সানর্বান দূর করতে: আলু কেটে নিয়ে সরাসরি সানর্বানের ওপর লাগাতে পারেন অথবা এর রস অ লাগাতে পারেন। পোড়া ভাব একদম চলে যাবে।
  • পোকামাকরের কামড়, ইচিং ও র‍্যাশ এর চিকিৎসায়: আলু কেটে নিয়ে আক্রান্ত জায়গায় চেপে ধরুন। দিনের মধ্যে কয়েকবার করে করুন তাড়াতাড়ি সেরে উঠতে।

চুলের  যত্নে আলু :

  • ময়েশ্চারাইজিং হেয়ার প্যাক: তিন চা চামচ আলুর রস, দুই চা চামচ অ্যালোভেরা জেল ও এক চা চামচ মধু মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে রাখুন এক ঘণ্টা। ড্যামেজ কতটা গভীরের  ওপর নির্ভর করে সময় কম বেশী করবেন। চুল কোমল, মসৃণ চকচকে হয়ে উঠবে নিমিষে।  আলু শুধু খাবার হিসেবে না দেখে একে প্রতিদিনের স্কিন কেয়ারের অনুষঙ্গ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে নিন। ঠকবার কোন প্রশ্নই আসে না। একদম সেইফ এই সবজীটি আপনার ন্যাচারাল সৌন্দর্য্যকে বাড়িয়ে তুলবে ভীষনভাবে।

ছবি –  স্টাইলিশটিপস ডট কম

লিখেছেন –  সুমনা ফাল্গুনী

5 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...