বিশেষ কিছু দিয়ে হোক বছরের শেষ এবং শুরু - Shajgoj বিশেষ কিছু দিয়ে হোক বছরের শেষ এবং শুরু - Shajgoj

বিশেষ কিছু দিয়ে হোক বছরের শেষ এবং শুরু

ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭

নতুন বছরের কিছু নতুন প্রতিজ্ঞা থাকে কারো কারো। এই বছর থেকে আলসেমিকে ছুটি দিয়ে কাজ করবো পুরোদমে, খাবারদাবার কমিয়ে দেবো, এটা-সেটা আরো কতকিছু! সেসব থাকুক বা না থাকুক, অন্তত বছরের শুরুটা সুন্দর হোক এই প্রত্যাশা তো সবারই থাকতে পারে। কেউ আবার বিদায়ী বছরের শেষ ভাগটা আনন্দময় করতে চায় উদযাপনের মাধ্যমে। পুরনো বছর যদি হাসিখুশি বিদায় নেয়, নতুন বছরের শুরুও মন্দ যায় না!

তো আপনি কিছু ভাবছেন কি, বছরকে বিদায় দিতে বিশেষ কিছু হবে কিনা?

বিশেষ কিছু করতে পারেন অনাগত বছরের শুরুতেও। সময়টা খানিক আগে-পরে হোক, আনন্দের উপলক্ষ ততটাই বিশেষ হবে।

পিকনিক তো অলিখিত নিয়মেই শীতের আকর্ষণ। বছর শেষ হবার সময়টায় বা নতুন বছরের প্রথম ছুটির দিনেই পরিবার নিয়ে একদিনের পিকনিকে ঘুরে আসা যায় কাছেধারে কোথাও। দুপুরের রোদে পিঠ পেতে দিয়ে কিংবা গাছের ছায়ায় মাদুরে বসে মধ্যাহ্নভোজন হোক একদিন। ঘরের সোফা কিংবা অফিস আর ক্লাসের চেয়ারের বদলে খোলা মাঠে কাটুক একটা বিকাল, আপন মানুষদের সাথে নিয়ে।

বার্বিকিউ পার্টি কি শুধুই বাচ্চাকাচ্চার খেলা? অবশ্যই নয়! কয়লা, চুলা, পাখা আর একটা ছাদের বন্দোবস্ত হলেই যে কেউ করতে পারে এই আয়োজন। আর হ্যাঁ, যে খাবারের বার্বিকিউ করতে যাচ্ছেন তা তো লাগবেই! শীতের রাতে বাড়ির ছাদে জমজমাট একটা পোড়া মাংসের ভোজ, সাথে আড্ডা, গান, খুনসুটি, আনন্দের জন্য আর কী লাগে? বন্ধুবান্ধব কিংবা পরিবার নিয়ে এই বার তবে করেই ফেলুন বার্বিকিউর আয়োজন।

ফানুশ উড়িয়ে পুরনোকে বিদায় আর নতুনকে স্বাগত জানানো, দুটোই বেশ প্রচলিত আজকাল। অনলাইন পেজগুলো এর মধ্যেই লোভ দেখাচ্ছে রঙবেরঙের ফানুশ নিয়ে। অর্ডার করে ফেলুন কিছু। প্রিয়জনদের সাথে এক সন্ধ্যায় ফানুশ উড়িয়ে দিন, কিছু ভালো মুহূর্ত পাবেন নিঃসন্দেহে। ফানুশ হাতে ছবিও কিন্তু দারুণ ব্যাপার! তেমন একটা ছবির সুযোগ হেলায় হাতছাড়া করবেন কেন?

উপহার দিন নিজেকেই। বিদায়ী সালের হাসিকান্নার স্মারক ধরে রাখার উপহার। নতুন সালকে হাসিমুখে বরণ করার প্রত্যয় নেয়া উপহার। কোনো চিহ্ন যা আপনার সময়টাকে ধরে রাখবে। উপহার দিতে পারেন আপনজনদেও। সম্পর্কের গিঁটগুলো ঝালিয়ে নিতে টুকটাক দেয়া নেয়ার ব্যাপারটা খারাপ নয়!

সবচেয়ে দারুণ যে কাজটা করতে পারেন, নিজের ঘরটাকে কিছুটা নতুন রূপ দিন নতুন বছরের পদার্পণের সাথে। খুব আয়োজনের কিছু নয়। কয়টা নতুন জিনিস যোগ করলেন। দেয়ালে শো-পিস বা ছবির ফ্রেম এলো নতুন। একটা ছোট সাইড টেবিল, ফুলদানি। আসবাবের জায়গা বদল।

ব্যাস, এইতো। বছর নতুন, ঘরটাও নতুন নতুন দেখাক কিছুদিন। এইসব জিনিসে দিনশেষে মনে ভালো অনুভূতিই তো থাকে। চেষ্টা করে দেখুনই না একবার!

ছবি – ইমেজবাজার ডট কম,

লিখেছেন –  মুমতাহীনা মাহবুব