একটি ব্রাইটেনিং সিরামে ত্বক হবে উজ্জ্বল এবং দাগমুক্ত

একটি ব্রাইটেনিং সিরাম ত্বককে করবে উজ্জ্বল!

একটি ব্রাইটেনিং সিরাম ত্বক করবে উজ্জ্বল!

আপনার ত্বক কি দিনদিন মলিন ও অনুজ্জ্বল হয়ে যাচ্ছে? এর সাথে ডার্ক স্পট, আনইভেন স্কিনটোন আর পিগমেন্টেশনের সমস্যা? ত্বকে এমন সব সমস্যা আমাদের সবারই কমবেশি দেখা যায়। কেমন হয় যদি এ সমস্যাগুলো থেকে মুক্তি পাওয়া যায় একটি ব্রাইটেনিং সিরামে? আজকে বলবো এমনই একটি সিরামের কথা, যা ত্বককে দিবে ডার্ক স্পট বা ত্বকের কালো দাগ থেকে মুক্তি, সানট্যান আর আনইভেন টোন দূর করে ত্বককে করবে উজ্জ্বল। আর সিরামটি হচ্ছে- লাইলাক ব্রাইটেনিং সিরাম। আমার নিজের ত্বকেও এই সমস্যাগুলো ছিল। আর আমি বেশ কিছুদিন ধরে সিরামটি ব্যবহার করছি তাই ভাবলাম আপনাদের সাথে রিভিউ শেয়ার করা যাক। একটি ব্রাইটেনিং সিরাম ত্বক করবে উজ্জ্বল!

লাইলাক ব্রাইটেনিং সিরাম হাতে একজন

কী কী আছে লাইলাক ব্রাইটেনিং সিরামে?

সিরাম হচ্ছে আমাদের ত্বকের জন্য স্পেশালি ফর্মুলেটেড প্রোডাক্ট, যা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যাকে টার্গেট করে কাজ করে। লাইলাক ব্রাইটেনিং সিরামে রয়েছে-

  • আলফা আরবুটিন ২%
  • কোজিক এসিড ১%
  • সোডিয়াম হায়ালুরোনেট
  • অ্যালোভেরা এক্সট্র্যাক্ট
  • লিকোরিস রুট এক্সট্র্যাক্ট
  • সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড
  • সিট্রিক এসিড
  • সোডিয়াম বেনজোয়েট

এছাড়া ত্বকের জন্য জন্য কার্যকরী আরও বিভিন্ন উপাদান। এখন সিরামটিতে থাকা দুটি প্রধান ইনগ্রিডিয়েন্টস এর কার্যকারিতা সম্পর্কে বলা যাক।

সিরামটি যেভাবে কাজ করে আমাদের ত্বকে

  • স্কিনটোনকে ব্রাইট করতে সাহায্য করে।
  • ত্বকের দাগ কিংবা বিভিন্ন স্পট দূর করে।
  • অ্যান্টি এজিং এ কাজ করে অর্থাৎ ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে।
  • ত্বকের হাইপার পিগমেন্টেশনকে কমিয়ে আনে।
  • সূর্যের আলোর প্রভাবে আমাদের ত্বকে সানট্যান, সানবার্ন সহ বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। আর সিরামটি এসব সমস্যা থেকে আমাদের ত্বককে সুরক্ষা দেয়।
  • ত্বকে থাকা একনে বা ব্রণের দাগ, পিগমেন্টেশন কমিয়ে ত্বককে করে ইভেন।

কীভাবে কাজ করে এই সিরামটি?

অনেকেই ভাবছেন কীভাবে কাজ করে এই সিরামটি? এই সিরামটির ইনগ্রিডিয়েন্টস লিস্টে নিশ্চয়ই দেখেছেন এর প্রধান দুটি ইনগ্রিডিয়েন্টস হচ্ছে আলফা আরবিউটিন এবং কোজিক এসিড। প্রধানত এই দুইটি উপাদানই সিরামটির কার্যকারিতাকে বাড়িয়ে দিয়েছে, যা একটি ব্রাইটেনিং সিরাম ত্বক করবে উজ্জ্বল!। তাই এই দুটি ইনগ্রিডিয়েন্টস নিয়ে না বললেই নয়। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক আলফা আরবিউটিন ও কোজিক এসিডের কার্যকারিতা সম্পর্কে।

lilac brightening serum
আলফা আরবুটিন ২% এর কার্যকারিতা 

আলফা আরবিউটিন হচ্ছে একটি সেইফ ব্রাইটেনিং ইনগ্রিডিয়েন্ট। এটি স্কিনকে ব্রাইট করার পাশাপাশি ত্বকের পিগমেন্টেশন কমায়, ডার্ক স্পট রিমুভ করে এবং ত্বকে একটি ইভেন কমপ্লেকশন আনতে সাহায্য করে। ত্বকের যেকোনো স্পট, একনে স্কারস অথবা পোস্ট ব্লেমিশ রেডনেস, যা-ই হউক না কেন আলফা আরবিউটিন তা দূর করতে সাহায্য করে।

কোজিক এসিড ১% এর কার্যকারিতা

কোজিক এসিড স্কিনে লাইটেনিং ইফেক্ট দিতে বেশ কার্যকরী এবং এই সিরামটিতে আছে ১% কোজিক এসিড। এই সিরামটিতে কোজিক এসিড থাকার কারণে স্কিনের বিভিন্ন রকমের দাগ, যেমন- হাইপারপিগমেন্টেশন, ভিসিবল সান ড্যামেজ, ব্রণের দাগ সহ বিভিন্ন স্পট দূর করে। এছাড়া কোজিক এসিডে আছে অ্যান্টি মাইক্রবিয়াল প্রোপার্টিক, যা ত্বকে ব্রণ বা একনে কমাতে সাহায্য করে।

আমার ত্বকে যেভাবে কাজ করেছে সিরামটি

আমি ত্বকের প্রধান সমস্যা হচ্ছে ত্বকে একনে এবং একনে থেকে হওয়া বিভিন্ন দাগ। এর সাথে সান ড্যামেজ হয়ে আনইভেন স্কিনটোন। আমি বেশ কিছুদিন ধরে এই সিরামটি ব্যবহার করছি এবং ত্বকে ভিজিবল একটি চেঞ্জ লক্ষ্য করেছি। এখন শেয়ার করছি আমার এক্সপেরিয়েন্স।

১। আমার ত্বকে সানট্যান পড়ে কালচে ভাব ছিল। যা এই সিরামটি ব্যবহারে অনেকটা কমে এসেছ।

২। ত্বকে অ্যাকটিভ একনের সমস্যা ছিল। সিরামটি ব্যবহারের পর থেকে একনে কিংবা পিম্পল হওয়া কমে এসেছে।

৩। ত্বকে পিম্পল থাকার কারণে ফেইসে ডার্ক স্পট পড়ে গিয়েছিল, যা কোনো ভাবেই দূর হচ্ছিল না। কিন্তু সিরামটি ব্যবহারের পর থেকে ধীরে ধীরে দাগগুলো দূর হচ্ছে।

৪। ঠোঁটের চারপাশে পিগমেন্টেশন এবং কালচে ভাব ছিল। তা ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে।

আমার ত্বকের এ সমস্যাগুলো থাকার কারণে ত্বক মলিন ও অনুজ্জ্বল মনে হতো। কিন্তু এই সিরামটি ব্যবহারের পর থেকে ত্বকের এই সমস্যাগুলো কমে এসেছে। আর এর ফলে ত্বক খুবই ফ্রেশ এবং উজ্জ্বল মনে হচ্ছে।

কীভাবে ও কখন ব্যবহার করবেন?

স্টেপ ১:

প্রথমে ডাবল ক্লেনজিং পদ্ধতিতে ভালো ভাবে ফেইস ক্লিন করে নিন। আর অবশ্যই ত্বকের জন্য উপযোগী ফেইসওয়াশ ব্যবহার করুন।

স্টেপ ২: 

ক্লিন করা হয়ে গেলে ভেজা ফেইস টাওয়াল দিয়ে মুছে স্কিন টাইপ অনুযায়ী টোনার ব্যবহার করুন। আর যদি টোনার ব্যবহার না করতে চান, তাহলে ড্রপার দিয়ে অল্প কয়েক ফোঁটা সিরাম গাল, কপাল, নাক এবং চিবুকের অংশে আলতো ভাবে ড্যাব করে মিশিয়ে নিন।

এই সিরামটি আপনি দিনে এবং রাতে দুই বেলাতেই ব্যবহার করতে পারবেন। দিনের বেলা ব্যবহার করলে সাথে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

কোথায় পাবেন?

আমি লাইলাক ব্রাইটেনিং সিরামটি কিনেছি শপ.সাজগোজ.কম থেকে। এটি একটি ব্রাইটেনিং সিরাম ত্বক করবে উজ্জ্বল! অথেনটিক প্রোডাক্টের জন্য সাজগোজই আমার ভরসা। আপনারা স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের অথেক্টিক প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ ভিজিট করতে পারেন, যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

ছবি- সাজগোজ

 

141 I like it
17 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...