স্কিন টোন অনুযায়ী ফাউন্ডেশন লাইট বা ডার্ক করার ইজি হ্যাকস!

স্কিন টোন অনুযায়ী ফাউন্ডেশন লাইট বা ডার্ক করার ইজি হ্যাকস!

final 1

দোকানে ঘুরে ঘুরে, অনেকগুলো ফাউন্ডেশন থেকে বেছে বেছে নিজের স্কিন টোন অনুযায়ী পছন্দের শেইডটি বাসায় নিয়ে আসলেন। মনে মনে ভাবলেন, এই তো নিজের স্কিন টোন বুঝে ফাউন্ডেশন শেইড কীভাবে কিনতে হয় বুঝে গিয়েছেন! বাড়িতে ফিরেই বাঁধলো বিপত্তি! ইউজ করতে গিয়ে দেখলেন শেইডটি একদম স্কিনের সাথে মানাচ্ছে না। তাহলে উপায়? এমন সমস্যায় যদি আপনিও পড়ে থাকেন তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্যই। আজকে জানাবো কীভাবে লাইট বা ডার্ক শেইডের ফাউন্ডেশনের শেইড চেঞ্জ করে স্কিন টোন অনুযায়ী প্রিপেয়ার করা যায়।

স্কিন টোন অনুযায়ী লাইট ফাউন্ডেশনকে যেভাবে ডার্ক করা যায়

স্কিন টোন অনুযায়ী ব্রঞ্জার ও ফাউন্ডেশন মিক্স

১) ব্রঞ্জার ও ফাউন্ডেশন মিক্স 

ফাউন্ডেশন ডার্ক করার জন্য ব্রঞ্জার ইউজ করা খুব ইজি একটি ওয়ে। ব্রঞ্জার যে শুধু ফাউন্ডেশন শেইডকে ডার্ক করে তাই নয়, ফেইসে আনে সান-কিসড লুক। এই ইজি হ্যাকসটি সবার জন্য তো বটেই, বিশেষ করে যাদের স্কিন টোন ব্রাউন তাদের জন্য মাস্ট ট্রাই! পুরো ফেইসে যদি কেউ সান-কিসড লুক না চান, তাহলে জাস্ট চিক, নোজ, ফোরহেড আর চিন এরিয়াতে লাগিয়ে নিলেও পারফেক্ট লুক পাওয়া যাবে।

২) অ্যাড ব্লাশ 

এই হ্যাকসটি বেশ কাজে আসবে যাদের পিংকিশ আন্ডারটোন রয়েছে। প্রথমে হাতে একটু ব্লাশ নিয়ে তাতে ফাউন্ডেশন ভালোভাবে মিক্স করে নিন। এবার ফেইসে স্পঞ্জ দিয়ে অ্যাপ্লাই করুন। যে কোনো অকেশনের জন্য পারফেক্ট সফট পিংকিশ গ্লো পাবেন খুব সহজে!

৩) বিবি ক্রিমের ব্যবহার 

প্রতিদিন মেকআপ না করা হলেও বিবি ক্রিম আমরা অনেকেই ইউজ করি। এই ক্রিমও কিন্তু লাইট ফাউন্ডেশন ডার্ক করতে বেশ হেল্প করবে। তবে হ্যাঁ, সবার আগে দেখতে হবে ক্রিমটি আপনার স্কিন টোনের সাথে ম্যাচ করে কিনা। বিবি ক্রিমের সাথে ফাউন্ডেশন মিক্স করে নিলে আগের চেয়ে কিছুটা ডার্ক হবে। এবার ন্যাচারাল স্কিন টোন পেতে অ্যাপ্লাই করে নিন।

৪) ইউজ কনসিলার  

আপনার কাছে যদি স্কিন টোন অনুযায়ী কনসিলার থাকে, তাহলে ফাউন্ডেশনে কয়েক ড্রপ মিক্স করে নিন। মিক্স করা মানে কিন্তু একবারে অনেকখানি কনসিলার মিশিয়ে দেওয়া নয়। লাইট ফাউন্ডেশনকে ওয়ার্ম টোনে নিয়ে আসার জন্য খুব অল্প পরিমাণে কয়েক ড্রপ ডার্ক কনসিলার মেশাতে হবে। কনসিলারের পরিমাণ বেশি হয়ে গেলে ফাউন্ডেশন বেশি ডার্ক হয়ে যেতে পারে। এতে কিন্তু মেকআপ দেখতে একদমই ভালো লাগবে না।

স্কিন টোন অনুযায়ী কনসিলার ইউজ করা

৫) ফেইস পাউডার ও ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড  

মেকআপের অ্যাসেনশিয়াল একটি পার্ট হচ্ছে ফেইস পাউডার। অনেক মেকআপ প্রবলেমকে কুইক ফিক্স করা যায় এর সাহায্যে। ফাউন্ডেশন অ্যাপ্লাইয়ের পর ফেইস পাউডার দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিন।

৬) ডার্ক ও লাইট শেইডের ফাউন্ডেশন মিক্স  

অন্য কোনো আইডিয়া যদি আপনি নাও জেনে থাকেন এটার কথা হয়তো একবার হলেও আপনার ভাবনায় আসতে পারে। ঠিকই ধরেছেন! লাইটকে ডার্ক করার জন্য আপনি ইজিলি ইউজ করতে পারেন ডার্কার শেইডের একটি ফাউন্ডেশন। এখানকার ট্রিকসটা হচ্ছে, ডার্ক ফাউন্ডেশনটি কয়েক ড্রপ করে লাইটটির সাথে মিক্স করতে হবে। যতক্ষণ আপনার পছন্দের শেইড না আসছে ততক্ষণ মিক্স করতে থাকুন। খেয়াল রাখবেন, শেইডটি যেন আবার বেশি ডার্ক না হয়ে যায়!

লাইট ফাউন্ডেশন যেভাবে ইউজ করা যায়

অনেকের কাছে লাইট ফাউন্ডেশন ডার্ক করা কিছুটা ঝামেলা মনে হতে পারে। তাই বলে কি ফেলে দেবেন বা ইউজ করবেন না ভাবছেন? কোনোটাই করার দরকার নেই। কীভাবে লাইট ফাউন্ডেশনও ইজিলি ইউজ করতে পারবেন তার কয়েকটি টিপস জেনে নেই চলুন-

১) হাইলাইটার হিসেবে 

মেকআপ মানেই যে খুব হার্ড রুলস ফলো করতে হয় এমন নয়। লাইট ফাউন্ডেশন কিন্তু খুব ভালো হাইলাইটার হিসেবে ইউজ করা যায়। চিক, নোজ, ফোরহেড ও বোল্ড কন্টোর্ড লুক পেতে চিন এরিয়াতে লাগিয়ে নিন এই ফাউন্ডেশন। ব্যস! যে কোনো অকেশনের জন্য আপনি একদম রেডি!

হাইলাইটার

২) ডার্ক মেকআপকে লাইট করতে

আপনার কাছে এমন কোনো মেকআপ প্রোডাক্ট থাকতে পারে যেটি হয়ত বেশ ডার্ক। সেই প্রোডাক্টকে লাইট করার জন্য এটি ইউজ করা যায়। তবে কিন্তু ইউজ করতে হবে খুব অল্প পরিমাণই!

ফাউন্ডেশন ডার্ক হলে কী করবো?

লাইট ফাউন্ডেশন হলে কীভাবে ডার্ক করা যায় সেই উপায় তো জানা হলো। কিন্তু যদি উল্টোটা হয়? ডোন্ট ওরি! এর সল্যুশনও আছে! চলুন জেনে নেই ডার্ক ফাউন্ডেশনকে লাইট করার ইজি কয়েকটি ওয়ে-

১) ফিনিশিং পাউডারের ব্যবহার

ডার্ক ফাউন্ডেশনকে লাইট করার জন্য ফিনিশিং পাউডার ইউজ করতে পারেন। যেহেতু এই পাউডারটি এমনিতেই লাইট কালারের হয়, তাই ফাউন্ডেশনকে লাইট করার জন্য এটি বেশ হেল্পফুল।

২) ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার

যদি ফাউন্ডেশন ডার্ক হয়, ময়েশ্চারাইজার দিয়ে খুব ইজিলি ফাউন্ডেশনের পিগমেন্টেশন লাইট করা যায়।

৩) লাইটার শেইডের ফাউন্ডেশন দিয়ে ব্লেন্ড করা

যদি আপনার কাছে লাইট কালারের ফাউন্ডেশন থাকে, তাহলে সেটা দিয়েও ডার্ক ফাউন্ডেশন লাইট করা যায়। ডার্কটির সাথে কয়েক ড্রপ লাইট ফাউন্ডেশন ভালোভাবে মিক্স করে স্কিন টোন অনুযায়ী বানিয়ে নিন আপনার জন্য পারফেক্ট ফাউন্ডেশন শেইড!

 

এই তো জেনে নিলেন, ডার্ক ও লাইট ফাউন্ডেশন নিয়ে বেশ কয়েকটি হ্যাকস। অথেনটিক যে কোনো মেকআপ প্রোডাক্টস কেনার জন্য আমার ভরসার জায়গা সাজগোজ। মেকআপসহ স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের যে কোনো প্রোডাক্ট কিনতে সাজগোজের চারটি শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার এবং উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) থেকে অথবা অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকেও কিনতে পারেন।

ছবিঃ সাজগোজ

44 I like it
10 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...