হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইন করা সম্ভব হচ্ছে না কোন ভুলের কারণে?

হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইন করা সম্ভব হচ্ছে না কোন ভুলের কারণে?

khushbu

হেলদি ও গ্লোয়িং স্কিনের জন্য স্কিন ব্যারিয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলেও এর দিকে নজর দিতে আমরা প্রায়ই ভুলে যাই। তাই সুন্দর স্কিনের জন্য স্কিন ব্যারিয়ারকে কিন্তু একদমই অবহেলা করা যাবে না। কিছু ভুলের জন্য আমরা নিজের অজান্তেই নিজেদের স্কিন ব্যারিয়ারকে নষ্ট করে ফেলছি। তাই আজকের আর্টিকেলে জানাবো কীভাবে এই ভুলগুলো এড়িয়ে আমরা হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইন করতে পারি সে সম্পর্কে।

হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার কী?

আমাদের স্কিনে এপিডার্মিস হচ্ছে সবথেকে টপ লেয়ার, যা স্কিনের ভিতরের লেয়ারগুলোকে প্রোটেক্ট করে। এই লেয়ারে আছে লিপিড ম্যাট্রিক্স যা কোলেস্টেরল, ফ্যাটি অ্যাসিড এবং সিরামাইড দিয়ে তৈরি। এই ডার্মিস লেয়ার আমাদের স্কিনকে প্লাম্পি ও গ্লোয়িং রাখতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি এটি স্কিনকে এনভায়রনমেন্টাল পল্যুশন থেকে রক্ষা করে এবং স্কিনের ওয়াটার লস প্রিভেন্ট করে স্কিনকে সবসময় হাইড্রেটেড রাখে। এই লেয়ার ড্যামেজ হলে স্কিন ড্রাই, ডিহাইড্রেটেড ও ডাল হয়ে যায় এবং বাহিরের ধুলাবালি খুব সহজেই স্কিনে প্রবেশ করতে পারে‌। এতে করে স্কিনের ওভারঅল গ্লো নষ্ট হয়ে যায় এবং স্কিনকেয়ারও ঠিকমতো কাজ করতে পারে না।

হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার

ড্যামেজড স্কিন ব্যারিয়ারের কিছু লক্ষণ
  • অতিরিক্ত ড্রাই ও ফ্লেকি স্কিন
  • ইরিটেটেড ও ডাল স্কিন
  • ইনফ্ল্যামেশন হয়ে স্কিন লালচে হয়ে যাওয়া
  • স্কিনে ব্রেকআউট ও জ্বালাপোড়া হওয়া

কোন ভুলের কারণে এমন হচ্ছে?

অতিরিক্ত অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্টের ব্যবহার

হেলদি ও গ্লোয়িং স্কিন পেতে মাঝে মাঝে আমরা অনেক এক্সটেনসিভ স্কিনকেয়ার রুটিন ফলো করে থাকি, যেখানে অনেক সময় একাধিক অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট থাকে। এতে কিন্তু অনেক সময় স্কিনে ইনফ্ল্যামেশন দেখা দেয়। আমাদের উচিত সবসময় স্কিনের কনসার্ন বুঝে দুই একটার বেশি অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট স্কিনকেয়ার রুটিনে না রাখা। ঘন ঘন স্কিনকেয়ার রুটিন পাল্টানো এবং স্ট্রং স্কিন ট্রিটমেন্টও হতে পারে দুর্বল স্কিন ব্যারিয়ারের কারণ।

হার্শ ক্লেনজারের ব্যবহার

আমাদের স্কিন ন্যাচারালি স্লাইটলি অ্যাসিডিক থাকে, ফলে সঠিক ক্লেনজার ব্যবহার না করায় স্কিনের পিএইচ লেভেল কমবেশি হয়ে স্কিন ব্যারিয়ার নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এছাড়াও হার্শ ক্লেনজার ত্বকের ন্যাচারাল অয়েল স্ট্রিপ করে ফেলে, যাতে করে স্কিন ব্যারিয়ার ফাংশন নষ্ট হয়ে যায়। এতে ত্বক হয়ে যায় রুক্ষ ও শুষ্ক। তাই আমাদের উচিত আমাদের স্কিন টাইপ অনুযায়ী মাইল্ড ও জেন্টল ক্লেনজার ব্যবহার করা। অনেকক্ষণ ফেইস ওয়াশ দিয়ে ফেইস ক্লিন করা এবং মাইসেলার ওয়াটার কিংবা ক্লেনজিং ওয়াটার ওয়াশ অফ না করাও কিন্তু আমাদের স্কিন ব্যারিয়ার নষ্ট করে দিচ্ছে।

হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইন করার জন্য হার্শ ক্লেনজার অ্যাভয়েড করতে হবে

অতিরিক্ত ঠান্ডা কিংবা গরম পানি দিয়ে মুখ ধোয়া

অতিরিক্ত টেম্পারেচারের পানি স্কিনের ন্যাচারাল অয়েল স্ট্রিপ করে ফেলে। তাই হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইন করতে আমাদের উচিত হালকা কুসুম গরম পানিতে মুখ ধোয়া‌।

ওভার এক্সফোলিয়েশন

এক্সফলিয়েশনে রয়েছে ত্বকের নানা ধরনের বেনেফিট। তবে ওভার এক্সফোলিয়েশন স্কিন ব্যারিয়ার নষ্ট করে দিতে পারে। বড় বিডসের তৈরি হার্শ স্ক্রাব ব্যবহার করলে স্কিনে মাইক্রোটিয়ারস দেখা দিতে পারে, তাই সবসময় জেন্টল এক্সফলিয়েটর ইউজ করতে হবে। কেমিক্যাল এক্সফোলিয়েটর স্কিনকে জেন্টলি এক্সফোলিয়েট করার জন্য অনেক ভালো একটি অপশন। তবে খেয়াল রাখতে হবে, এটা সপ্তাহে ২/৩ দিনের বেশি ব্যবহার করা যাবে না, অতিরিক্ত হাই কনসেনট্রেশনে ব্যবহার করা যাবে না এবং অবশ্যই স্কিন টাইপ অনুযায়ী এক্সফোলিয়েটর ব্যবহার করতে হবে।

কন্ট্যাক্ট ডার্মাটাইটিস

কন্ট্যাক্ট ডার্মাটাইটিস, যেটা কিনা হাত থেকে ছড়ানো জীবাণু থেকে হয়ে থাকে, এর কারণেও স্কিনে ইনফ্ল্যামেশন হতে পারে। সুতরাং আমাদের মুখে বারবার হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে এবং স্কিনকেয়ারের আগে ভালোভাবে হাত ক্লিন করে নিতে হবে।

কন্ট্যাক্ট ডার্মাটাইটিস

ফ্রেগ্রেন্স

অ্যাসেনশিয়াল অয়েল অথবা ফ্রেগ্রেন্সসহ স্কিনকেয়ার প্রোডাক্ট ব্যবহার করাতেও অনেক সময় স্কিন ইরিটেটেড হয়ে স্কিন ব্যারিয়ার দুর্বল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এছাড়াও এনভায়রনমেন্টাল পল্যুশন, ডায়াবেটিসের মতো মেডিকেল কন্ডিশন, খুব দ্রুত ওয়েদার চেঞ্জ এবং অ্যালার্জির কারণেও স্কিন ব্যারিয়ার উইক হয়ে যায়। স্কিন ব্যারিয়ার ঠিক করতে উপরের দেওয়া টিপস এর পাশাপাশি আমাদের ফলো করতে হবে একটি সিম্পল রুটিন। স্কিন কেয়ারে রাখতে হবে একটি জেন্টল ক্লেনজার, একটি ভালো হিউমিকটেন্ট যেমন- গ্লিসারিন ও হায়ালুরোনিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ সিরাম এবং একটি ভালো সানস্ক্রিন। এছাড়াও এ সময় আমাদের উচিত ফ্যাটি অ্যাসিড, কোলেস্টেরল ও সিরামাইড যুক্ত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা। কিছুদিনের জন্য এক্সফোলিয়েশন বন্ধ রাখা ভালো, কারণ এ সময় স্কিন রিকভারি হতে দেওয়া হলো আমাদের মেইন টার্গেট। ভ্যাসলিন দিয়ে স্কিন স্লাগিংও করা যেতে পারে, কারণ এটি বাজারের সব থেকে সেরা অক্লুসিভ এর মধ্যে একটি এবং এটি ৯৯% পর্যন্ত স্কিনের ওয়াটার লস প্রিভেন্ট করে।

 

এই তো জেনে গেলেন, হেলদি স্কিন ব্যারিয়ার মেনটেইনের সব থেকে বড় রহস্য। এবার উপরের টিপস ফলো করে আপনিও পেতে পারেন গ্লোয়িং ও রেডিয়েন্ট স্কিন। তাই আর দেরি না করে শপ.সাজগোজ.কম অথবা সাজগোজের কয়েকটি শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার, ইস্টার্ন মল্লিকা, ওয়ারীর র‍্যাংকিন স্ট্রিট, বসুন্ধরা সিটি, উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে), মিরপুরের কিংশুক টাওয়ার এবং চট্টগ্রামের খুলশি টাউন সেন্টার থেকে আপনার পছন্দের সব অথেনটিক প্রোডাক্ট কিনে ফেলুন।

ছবিঃ সাজগোজ

4 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...