উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য ঘরোয়া উপায় আছে কি?

উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য ঘরোয়া উপায় আছে কি?

উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য ঘরোয়া উপায় ব্যবহারকারী একজন

সূর্যের তাপে, সারাদিনের ব্যস্ততা আর স্ট্রেসে ফেইসটা দিন দিন মলিন হয়ে যাচ্ছে। মাঝে মাঝেই মনে হয় যেন ফেইসে আগের মতো আর লাবণ্য নেই! এর জন্য কী করা যেতে পারে সেটা ভেবে ভেবে আমাদের অনেকেরই সময় নষ্ট হয়। তবে আমরা এমন কিছু দিয়েই আমাদের ফেইসের লাবণ্য ফিরিয়ে আনতে চাই যা হবে একদম প্রাকৃতিক। এমনটাই ভাবছেন, তাই না? পার্লারে যেয়ে অথবা কেমিক্যাল কোনো স্কিনকেয়ার প্রোডাক্ট ইউজ করার চেয়ে আমরা অনেকেই ঘরে বসে রূপচর্চা করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার সাথে সাথে আমরা চাই আমাদের ত্বকটা পরিষ্কার ও রিফ্রেশিং থাকুক সব সময়। উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য ঘরোয়া কোনো উপায় আছে কী? এই প্রশ্নের উত্তর থাকছে আজকের আর্টিকেলে।

ত্বক উজ্জ্বল রাখতে প্রাকৃতিক কিছু উপাদান

ত্বকের হারিয়ে যাওয়া উজ্জ্বলতা পাওয়ার জন্য বেশি কিছুর প্রয়োজন হয় না। ঘরোয়াভাবেই যত্ন নিয়ে ব্রাইট স্কিন পেতে পারেন, তবে বেসিক স্কিনকেয়ার রুটিন ফলো করা মাস্ট। ন্যাচারাল ওয়েতে স্কিনের ব্রাইটনেস কীভাবে পাবো? কোন উপাদানগুলো ত্বক উজ্জ্বল করে? চলুন চট করে দেখে নিই।

শঙ্খ শেল পাউডার, চন্দন পাউডার, কমলার খোসার পাউডার, মুলতানি মাটি – এই উপাদানগুলো ন্যাচারালি উজ্জ্বল ও সুন্দর ত্বক পেতে দারুণ কাজ করে। এখন হয়তো ভাবছেন, এই উপাদানগুলো কীভাবে পাবেন, তাই তো? ভাবনার তেমন কোনো কারণ নেই! কারণ সবগুলো উপাদান আপনি পেয়ে যাবেন স্কিন ক্যাফে ব্রাইটেনিং মাস্কে। ব্রাইট স্কিন পাওয়ার ইজি ও শর্ট কাট উপায় বলে দিলাম! একটি মাস্ক ব্যবহার করেই এসব উপাদানের উপকারিতা পেয়ে যাবেন খুবই অল্প সময়ে।

স্কিন ক্যাফে ব্রাইটেনিং মাস্ক

উপাদানগুলো স্কিনের জন্য কী কী কাজ করে?

শঙ্খ শেল পাউডার

শঙ্খ শেল পাউডার ব্রণের দাগ হালকা করে। স্কিনে যদি কোনো রকম র‍্যাশ, ইনফেকশন থাকে, তবে তা আস্তে আস্তে কমিয়ে আনে এই শঙ্খ শেল পাউডার। এটা স্কিনে রিফ্রেশিং একটা ফিল দেয়। স্কিনকে স্মুথ করার পাশাপাশি স্কিনকে ন্যাচারালি ব্রাইট রাখতে খুবই উপকারি একটি প্রাকৃতিক উপাদান এটি।

চন্দন পাউডার

যুগ যুগ ধরেই চন্দন রূপচর্চায় ব্যবহার হয়ে আসছে। চন্দন পাউডার সবার কাছেই খুব পরিচিত একটি প্রাকৃতিক উপাদান। চন্দন ব্যবহারে স্কিন যেমন উজ্জ্বল হয়, ঠিক তেমনই স্কিনে পিগমেন্টেশনের প্রবলেম থাকলেও তা আস্তে আস্তে কমে আসে।

কমলার খোসার পাউডার

কমলার খোসায় রয়েছে ভিটামিন সি, যা স্কিনের কোলাজেন এবং ইলাস্টিন প্রোডাকশন বাড়ায়, ফলে স্কিনে একটা ব্রাইট লুক আসে। এটা পোরকে ডিপলি ক্লিন করে, যার কারণে ব্ল্যাকহেডস রিমুভ হয়। স্কিনে যদি ব্রণের দাগ থাকে, তবে তা আস্তে আস্তে হালকা হয়।

মুলতানি মাটি

মুলতানি মাটি স্কিন থেকে অতিরিক্ত সিবাম ও অয়েল রিমুভ করে। স্কিনের ডিপ লেয়ার থেকে ময়লা, ঘাম পরিষ্কার করে আনে। স্কিনে পিগমেন্টেশনের প্রবলেম থাকলে মুলতানি মাটি ব্যবহারে তা দূর হয়ে যায়। এটি সানট্যান, স্কিনের র‍্যাশ কমিয়ে ফেলে প্রাকৃতিকভাবেই।

কীভাবে ব্যবহার করবো? 

এই ফেইস মাস্কটি ড্রাই, অয়েলি ও কম্বিনেশন স্কিনের যারা আছেন, সবাই ইউজ করতে পারবেন। কীভাবে ব্যবহার করতে পারেন, চলুন তা জেনে নেই এখনই।

অয়েলি ও কম্বিনেশন স্কিনে ব্যবহারের নিয়ম

১। এক টেবিল স্পুন স্কিন ক্যাফে ব্রাইটেনিং মাস্কের সাথে পরিমাণমতো পানি নিয়ে ভালোভাবে মিক্স করে পেস্ট করে নিতে হবে।

২। এরপর পুরো ফেইস ভালোভাবে পরিষ্কার করে পেস্টটি ফেইস এবং গলায় লাগাতে হবে। মনে রাখতে হবে আই এরিয়া ও ঠোঁটে যেন তা না লাগে।

৩। মাস্কটি লাগানো হয়ে গেলে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে।

৪। ১৫ মিনিট পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ড্রাই স্কিনে ব্যবহারের নিয়ম 

১। এক টেবিল স্পুন স্কিন ক্যাফে ব্রাইটেনিং মাস্কের সাথে পরিমাণমতো টকদই নিয়ে ভালোভাবে মিক্স করে পেস্ট করে নিতে হবে।

২। এরপর পরিষ্কার ফেইসে স্কিন ক্যাফে ব্রাইটেনিং মাস্ক এর পেস্টটি ভালোভাবে লাগাতে হবে।

৩। মাস্কটি লাগানো হয়ে গেলে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। চাইলে হাতে, পায়েও লাগানো যায়।

৪। এই মাস্কটি সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করতে পারেন।

সংরক্ষণের উপায়

প্যাকেটটি খোলার পর ভিতরে একটা জিপ করা আরেকটি প্যাকেট পাওয়া যাবে। এর মধ্যেই এয়ারটাইটভাবে মাস্ক আছে। যতটুকু প্রয়োজন ঠিক ততটুকু পাউডার নিয়ে প্যাকেটটি আবার জিপ করে আটকিয়ে রাখা যাবে। এয়ারটাইট প্যাকেট হওয়ার কারণে প্যাকেটের ভিতরে বাতাস ঢুকতে পারে না। এতে করে মাস্কের পাউডার ভালোভাবে সংরক্ষণ করা যায় এবং অনেকদিন ধরে ব্যবহার করা যায়। কখনোই ভেজা স্পুন দিয়ে মাস্ক প্যাকেট থেকে বের করবেন না। পরিষ্কার হাতে হাইজিন মেনটেইন করে প্যাক প্রস্তুত করবেন।

এই তো জানিয়ে দিলাম, উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য ঘরোয়া উপায়গুলো। যদি প্রাকৃতিক উপায়ে আর ঘরোয়াভাবে এত সহজে স্কিনের পরিচর্যা করা যায়, তবে তো এর থেকে ভালো আর কিছু হতেই পারে না, তাই না? সেই সাথে বেসিক স্কিনকেয়ার রুটিন ফলো করবেন, প্রচুর পানি পান করবেন, হেলদি লাইফস্টাইল মেনে চলবেন। আপনারা চাইলে সাজগোজের চারটি ফিজিক্যাল শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার এবং উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন।

 

ছবি- সাজগোজ

37 I like it
8 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...