চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কীভাবে ব্যবহার করবেন?

চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কীভাবে ব্যবহার করবেন?

arusha

অনেকের মুখেই আক্ষেপ করে বলতে শোনা যায়, ‘ইশ! যদি এমন একটা ম্যাজিকাল উপাদান পেতাম, যা চুলের সব সমস্যা সমাধান করবে!’ তাদের জন্য বলছি, এমন একটা উপাদান কিন্তু আছে যা চুলের নানা রকম সমস্যার সমাধান করবে। সেই জাদুকারী উপাদানটির নাম ‘অ্যাপেল সিডার ভিনেগার’। অনেকেই এই নামটির সাথে পরিচিত। ওজন কমাতে এর নাম সবচেয়ে বেশি শোনা গেলেও সেলফ কেয়ারেও এটি অনেক কার্যকর। চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কেন ব্যবহার করবেন, কীভাবে এটি ব্যবহার করা যায়, কী কী বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত, এইসব কিছু নিয়ে আজকের ফিচার।

চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কতটুকু বেনিফিসিয়াল?

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার একটি শক্তিশালী প্রাকৃতিক উপাদান। এতে রয়েছে অ্যাসিটিক এসিড, সাইট্রিক এসিড ও ম্যালিক এসিড। চুলের জন্য পিএইচ লেভেল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। স্ক্যাল্পের পিএইচ লেভেল রিস্টোর এবং ব্যালেন্স করতে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কার্যকরী ভূমিকা রাখে। চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগারের বিভিন্ন ব্যবহার নিয়ে আজকে আলোচনা। আগে জেনে নেওয়া যাক অ্যাপেল সিডার ভিনেগারের উপকারিতাগুলো কী কী।

১) অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল প্রোপার্টি

অ্যাপেল সিডার ভিনেগারে রয়েছে অ্যান্টি ফাঙ্গাল, অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি প্রোপার্টিজ, যা স্ক্যাল্পের বিভিন্ন জীবাণুর বিরুদ্ধে কাজ করে। এই জীবাণুগুলো চুল পড়ার অন্যতম কারণ।

২) লো পিএইচ

ফ্রুট ভিনেগার এবং অ্যাসিটিক এসিড এর সমন্বয়ে তৈরি হয় অ্যাপেল সিডার ভিনেগার, যা স্ক্যাল্পের পিএইচ লেভেলের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৩) ক্ষত নিরাময়

ফ্যাঙ্গাল এবং ব্যাকটেরিয়াল উপাদানের কারণে অনেক সময় স্ক্যাল্পে ক্ষত সৃষ্টি হয়। এই ক্ষত সারিয়ে তুলতে অ্যাপেল সিডার ভিনেগারের জুড়ি নেই।

৪) ভালো পরিষ্কারক

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার চুলের জন্য ক্লেনজার হিসাবে কাজ করে। স্ক্যাল্পের অতিরিক্ত অয়েল, জীবাণু এবং ডেড স্কিন সেলস দূর করে থাকে।

কীভাবে ব্যবহার করবেন?

বেশ কিছু উপায়ে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার চুলে ব্যবহার করা যায়। কিছু উপায় এখন জেনে নেওয়া যাক-

১) পানি আর অ্যাপেল সিডার ভিনেগার

যা যা লাগবে
  • ২-৩ টেবিল চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার
  • ১ কাপ পানি
  • ১টি স্প্রে বোতল
যেভাবে ব্যবহার করবেন

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার এবং পানি বোতলে ভালো করে মিক্স করুন। এই মিশ্রণটি অয়েলি চুলে সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন। ড্রাই চুলের ক্ষেত্রে মাসে এক বা দুইবার আর নরমাল চুলের জন্য দুই সপ্তাহে একবার এটি ব্যবহার করতে পারেন।

প্রি শ্যাম্পু ট্রিটমেন্ট হিসাবে

অ্যাপেল সিডার ভিনেগারের মিশ্রণটি চুলে এবং স্ক্যাল্পে স্প্রে করুন। এরপর স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করে ৫-১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

কন্ডিশনার হিসাবে

শ্যাম্পু করার পর মাথার তালু এবং চুলে এই মিশ্রণটি স্প্রে করুন। চুলে ৫ মিনিট মিশ্রণটি রেখে দিন। তারপর চুল ধুয়ে ফেলুন। অ্যাপেল সিডার ভিনেগারের এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে চুলে আলাদা করে কন্ডিশনার ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। ন্যাচারালি চুল হবে সফট ও শাইনি।

২) অ্যাপেল সিডার ভিনেগার এবং অ্যালোভেরা জেল

যা যা লাগবে
যেভাবে ব্যবহার করবেন

১। একটি পাত্রে অ্যালোভেরা জেল এবং অ্যাপেল সিডার ভিনেগার একসাথে মিক্স করুন। চুলের লেন্থ অনুযায়ী মিশ্রণটি তৈরি করুন। মিশ্রণটি খুব বেশি ঘন যেন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন।

২। একটি স্প্রে বোতলে মিশ্রণটি ঢালুন।

৩। এই মিশ্রণটি শ্যাম্পু করা চুলে ব্যবহার করুন। মাথার স্ক্যাল্পেও মিশ্রণটি ব্যবহার করতে পারেন।

৪। ৪-৫ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

অ্যালোভেরা জেল চুলে ময়েশ্চার প্রোভাইড করে। এভাবে চুলের যত্ন নিলে চুল সিল্কি ও হেলদি থাকবে।

৩) অ্যাপেল সিডার ভিনেগার এবং অ্যাসেনশিয়াল অয়েল

যা যা লাগবে
  • ৩/৪ কাপ পানি
  • ১/৪ কাপ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার
  • ৩ ফোঁটা রোজমেরি অ্যাসেনশিয়াল অয়েল
  • ১টি স্প্রে বোতল
যেভাবে ব্যবহার করবেন

সবগুলো উপাদান একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এটি চুলে এবং মাথার স্ক্যাল্পে স্প্রে করুন। ৩-৪ মিনিট চুলে রাখুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা জরুরি

১। অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহারের ক্ষেত্রে পরিমাপ সঠিক রাখা বেশ জরুরি। চুলের লেন্থ ও ঘনত্ব অনুযায়ী এর পরিমাণ নির্ধারণ করতে হবে।

২। কালার করা চুলে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। এতে থাকা এসিড চুলের কালার হালকা করে দেয়।

৩। চোখ এড়িয়ে শুধু চুলে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করুন।

৪। চুলে অতিরিক্ত অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

৫। ভালো ব্র্যান্ডের অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করুন। ব্যবহারের পূর্বে প্যাচ টেস্ট করে নেওয়া ভালো।

 

সেলফ কেয়ারে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার অনেক উপকারী। এমন কী এর রয়েছে দারুণ সব স্বাস্থ্য উপকারিতাও। আজ আমরা জেনে নিলাম চুলের যত্নে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার কীভাবে ব্যবহার করবেন সেই সম্পর্কে। আশা করছি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের জন্য হেল্পফুল ছিল। অথেনটিক হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত, সেখান থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন।

ছবি- সাটারস্টক, সাজগোজ

0 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...