বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ১) - Shajgoj

বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ১)

biyer-kenakata

বিয়ে মানে একটা জীবনের এক নতুন অধ্যায়।তাই এই নতুন জীবনের পথচলায় শুরুটা কীভাবে সুন্দর এবং স্মরণীয় করে রাখা যায় এই নিয়ে কারও প্রচেষ্টার কোনও কমতি থাকে না। তাই বিয়ে নিয়ে চলে নানা আয়োজন।বিয়ের কেনাকাটা নিয়েও থাকে নানান প্রশ্ন। বাজেটের মধ্যে আপনার বিয়ের কেনাকাটা কীভাবে পরিপূর্ণ করা যেতে পারে সেই নিয়ে আমাদের এই আয়োজন।

বিয়ের কার্ড বা নিমন্ত্রণপত্র

বিয়েতে আত্মীয়স্বজন,বন্ধুবান্ধবদের নিমন্ত্রণ তো করতেই হবে। শুধু নিমন্ত্রণপত্র হিসেবেই নয়, কার্ডের মাধ্যমে আপনার রুচিবোধ এবং পছন্দের ও আভাস পাওয়া যাবে। তাই বিয়ের কার্ড হওয়া চাই একটু দৃষ্টিনন্দিত। বর্তমানে বিয়ে এবং বৌ-ভাতের পাশাপাশি গায়ে হলুদের জন্য ও কার্ড দেওয়া হয়ে থাকে। তবে গায়েহলুদের কার্ড বিয়ের কার্ডের মতো জমকালো না করে একটু সিম্পল কালারফুল করতে পারেন।

দোকান এবং ধরণ ভেদে সাধারণ কার্ডের দাম ২০-৫০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। আর মখমলের তৈরি কার্ডের দাম ৬০ টাকা থেকে শুরু।

বাংলাবাজার ও পল্টনে কার্ডের বাজার রয়েছে। এছাড়া কাটাবন নিউ মার্কেটেও রয়েছে কার্ডের কিছু দোকান। এছাড়া আজাদ কিংবা আইডিয়াল প্রোডাক্টসে ও ভালো মানের বিয়ের কার্ড পাবেন। তাছাড়া বিভিন্ন ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা আপনার ইচ্ছে এবং পছন্দমতো ডিজাইনের কার্ড তৈরি করে দেবে।

[picture]

গায়ে হলুদের সরঞ্জাম

‘দাও গায়ে হলুদ পায়ে আলতা,হাতে মেহেদি’ ‘হলুদ বাটো,মেন্দি বাটো,বাটো ফুলের মৌ’গায়ে হলুদের রয়েছে এরকম বহু প্রচলিত গান। কারণ বিয়ের সবচেয়ে আকর্ষণীয় অংশ হচ্ছে গায়ে হলুদ।তাই একে সবচেয়ে সুন্দর ভাবে উদযাপন করা চাই।

হলুদের তত্ত্বের উপকরণের মধ্যে থাকে-ডালা, কুলা, প্রদীপ, বাটি, রাখি, চন্দন, সোহাগপুরী, আফসান, হলুদ তোয়ালে, মেহেদি, ছোট পালকি, ঝুড়ি, মাছডালা, হাড়ি, পান-সুপারি, জর্দা, মিষ্টি, কনের জন্য কসমেটিক প্রভৃতি। এগুলো আলাদা করে কিনে নিজেই ডালা তৈরি করে নিতে পারেন। অথবা ডালার তৈরি সেট কিনে নিতে পারেন যেখানে সব সাজানো থাকবে।

এছাড়া ফুল গায়ে হলুদের অন্যতম অনুষঙ্গ। গহনা কিংবা স্টেজ সাজাতে প্রাকৃতিক ফুলের পাশাপাশি কৃত্রিম ফুল ও ব্যবহৃত হচ্ছে বর্তমানে।

কোথায় পাবেন?

এলিফ্যান্ট রোডে অনেক দোকান রয়েছে যেখানে পেয়ে যাবেন হলুদের সব উপকরণ।এছাড়া কাটাবন, নিউ মার্কেট, গাউসিয়া, বসুন্ধরা সিটির লেভেল-৮, যমুনা ফিউচার পার্ক, ইস্টার্ন প্লাজাতে পাবেন হলুদ সামগ্রী। এছাড়া বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজ যেমন- রঙ, ইনফিনিটি, অঞ্জন’স এগুলোর শোরুমেও গায়ে হলুদের সকল উপকরণ পেয়ে যাবেন।

শাহবাগ, গাউসিয়া, এলিফ্যান্ট রোডের ফুলের দোকানগুলোতে পেয়ে যাবেন প্রয়োজনীয় ফুল।এসব দোকানে গায়ে হলুদের জন্য ফুলের গহনার সেট ও পেয়ে যাবেন।

দরদাম 

ডালা ১৫০-৬০০ টাকা, কুলা ১৫০-৬০০ টাকা, প্রদীপ বাটি ১০-৫০ টাকা। এছাড়া বিয়ের উপটান-চন্দন, সোহাগপুরীর দাম পরবে ২০০-৬০০ টাকা।মেহেদি, আলতা ৪০-১৫০ টাকা। ঝুড়ি, পালকি, রুমাল, আফসান এগুলোর দাম পড়বে ১০০-৮০০ টাকা। পান-সুপারি, মাছডালা ৩০০-১৫০০ টাকা।তত্ত্বের সেট কিনতে চাইলে দাম পড়বে ৫০০-৩০০০ টাকা।

ছবি – মিডিয়াম ডট কম

লিখেছেন – আফসানা প্রীতি

বাজেটের মধ্যেই বিয়ের কেনাকাটা (পর্ব ২)

0 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...