টিনেজার স্কিন কেয়ারে বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার কোনটি?

টিনেজার স্কিন কেয়ারে বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার কোনটি?

টিনেজার স্কিন কেয়ারে বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার হাতে একজন দাঁড়িয়ে আছে-shajgoj.com

টিনেজার স্কিন কেয়ারে বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার খুঁজছেন? অনেক টিনেজারদের মনেই এখন প্রশ্ন আসতে পারে, টোনার আবার কী? টোনার মূলত আমাদের স্কিনের বেসিক কেয়ারের একটি ধাপ। কিন্তু টিনেজ বয়সে এত কেন ত্বকের যত্ন নিতে হবে? পরে নিলেই তো হবে।

কারণ, টিনেজ বয়সে সব থেকে বেশি দৌড়া দৌড়ি হয়ে থাকে। পড়াশোনার চাপ, তার উপর খেলা-ধুলা, আর সারাদিনই তো কোন না কোন কাজে বাহিরে থাকাই হয়। ফলে, ত্বকের উপর নানা রকম প্রেসার পড়ে। এই সময় একটু যত্ন নিলেই ত্বক থাকবে কোমল এবং হেলদি। ত্বকের এক্সটা যত্নের জন্য অ্যাড করতে পারেন টোনার। কিন্তু টিনেজারদের জন্যে খুব বেশি দাম দিয়ে প্রোডাক্ট কিনা কষ্টসাধ্যই বটে। বাজেটের মধ্যে তাহলে কোন টোনারটি ব্যবহার করবেন? এই প্রশ্নের উওর নিয়েই মূলত আমার আজকের লিখাটি।

টিনেজারদের কেন টোনার ব্যবহার করতে হবে?

১৩-১৯ বছর বয়সী টিনেজদের মুখে ব্রণের প্রকোপ দেখা দেয়া খুব কমন একটি সমস্যা। এছাড়াও বয়ঃসন্ধিকালে হরমোনজনিত পরিবর্তনের কারণে শারীরিকভাবে অনেক পরিবর্তন আসে৷ এসব সমস্যার সমাধানে টোনার হতে পারে একটি সহজ সমাধান। কীভাবে? চলুন জেনে নেয়া যাক।

ক্লেনজিং-টোনিং-ময়েশ্চারাইজিংয়ে টোনিং বাদ যাচ্ছে না তো? 

ত্বককে সুস্থ রাখার প্রাথমিক তিনটি ধাপ ক্লেনজিং-টোনিং-ময়েশ্চারাইজিং। ত্বককে ক্লিন বা পরিষ্কার করতে, ক্লেনজিং এবং ময়েশ্চারাইজিংয়ের স্টেপ বা ধাপ দুটি মেনে চললেও অনেকেই বেশিরভাগ সময় বাদ দিয়ে যান মাঝের ধাপটি অর্থাৎ টোনিং। কিন্তু এখানেই একটি বড় ভুল হয়ে যায়। কারণ, টোনারের মত সাধারণ লিকুইডটির মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে সুস্থ, মসৃণ ও টানটান ত্বকের চাবিকাঠি।

ত্বকের গভীর থেকে তেল-ময়লা বের করে আনা ছাড়াও পোরসগুলোকে ছোট করে ব্রণের প্রবণতা কমাতে পারে এই টোনার। কিছু কিছু টোনার ত্বক পরিষ্কার ও টানটান করা ছাড়াও ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে পারে।

এজন্যে, টিনেজ অবস্থায় যাদের ত্বক অয়েলি এবং যাদের ব্রণ উঠার প্রবনতা বেশি, তাদের জন্য টোনার ব্যবহার করা মাস্ট। শুধু ফেইসওয়াশ ব্যবহার করে মুখের গভীরে থাকা ধুলোময়লা সম্পূর্ণভাবে পরিষ্কার করা সম্ভব নয়। আর এই অসম্ভব কাজকেই সম্ভব করে টোনার।

মুখ ধোয়ার পর বাড়তি যত্নে এবং একই সঙ্গে ত্বককে অয়েল ফ্রি আর টানটান রাখার জন্য প্রতিদিন প্রতিবার মুখ ধোয়ার পর টোনার লাগানো উচিত। ফেইসে অনেক কারণেই পি.এইচ এর ভারসাম্য হারিয়ে যায়। এর কারণে, ত্বক অয়েলি হয়ে পড়ে। টোনার ত্বকের এই পি.এইচ ব্যাল্যান্স বজায় রাখতে সাহায্য করে।

টিনেজ বয়সে বুঝে উঠতে কষ্ট হয় কোন টোনারটি ত্বকের জন্য কার্যকরী হবে। প্রতিটি টোনারের কাজ প্রায় এক হলেও নিজস্ব কিছু আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাই, আজকে আমি কথা বলব টিনেজারদের জন্যে উপযুক্ত ৪টি  টোনার নিয়ে।

টিনেজারদের ত্বকের যত্নে ৪টি টোনার কোনগুলো?

আপনি একজন টিনেজার হয়ে থাকলে আপনার মনে নিশ্চয় এই প্রশ্ন এসেছে যে আপনার ত্বকের উপযোগী টোনার তাহলে কোনটি। চলুন জেনে নেয়া যাক এরকমই ৪ টি টোনার সম্পর্কে যা আপনার ত্বকের যত্নে কাজে দিবে!

(১) দ্য বডি শপ টি ট্রি স্কিন ক্লিয়ারিং টোনার (The Body Shop Tea Tree Skin Clearing Mattifying Toner)

bodyshop tea tree toner on hand

কী কী উপকার পাবেন?

খেয়াল করে দেখবেন, টিনেজ বয়সে সব থেকে বেশি ব্রণ এর সমস্যা দেখা দেয়। আর অয়েলি স্কিন হলে তো কোন কথাই নেই। তার উপর, সারাদিনই বাহিরে থাকা হচ্ছে, সানস্ক্রিন আপ্লাই করা হচ্ছে, ময়লা- ধুলাবালি সব কিছু মিলিয়ে ত্বকের পোরস ব্লক হতে থাকে। ফলে, ব্রণ বা পিম্পলের সমস্যা আরও বেড়ে যায়। এই ক্ষেত্রে দ্য বডি শপ টি ট্রি স্কিন ক্লিয়ারিং টোনারটি ব্যবহার করতে পারেন।

  • টি-ট্রি উপাদানটি ত্বকে ব্রণের প্রবণতা কমিয়ে আনে।
  • স্কিনের অতিরিক্ত অয়েল প্রডাকশন কন্ট্রোল করে।
  • ত্বকের পোরস মিনিমাইজ বা ছোট করতে হেল্প করে।
  • পোরসের ভিতরে গিয়ে ত্বককে পরিষ্কার করে।
  • ত্বকের ব্লেমিস দূর করতেও কিন্তু টোনারটি খুব ভালো কাজ করে।
  • স্কিনকে সজীব এবং প্রাণবন্ত করে।
  • ত্বককে ময়েশ্চারাইজড করে।
  • স্কিনকে রিফ্রেশ করতে এই টোনারটি বেশ ভালো কাজ করে।
  • ব্যবহারে ত্বককে বেশি ড্রাই করে না।

(২) মামাআর্থ ভিটামিন সি ফেইস টোনার (Mamaearth vitamin C face toner with vitamin C & cucumber for pore tightenin)

mamaearth vitamin c face toner drop on hand palm

কী কী উপকার পাবেন?

মামাআর্থ ভিটামিন সি ফেইস টোনারটি-তে বেশ কিছু শক্তিশালী উপাদান রয়েছে। যেমন- ভিটামিন সি, অ্যালোভেরা, শসা ইত্যাদি। ত্বকের যত্নে এই উপাদানগুলো ভালো বেনিফিটস দিয়ে থাকে। এর মধ্যে যা না বললেই না-

  • ভিটামিন সি থাকায় ত্বক ব্রাইট হয়। এছাড়া ত্বকের বড় পোরসগুলোকে ছোট করে।
  • শসা-তে থাকা প্রচুর পরিমাণের মিনারেলস এবং এন্টি-অক্সিডেন্ট ত্বককে হাইড্রেটেড রাখে। সেই সাথে, ত্বকের ইলাস্টিসিটি ইম্প্রুভ করে।
  • অ্যালোভেরা থাকায় ত্বক স্মুথ করার পাশাপাশি ত্বকের পিএইচ ব্যালেন্স ঠিক রাখে।
  • Witch Hazel ত্বকের বড় আকৃতির পোরস ছোট এবং পোরস টাইট করে। পাশাপাশি ইনফ্লেমেশন দূর করে।
  • পোরস ভিতর থেকে পরিষ্কার করে, ফলে ব্রণের প্রবণতা কমে আসে।
  • অ্যালকোহল ফ্রি হওয়ায় ত্বকে কোন ধরনের ইরিটেশন হয় না।
  • লং টার্মের জন্য ত্বকে হাইড্রেশন সরবরাহ করে।

(৩) সিম্পল সুদিং ফেসিয়াল টোনার (Simple Kind To Skin Soothing Facial Toner)

simple soothing toner on hand

কী কী উপকার পাবেন

যাদের একনি প্রবলেম রয়েছে তারা সিম্পল সুদিং ফেসিয়াল টোনারটি ব্যবহার করতে পারেন। এই টোনারটিতেও ৩টি বিশেষ উপাদান রয়েছে, যা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকে।

  • কেমমাইল ত্বককে সফট এবং স্মুথ করে।
  • Witch hazel উপাদানটি ত্বকের পোরস টাইট করে এবং ত্বকের টোন ইভেন করে।
  • ত্বককে সফট করতে কাজ করে।
  • টোনারটি ত্বকের পি.এইচ ব্যলেন্স করে।
  • ত্বককে ময়েশ্চারাইজড রাখে।
  • একদমই ড্রাই হতে দেয় না।
  • ইনস্ট্যান্ট হাইড্রেশন সরবরাহ করে।
  • প্র-ভিটামিন বি৫ ত্বককে করে হেলথি।

(৪) স্কিন ক্যাফে ন্যাচারাল রোজ ওয়াটার (Skin Cafe 100% Natural Rose Water Face And Body Mist)

বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার স্কিন ক্যাফে

কী কী উপকার পাবেন?

স্কিন ক্যাফে ন্যাচারাল রোজ ওয়াটার, এই টোনারটির বেস্ট পার্ট হচ্ছে এটি সব ধরণের ত্বকের জন্যে উপযোগী। এই টোনারটি একি সাথে টোনার এবং ফেইস মিষ্টের কাজ করে। স্প্রে করে ফেইস হালকা করে ড্যাব করে অ্যাপ্লাই করে নিতে পারেন। অথবা, কটন বলে স্প্রে করেও অ্যাপ্লাই করতে পারেন।

  • এই টোনারটির মূল উপাদান হচ্ছে গোলাপ। গোলাপের নির্যাসে রয়েছে এন্টি ব্যাকটেরিয়াল প্রপার্টিস। যা ব্রণের প্রবণতা কমায়। কোন ধরণের দাগ থাকলে কমিয়ে আনে।
  • ফেইসের অতিরিক্ত তেল কন্ট্রোল করে।
  • ত্বকের পি.এইচ এর ভারসাম্য বজায় রাখে।
  • ত্বকের ভিতরে মানে পোরসের ভিতরে গিয়ে ময়লা বের করে আনে।
  • সানবার্ন কমিয়ে আনে।
  • পোরস মিনিমাইজ করে।

দাম কেমন হবে?

কোথায় পাবেন এই টোনারগুলো?

এই বাজেট ফ্রেন্ডলি টোনার আপনারা সহজেই পেয়ে যাবেন শপ.সাজগোজ.কম থেকে। অথেনটিক সব প্রোডাক্টটের জন্য সাজগোজই আমার ভরসা। এছাড়া আউটলেট থেকে গিয়েও কিনতে পারেন। যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত। স্কিন বা হেয়ার কেয়ার রিলেটেড যেকোন প্রোডাক্ট কিনতে চাইলেও সাজগোজ থেকে নিতে পারেন। আরেকটি ব্যাপার আমার  খুবই ভালো লেগেছে যা আপনাদের সাথে শেয়ার না করলেই না। আমার স্কিন বা হেয়ার রিলেটেড কোন সমস্যা ফেইস করলে আমি সাজগোজের ফেইসবুক পেইজে ইনবক্স করি। আর আমার সমস্যা শুনে আমাকে সঠিক সল্যুশন দিয়ে থাকে। আশা করি, আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের জন্য হেল্পফুল ছিল। সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

ছবি- সাজগোজ

24 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...