হোয়াইট হেডস দূর করার উপায় - Shajgoj

হোয়াইট হেডস দূর করার উপায়

TomatoFacialMask

ব্ল্যাক হেডস নিয়ে আমরা নানা জায়গায় নানা ধরনের আলোচনা ও এই সমস্যার সমাধান নিয়ে অনেক আর্টিকেল দেখে থাকি। কিন্তু হোয়াইট হেডস নামক যে আরও একটি যন্ত্রণাদায়ক স্কিন প্রবলেম যে সচরাচর আমরা ফেস করে থাকি সেটা হয়তো অনেকেই জানেন না। আবার এমন কেউও থাকতে পারেন যে নিজে হোয়াইট হেডস ত্বকে নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন কিন্তু নিজেই জানেন না যে তার ত্বকে অবস্থান করা জিনিসটির নাম হোয়াইট হেডস।

আসুন আগে জেনে নিই হোয়াইট হেডস কী?

অনেক সময় দেখা যাই যায় আমাদের নাক ও চিবুকের নীচে ছোট্ট কিন্তু স্পষ্ট ধরনের সাদা ব্রণ উঠছে, এটাই হোয়াইট হেডস। হোয়াইট হেডস মূলত গঠিত হয় আমাদের ত্বকের নিঃসৃত ঘাম, তেল ও মৃত কোষ থেকে।

যাদের অয়লি স্কিন তাদের হোয়াইট হেডস একটি অতিসাধারণ সমস্যা। আবার দেখা যাই অতিরিক্ত ধূমপান, দুশ্চিন্তা করা ও অপরিষ্কার ত্বক থেকেও হোয়াইট হেডস এর সৃষ্টি হয়। আজ আপনাদের এমন কিছু ঘরোয়া উপাদান ও প্যাকের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো যেগুলো খুব সহজে ও যত্ন নিয়ে আপনার ত্বকের হোয়াইট হেডস সারিয়ে তুলবে।

[picture]

হোয়াইট হেডস সারাতে যা করবেন:

ওটমেল স্ক্রাব-
এক কাপের তিন ভাগের একভাগ ওটমেল নিন, এক কাপের চার ভাগের একভাগ চিনি নিন ও এক কাপের চার ভাগের একভাগ মধু নিন। সব উপাদান একসাথে মিশিয়ে আপনার ত্বকের হোয়াইট হেডস হওয়া জায়গায় লাগিয়ে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন ও পরে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

টমেটো-
টমেটো ভিটামিন সি এর বিরাট উৎস যা কিনা নিস্তেজ ও ম্লান ত্বক থেকে হোয়াইট হেডস তুলতে খুব কার্যকরী। টমেটোর ভেতরের নরম অংশ আপনার মুখের ত্বক ও হোয়াইট হেডস আক্রান্ত এরিয়ায় ভালোভাবে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন ও ধুয়ে ফেলুন।

দুধ-
দুই টেবিল চামচ দুধ, এক টেবিল চামচ লেবুর রস ও এক টেবিল চামচ লবণ ভালোভাবে মিশিয়ে আপনার ত্বকে বৃত্তাকার ভাবে ম্যাসাজ করুন। এরপর আপনার ত্বক ভালোভাবে পানি দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে নিন।

আলু-
কিছুটা কাঁচা আলু নিয়ে সুন্দর করে ব্লেন্ড করুন। এবার এই পেস্ট আপনার ত্বকে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন এবং পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

বেকিং সোডা-
বেকিং সোডা আর পানি নিয়ে পেস্ট বানান। এবার এই পেস্ট আপনার ত্বকের হোয়াইট হেডস হওয়া অংশে লাগিয়ে যতক্ষণ না শুকিয়ে যায় এভাবে রাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার-
শুধুমাত্র কিছু পরিমাণ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার হাতে নিয়ে আপনার ত্বকের হোয়াইট হেডস হওয়া জায়গায় লাগিয়ে রাখুন, ধোয়ার প্রয়োজন নাই।

লেবু-
লেবুর রস একটা কটন বলে লাগিয়ে আপনার ত্বকে লাগান। এর সাইট্রিক অ্যাসিড স্কিনের ব্লক হয়ে যাওয়া ছিদ্রমুখ খুলে দেবে আর হোয়াইট হেডস সারতে সাহায্য করবে।

চিনি ও অলিভ অয়েল-
কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল এবং এক চা চামচ চিনি নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি নরম টুথব্রাশে লাগিয়ে আপনার ত্বকে ৫ থেকে ১০ মিনিট হালকা ঘসুন ও ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

অ্যালোভেরা-
অ্যালোভেরা জেল নিয়ে আপনার ত্বকে স্বাভাবিকভাবে ম্যাসাজ করুন। এতে হোয়াইট হেডস যাওয়ার সাথে সাথে ত্বক মসৃণ আর কোমল থাকবে।

হোয়াইট প্রতিরোধে কিছু টিপসঃ
-আপনার ত্বক পরিষ্কার রাখুন, দিনে মিনিমাম দুইবার ত্বক ধুয়ে নিন।
-পর্যাপ্ত পানি পান করুন।
-তাজা শাকসবজি খান, বিশেষ করে ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবার বেশি খান।
-অয়েল ফ্রি মেকআপ ব্যবহার করুন।
-ভুলেও হাত বা নখ দিয়ে খুঁচিয়ে হোয়াইট হেডস তুলতে যাবেন না, এতে করে সেটা ব্রণে পরিণত হবে।
-জাঙ্কফুড এড়িয়ে চলুন।

লিখেছেন- রুমানা রহমান

ছবি- ফিলগ্রাফিক্স.কম

23 I like it
3 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...