স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরা কখনো ব্যবহার করেছেন কি?

স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরা কখনো ব্যবহার করেছেন কি?

IMG_9991-1

ত্বক দেখতে মসৃণ ও সুন্দর লাগুক এমনটাই তো সবাই চাই। কিন্তু অনাকাঙ্ক্ষিত স্ট্রেচ মার্কসের কারণে সেই চাওয়া পূরণ হয় না অনেকেরই। এই দাগ রিমুভ করার কি কোনো উপায় আছে? সত্যি বলতে স্ট্রেচ মার্কস একবারে দূর করা সম্ভব হয় না। কিছু উপাদান ব্যবহারের মাধ্যমে শুধু একে ফেইড করা যায়। আর এর জন্য অ্যালোভেরা বেশ কার্যকর। আপনি কি কখনো এটি ব্যবহার করেছেন নাকি কীভাবে ব্যবহার করবেন তা নিয়ে কনফিউশনে আছেন? চলুন তাহলে এই কনফিউশন আজ ক্লিয়ার করা যাক। স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরা কীভাবে ব্যবহার করা যায় সেটাই জানাবো আজকের আর্টিকেলে।

স্ট্রেচ মার্কস কী ও কেন হয়?

কোলাজেন বা ইলাস্টিসিটি কমে যাওয়ার জন্য ত্বকে তৈরি হওয়া এক ধরনের দাগ হচ্ছে স্ট্রেচ মার্কস। এতে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় সাদাটে বা লালচে ফাটা ফাটা দাগ দেখা যায়। প্রথমদিকে ত্বক যখন ফেটে যাওয়া শুরু করে তখন এটি দেখতে কিছুটা লালচে বা গোলাপি লাগে। ধীরে ধীরে দাগের রঙ সাদাটে হয়ে আসে। প্রেগনেন্সিতে পেট, ব্রেস্ট এবং শরীরের বেশ কিছু অংশে এমন দাগ হতে পারে। আবার অনেকের ঊরু, কোমরের অংশ, পেটের নিচের সাইডে ফাটা দাগ থাকে। ফাটা দাগে ব্যথা বা চুলকানি থাকে না। ছেলে মেয়ে উভয়ের এই সমস্যা হতে পারে। স্ট্রেচ মার্কস হওয়ার পেছনে বেশ কিছু কারণ আছে। যেমন-

  • বংশগত
  • অস্বাভাবিক ওজন বৃদ্ধি বা হ্রাস
  • গর্ভধারণের শেষে পেটের চামড়া পাতলা হয়ে যাওয়া
  • হরমোনজনিত সমস্যা
  • স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধের ব্যবহার ইত্যাদি

স্ট্রেচ মার্ক

স্ট্রেচ মার্কস একদম রিমুভ করা যায় না। কিছু উপাদান ব্যবহারে এটি ফেইড করা যায়। এমনই একটি উপাদান হচ্ছে অ্যালোভেরা। আজ আপনাদের জানাবো শরীরের ফাটা দাগ দূর করার জন্য কোন কোন উপায়ে অ্যালোভেরা ব্যবহার করা যায় সেই সম্পর্কে।

স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরার ব্যবহার

অ্যালোভেরা স্ট্রেচ মার্কস কমিয়ে আনতে হেল্প করলেও অনেকের ক্ষেত্রে সরাসরি পাতা থেকে কালেক্ট করা জেল অ্যাপ্লাই করলে ইচিং হতে পারে। আবার পাতা কালেক্ট করাটাও অনেকের কাছে বেশ হ্যাসেল লাগে। এক্ষেত্রে ইজি একটি সল্যুশন হতে পারে অ্যালোভেরা জেল। আপনার সুবিধা অনুযায়ী যে কোনোটাই আপনি ব্যবহার করতে পারেন। চলুন তাহলে জেনে নেই স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরা কীভাবে কাজ করে-

কোলাজেন প্রোডাকশন বাড়ায়

যে কোনো ধরনের ক্ষত সারিয়ে তুলতে এবং দাগ দূর করার জন্য কোলাজেন প্রোডাকশন হওয়া জরুরি। আর অ্যালোভেরা কোলাজেন প্রোডাকশন বাড়াতে হেল্প করে। তাই ফাটা দাগ দূর করতে এটি নিশ্চিন্তে ব্যবহার করা যায়।

স্কিন ময়েশ্চারাইজ করে

স্ট্রেচ মার্কস কমিয়ে আনতে স্কিনের ময়েশ্চার ধরে রাখা জরুরি। অ্যালোভেরাতে মিউকোপলিস্যাকারাইড রয়েছে যা স্কিনের আর্দ্রতা ধরে রাখে। তাই স্কিন ময়েশ্চারাইজড রেখে অনাকাঙ্ক্ষিত এই দাগ ফেইড করার ইজি একটি সল্যুশন হতে পারে অ্যালোভেরা জেল।

স্ট্রেচ মার্ক কমিয়ে আনতে অ্যালোভেরা

ইউভি রশ্মি থেকে ত্বক সুরক্ষিত রাখে

ইউভি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাবে স্কিনে রেডনেস, ইচিনেস বা র‍্যাশ হতে পারে। আর এসব কারণে হতে পারে স্ট্রেচ মার্কসের প্রবলেম। এই সমস্যাগুলো দূর করে ত্বককে সূর্যের আলো থেকে সুরক্ষিত রাখে অ্যালোভেরা। সেই সাথে স্কিনে সুদিং ফিল দেয়। এসব সমস্যা যেন না হয় সেজন্য স্কিন কেয়ার রুটিনে অ্যালোভেরা জেল অ্যাড করে নিন।

অ্যালোভেরা কীভাবে ব্যবহার করবেন?

এতক্ষণ তো জানলাম কীভাবে স্ট্রেচ মার্কস কমাতে অ্যালোভেরা কাজ করে সে সম্পর্কে। এখন চলুন জেনে নেই কীভাবে এটি ব্যবহার করবেন তা নিয়ে বিস্তারিত।

১) অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরাতে আছে স্কিন রিপেয়ারিং প্রোপার্টিজ যা স্ট্রেচ মার্কস ফেইড করতে হেল্প করে। সেই সাথে এর ব্যবহারে স্কিন থাকে ময়েশ্চারাইজড ও সফট।

যা যা লাগবে

  • ১ টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালোভেরা জেল

যেভাবে ব্যবহার করবেন

অ্যালোভেরা পাতা থেকে জেল আলাদা করে নিন। পাতা না থাকলে রেডিমেড জেলও ব্যবহার করতে পারেন। এরপর এটি স্ট্রেচ মার্কসে ২-৩ মিনিট ধরে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। সাথে সাথেই ধুয়ে ফেলবেন না। এভাবে প্রতিদিন দুইবার ব্যবহার করুন।

২) অ্যালোভেরা জেল ও কোকোনাট অয়েল

স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড রাখতে কোকোনাট অয়েল বেশ ইফেক্টিভ। এটি স্কিন ব্যারিয়ার ইমপ্রুভ করে এবং ফাইব্রোব্লাস্ট (কোলাজেন ও ইলাস্টিন প্রোডিউস করে এই সেল) স্টিমুলেট করে। অ্যালোভেরা জেলের সাথে মিক্সড করে স্ট্রেচ মার্কসের উপর রেগুলার অ্যাপ্লাই করলে ধীরে ধীরে মার্কস ফেইড হয়ে আসে।

যা যা লাগবে

যেভাবে ব্যবহার করবেন

অ্যালোভেরা জেল ও নারকেল তেল একসাথে মিশিয়ে স্ট্রেচ মার্কসের উপর ম্যাসাজ করুন। এভাবে সারা রাত রাখুন। ভালো ফলাফলের জন্য সপ্তাহে ৩/৪ বার ব্যবহার করুন।

স্ট্রেচ মার্ক কমিয়ে আনতে অ্যালোভেরা জেল ও কোকোনাট অয়েল

৩) অ্যালোভেরা জেল ও ভিটামিন ই ক্যাপসুল

ভিটামিন ই ক্যাপসুলে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা স্কিন হেলদি রাখতে সাহায্য করে। এতে থাকা স্কিন রিজেনারেটিং বেনিফিটসের কারণে স্ট্রেচ মার্কস ফেইড হতে থাকে।

যা যা লাগবে

  • ২টি ভিটামিন ই ক্যাপসুল
  • ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল

যেভাবে ব্যবহার করবেন

অ্যালোভেরা জেলের সাথে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। দিনে দুইবার এই মিশ্রণটি স্ট্রেচ মার্কসের উপর লাগিয়ে নিন। এক ঘন্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন।

৪) অ্যালোভেরা জেল ও অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল স্কিনের ময়েশ্চার ধরে রাখতে হেল্প করে। এতে আছে প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও ফ্যাটি অ্যাসিড। স্ট্রেচ মার্কস ফেইড করতে এটি বেশ হেল্পফুল।

যা যা লাগবে

  • ১/২ চা চামচ কোল্ড প্রেসড অলিভ অয়েল
  • ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল

যেভাবে ব্যবহার করবেন

কোল্ড প্রেসড অলিভ অয়েল ও অ্যালোভেরা জেল একসাথে মিশিয়ে স্ট্রেচ মার্কসের উপর ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন। ৩০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এবার ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। দিনে ১ বার ব্যবহার করুন।

Skin Cafe Olive Oil

৫) কফি গুঁড়া ও অ্যালোভেরা জেল

স্কিনের ডেড সেলস দূর করার জন্য কফি খুব ভালো স্ক্রাব হিসেবে কাজ করে। প্রত্যক্ষভাবে স্ট্রেচ মার্কস দূর করতে স্ক্রাবিং কার্যকরী না হলেও স্কিন সফট রাখতে এটি হেল্প করে। আর স্কিন সফট থাকলে ফাটা দাগ ধীরে ধীরে ফেইড হয়ে আসে।

যা যা লাগবে

  • ১ টেবিল চামচ কফি গুঁড়া
  • ১/২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল

যেভাবে ব্যবহার করবেন

অ্যালোভেরা জেল ও কফি গুঁড়া ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। স্ট্রেচ মার্কসের উপর অন্তত ৪/৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ৩ বার এটি ব্যবহার করুন।

৬) অ্যালোভেরা জেল ও লেবুর রস

অ্যালোভেরা ও লেবুর রস স্ট্রেচ মার্কস ফেইড করতে হেল্প করে। অনেকের লেবুতে ইরিটেশন হতে পারে। তাই আপনার যদি ইরিটেশন প্রবলেম থাকে বা স্কিন যদি সেনসিটিভ হয় তাহলে এই পদ্ধতিটি স্কিপ করতে পারেন।

যা যা লাগবে

  • ১/২ চা চামচ লেবুর রস
  • ১ টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরা ও লেবু

যেভাবে ব্যবহার করবেন

লেবুর রসের সাথে ১/২ চা চামচ পানি মিশিয়ে নিন। এবার এর সাথে মিশিয়ে নিন অ্যালোভেরা জেল। স্ট্রেচ মার্কসের উপর মিশ্রণটি অ্যাপ্লাই করে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এরপর স্কিন টাইপ অনুযায়ী ময়েশ্চারাইজার বা লোশন অ্যাপ্লাই করুন। ভালো ফলাফল পেতে প্রতিদিন ১ বার করে ব্যবহার করুন।

স্ট্রেচ মার্কস খুব কমন একটি প্রবলেম। একবার এই দাগ দেখা গেলে সেটি পুরোপুরি রিমুভ করা সম্ভব হয় না। তবে চেষ্টা করলে কমিয়ে আনা সম্ভব। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি হেল্পফুল ছিল। অথেনটিক স্কিন কেয়ার, হেয়ার কেয়ার ও মেকআপ প্রোডাক্ট কিনতে পারেন সাজগোজ থেকে। সাজগোজের কয়েকটি ফিজিক্যাল শপ রয়েছে। শপগুলো যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার, ইস্টার্ণ মল্লিকা, ওয়ারীর র‍্যাংকিন স্ট্রিট, বসুন্ধরা সিটি, উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে), মিরপুরের কিংশুক টাওয়ারে এবং চট্টগ্রামের খুলশি টাউন সেন্টার এ অবস্থিত। এই শপগুলোতে ঘুরে নিজের পছন্দমতো অথবা অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন আপনার দরকারি প্রোডাক্টগুলো।

 

ছবিঃ সাজগোজ, সাটারস্টক

3 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...