কিভাবে পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক দিয়ে সব ধরনের ত্বকের যত্ন করবেন?

পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক দিয়েই হবে সব ধরনের ত্বকের যত্ন

পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

বেশ জনপ্রিয় দেশি একটি ফল হলো পেঁপে। কাঁচা পেঁপে যেমন বিভিন্ন রোগের পথ্য হিসাবে মানুষজন খেয়ে থাকে, তেমনি পাকা পেঁপেও শরীরের জন্য বেশ উপকারী। পেঁপের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা সম্পর্কে কম-বেশি সবার জানা। কিন্তু এই পেঁপে রুপচর্চায় বেশ উপকারী, তা কি আপনি জানেন? কথিত আছে প্রাচীনকালে মিশরের সুন্দরীরা কাঁচা পেঁপে ব্যবহার করতেন ত্বকের মৃতকোষ দূর করার জন্য! আধুনিক সময়েও নারীরা রূপচর্চায় পেঁপের ব্যবহার করে আসছেন। পেঁপেতে রয়েছে পটাশিয়াম যা ত্বক হাইড্রেট রাখে এবং ত্বক শুষ্ক হওয়া রোধ করে। এছাড়া পেঁপে ত্বককে ক্ষতিকর র‍্যাডিক্যালসের হাত থেকেও রক্ষা করে, ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে। ভাবছেন, এত গুণের পেঁপে ত্বকে কিভাবে ব্যবহার করবেন? সেই সমস্যার সমাধান করে দিবে আজকের এই আর্টিকেলটি। পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক নিয়ে সাজানো হয়েছে আজকের আর্টিকেলটি। সব ধরনের ত্বকের অধিকারীরা পেঁপের ফেইসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। এর কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। আসুন জেনে নেওয়া যাক পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক!

ত্বকের যত্নে পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক

(১) পেঁপে ও মুলতানি মাটির ফেইসপ্যাক

পেঁপে ও মুলতানি মাটির ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১. ১/২ কাপ পাকা পেঁপে
২. ১ চা চামচ মধু
৩. ১ চা চামচ লেবুর রস
৪. ১ চা চামচ চন্দনের গুঁড়া অথবা মুলতানি মাটি

যেভাবে প্যাক তৈরি করবেন

১) কয়েক টুকরো পাকা পেঁপে ম্যাস করে নিন।
২) এরসাথে লেবুর রস, মধু মিশিয়ে নিন। আপনি চাইলে চন্দনের গুঁড়া অথবা মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিতে পারেন।
৩) এই প্যাকটি মুখ এবং ঘাড়ে ব্যবহার করুন।
৪) ১০-১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এই প্যাকটি সপ্তাহে ৩-৪ দিন ব্যবহার করুন। ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য এই প্যাকটি বেশি উপকারী।

(২) পেঁপে এবং মধুর প্যাক

পেঁপে এবং মধুর প্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১. ১/২ কাপ পাকা পেঁপে
২. ২ চা চামচ দুধ
৩. ১ টেবিল চামচ মধু

যেভাবে প্যাক তৈরি করবেন

১. পাকা পেঁপের পেস্ট করে নিন।
২. এরসাথে দুধ এবং মধু মিশিয়ে নিন। পেঁপে, দুধ এবং মধু ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন।
৩. প্যাকটি মুখ এবং ঘাড়ে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এই প্যাকটি সপ্তাহে ১-২ বার ব্যবহার করুন। তবে দুধ বা দুধ জাতীয় প্রোডাক্ট ব্যবহারে অ্যালার্জি থাকলে দুধের পরিবর্তে মধুর পরিমাণ বাড়িয়ে দিন। মধুতে হাইড্রেটিং উপাদান রয়েছে যা ত্বককে নরম এবং স্মুদ করে তোলে। দুধের ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বক প্রাকৃতিকভাবে এক্সফলিয়েট করে।

(৩) পেঁপে এবং কমলার ফেইসপ্যাক

পেঁপে এবং কমলার ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১) কয়েক টুকরো পাকা পেঁপে
২) ৫-৬ টুকরো কমলা বা লেবু

যেভাবে তৈরি করবেন

১. পেঁপে ছোট ছোট টুকরো করে ম্যাশ করে নিন।
২. কমলার রস ম্যাশ পেঁপের সাথে মিশিয়ে নিন।
৩. এই প্যাকটি ত্বক এবং ঘাড়ে ব্যবহার করুন।
৪. ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এই প্যাকটি সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন। কমলার রসে ভিটামিন সি রয়েছে যা ত্বক থেকে অতিরিক্ত তেল শুষে নেয়। এছাড়া পেঁপের পুষ্টি উপাদান ইনফ্লেমেশন রোধ করে। শুধু তাই নয়, এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

(৪) পেঁপে এবং লেবুর রস ফেইসপ্যাক

পেঁপের ৬টি ফেইসপ্যাক এর মধ্যে পেঁপে এবং লেবুর রস ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১) কয়েক টুকরো পেঁপে
২) ১ চা চামচ লেবুর রস

যেভাবে তৈরি করবেন

১. পেঁপের টুকরো ম্যাশ করে পেস্ট তৈরি করুন। তার সাথে লেবুর রস মিশিয়ে নিন।
২. লেবুর রস এবং পেঁপের মিশ্রণটি ত্বকে ব্যবহার করুন।
৩. ১০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

সপ্তাহে ২-৩ বার এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। লেবুতে রসে রয়েছে ভিটামিন সি এবং সাইট্রিক অ্যাসিড যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

(৫) পেঁপে এবং হলুদের গুঁড়া ফেইসপ্যাক 

পেঁপে এবং হলুদের গুঁড়া ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১) ১/২ কাপ পাকা পেঁপে
২) ১/২ চা চামচ হলুদের গুঁড়া

যেভাবে প্যাক তৈরি করবেন

১. পেঁপে ম্যাশ করে পেস্ট করে নিন।
২. পেঁপের পেস্টের সাথে হলুদের গুঁড়া মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন।
৩. এই প্যাকটি স্ক্রাবের মত ত্বকে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এই প্যাকটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করতে পারবেন। হলুদে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টি ইনফ্লামমেটরি উপাদান। এছাড়া এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে, ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে। পেঁপে এবং হলুদ ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে।

(৬) টমেটো এবং পেঁপের ফেইসপ্যাক 

টমেটো এবং পেঁপের ফেইসপ্যাক - shajgoj.com

যা যা লাগবে

১) ১টি টমেটোর পেস্ট
২) ৪ টুকরা পেঁপে

যেভাবে তৈরি করবেন

১. পাকা পেঁপে ম্যাশ করে নিন।
২. পেঁপের ম্যাশের সাথে টমেটোর রস মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন।
৩. এটি মুখ এবং ঘাড়ে ব্যবহার করুন।
৪. শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এই প্যাকটি সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করুন। টমেটোর রস রোদে পোড়া ত্বক সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। এছাড়া এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে এবং ত্বকের পোরস হ্রাস করতে সাহায্য করে। তবে সাধারণত পেঁপের ফেইসপ্যাকের কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। পাপিন নামক উপকারী এনজাইম দিয়ে পেঁপে তৈরি। এছাড়া পেঁপেতে ল্যাটেক্স আছে যার কারণে ত্বকে অ্যালার্জি দেখা দিতে পারে।

তাহলে এবার আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো ফেইসপ্যাক ব্যবহার করে দেখুন আর ত্বককে করুন মসৃন ও উজ্জ্বল! আর আপনি ত্বকের যত্নে অথেনটিক প্রোডাক্ট খুঁজে থাকলে, সাজগোজ থেকে আপনার প্রোডাক্ট সংগ্রহ করতে পারেন। সাজগোজের দুইটি ফিজিক্যাল শপ রয়েছে যার একটি যমুনা ফিউচার পার্কে ও অপরটি সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে অর্ডার করেত পারেন, শপ.সাজগোজ.কম এ। সুস্থ থাকুন, সুন্দর থাকুন সবসময়!

ছবি সংগৃহীতঃ রিকুইল.কম; পিওরমার্ট.ইন; সাজগোজ

8 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...