ঈদের কেনাকাটা | ৬টি টিপস মেনে শপিং হোক আনন্দময়

ঈদের কেনাকাটা | ৬টি টিপস মেনে শপিং হোক আনন্দময়

খরচের খাতায় বেশ বড়সড় হিসেব যোগ করার সময় আবার এসেছে বছর ঘুরে। সামনে ঈদ বলে কথা! যার যার সাধ্য মতন প্রস্তুতি নেয়া হবে ঈদের আয়োজন সম্পূর্ণ করতে। সাধ ও সাধ্যের সমন্বয় কখনো হবে, কখনো বা মিলবে না এই দুটিতে। পছন্দের জিনিসটা হাতের মুঠোয় হয়তো আসবে, আবার হয়তো থেকে যাবে নাগালের বাইরেই। এই প্রাপ্তি আর অপ্রাপ্তির সমীকরণের মাঝেই ঈদ আসবে আনন্দের বার্তা নিয়ে। ঈদের জন্য প্রস্তুতি নেয়াও হোক আনন্দের। ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়ে যাতে তালগোল পাকিয়ে না যায়, তাই মাথায় থাকুক অল্পস্বল্প কিছু কথা।

ঈদের কেনাকাটা করার প্রস্তুতি যেভাবে নিবেন

১) বাজেট মেনে কেনাকাটা

ঈদের কেনাকাটা যথেষ্ট নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে বাজেট মেনে চলার বিকল্প নেই। যতো বিশাল অঙ্কের খরচ করার পরিকল্পনাই করুন না কেন, বাজেট ধরে করলেই সুবিধা পাবেন বেশি। কাজেই ঈদের কেনাকাটা শুরু করার আগে বাজেট বানিয়ে নেয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ। আপনি যতোই ইচ্ছেমতো খরচ করার সামর্থ্য রাখেন, যখন নির্দিষ্ট কোন খাতে একটু বেশি খরচ হয়ে যাবে, তখন অন্যান্য কেনাকাটায় কিছুটা প্রভাব পড়তেই পারে। মাথায় রাখুন এইসব খুঁটিনাটি দিকগুলি।

২) তালিকা থাকুক হাতের কাছে

ঈদের কেনাকাটা করতে গেলে তালিকা তৈরি করে সাথে নিয়ে যান। ভুলে কোন জিনিস যাতে বাদ না পড়ে যায়। ঈদের কেনাকাটা মানে খুব সামান্য কিছুতো নয়, অনেক জিনিসের ফাঁকে খুব দরকারের জিনিসটাই বাদ পড়ে যেতে পারে। তাই তালিকা সাথেই রাখুন। বিশেষ করে রান্নাঘরের কেনাকাটায় প্রচুর টুকিটাকি জিনিস থাকে, তাই কিছু ভুলে যাওয়ার সম্ভবনাও থাকে বেশি।

ঈদের কেনাকাটা করতে তালিকা থাকুক হাতের কাছে - shajgoj.com

সাজগোজের সামগ্রী কিনতে গেলেও তালিকা সাথে রাখা ভালো! যদি আগেই নিশ্চিত থাকেন কী কী চাচ্ছেন, কোন পণ্যটা কিনতেই হবে, কোন শেড-এর লিপ কালার চাই বা নেইল পলিশ কোন রঙের চাই, তবে তালিকা রাখাটা সুবিধাজনক হবে। অনেক রকম আর অনেক রঙের জিনিসের ভেতর আপনার চাহিদার জিনিসটা হারাবে না। দ্বিধায় পড়ে ভুল পণ্য বাছাই করার সম্ভবনাও কম থাকবে। আগে থেকেই আপনার সংগ্রহে থাকা কোন জিনিসও আবার ভুল করে কেনা হয়ে যাবে না তালিকা মেনে চললে।

৩) ভিন্ন ভিন্ন তালিকা হোক

ঈদে খরচ করার জায়গাতো একটা নয়, অনেক। ব্যক্তিগত কেনাকাটা, খাবারদাবার, ঘরের জিনিস, পরিবারের সব সদস্যের কেনাকাটা, প্রিয়জনের জন্য উপহার, আরো এমন কতো কিছু রয়েছে। তাই প্রতিটা খাতের আলাদা বাজেট, আলাদা তালিকা বানিয়ে নিন আগেভাগেই। তাতে একদিকে বেশি খরচ হয়ে অন্যদিকে টানাটানি পড়বে না।

৪) অনলাইনে যদি আস্থা থাকে

ঈদের কেনাকাটা করতে অনলাইন - shajgoj.com

কাছের হোক বা দূরে থাকা কেউ, প্রিয়জনদের জন্য উপহার কেনার দারুণ এক উপলক্ষ নিয়ে আসে ঈদ। দূরের কাউকে উপহার দিতে চাইলে ঈদের কেনাকাটা করতে অনলাইন শপ থেকে বেছে নিতে পারেন পণ্য। প্রিয়জনের ঠিকানায় যেন ঈদের অনেক আগেই পৌঁছে যায় আপনার শুভেচ্ছা উপহার। দেখেশুনে এমন শপ থেকে কিনবেন যাতে পণ্য নিয়ে নিশ্চিন্ত থাকা যায়।

৫) তাড়াহুড়ো ঠিক নয়

আজকের দিনটা একটু খালি আছে, হাতে অনেক সময়, যতোটা সম্ভব আজকেই সেরে ফেলা যাক কেনাকাটা! এমন চিন্তা খারাপ নয়, তবে কিছু ক্ষেত্রে ভালো নাও হতে পারে। এমনতো নয় যে সবকিছু ঠিক করাই আছে, যাবেন, ঝুড়িতে ভরবেন আর নিয়ে আসবেন! পছন্দ করে যখন কিনতে হবে জিনিসপত্র, তখন একটু রয়েসয়ে কেনাই ভালো। পরে হাপিত্যেশ করতে হয় না যেন! কোনদিন বেশি ফাঁকা সময় পেলে বরং ঘরের জিনিসপত্র কিনতে বেরিয়ে পড়ুন যেসব কেনার জন্য অতো বাছাই করার ব্যাপার থাকে না।

৬) সবার খুশি অটুট থাকুক

পরিবারের বাইরেও যাদের জন্য ঈদের কেনাকাটা করবেন, উপহার দেবেন, সম্পূর্ণ নিজের ইচ্ছে মতন না চলে তাদের পছন্দ-অপছন্দও মাথায় রাখুন। এমন একটা জিনিস দিয়ে বসবেন না যেটা যার জন্য কেনা তার খুব অপছন্দ হলো। ঈদের এই খুশিতে কেউ যেন মন মরা না হয় আপনার কারণে। তাই খেয়াল থাকুক সবদিকেই।

উপরের এই টিপসগুলো কতটা যে কার্যকরী, তা আসলে অ্যাপলাই না করা পর্যন্ত সেভাবে বুঝবেন না। তাই এই ঈদের কেনাকাটায় মেনেই দেখুন এই শপিং টিপসসমূহ!

 

ছবি- সংগৃহীত: সাজগোজ; ইমেজেসবাজার.কম

0 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...