নাইট গ্লো সিরাম | উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার ৪টি উপায় জানেন কী? নাইট গ্লো সিরাম | উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার ৪টি উপায় জানেন কী?

নাইট গ্লো সিরাম | উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার ৪টি উপায় জানেন কী?

লিখেছেন - সাদিয়া রিফাত ইসলাম সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭

ফর্সা উজ্জ্বল ত্বক কে না চায়! আর এই ফর্সা ও উজ্জ্বল ত্বকের জন্য নাইট গ্লো সিরাম (Glow Serum) খুব ভালো কাজ করে। নাইট গ্লো সিরামের নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের বিবর্ণ ভাব আস্তে আস্তে কমে গিয়ে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। তবে বাজারে ভালো মানের যেসব গ্লো সিরাম পাওয়া যায় সেগুলো অনেক দামি। আর অনেক রকম কেমিক্যাল (Chemical) থাকার কারণে এই দামি গ্লো সিরামগুলো সবার ত্বকে স্যুট-ও (Suit) করে না। এক্ষেত্রে এসব কিনে অযথা অর্থ নষ্ট না করে আপনারা ঘরেই বানাতে পারেন গ্লো সিরাম। আমি এখানে ৪ টি নাইট গ্লো সিরাম বানানোর পদ্ধতি দিচ্ছি। প্রতিটি রেসিপি ড্রাই টু নরমাল স্কিন টাইপের অধিকারীরা ব্যবহার করতে পারবেন। তবে প্রথম রেসিপি-টি ড্রাই টু নরমাল স্কিনের অধিকারী ছাড়াও অয়েলি স্কিন যাদের তারাও ব্যবহার করতে পারবেন।

নাইট গ্লো সিরাম বানানোর ৪টি পদ্ধতি

১ম পদ্ধতি

  • লেবুর রস – অর্ধেকটা
  • গ্লিসারিন (glycerine) – ১/২ চা চামচ
  • অলিভ অয়েল – ১/২ চা চামচ
  • অ্যালোভেরা জেল – ১.৫ চা চামচ
  • ভিটামিন ই ক্যাপসুল – ১ টা
  • গোলাপজল – ১/২ চা চামচ

সবকয়টি উপকরণ একটি পাত্রে খুব ভালো করে চামচ দিয়ে নেড়ে মিশাতে হবে। মিশানোর পর দেখতে সিরামের মতোই হবে। প্রতিদিন রাতে মুখ ভালো করে ফেইসওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করে অল্প করে এই গ্লো সিরাম হাতে নিয়ে লাগাতে হবে। সিরাম-টি এক সপ্তাহ পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে দেয়া যাবে।

২য় পদ্ধতি

সবকিছু মিশিয়ে একটি এয়ারটাইট (Airtight) পাত্রে ফ্রিজে  রাখতে হবে। আপনি এটি সাত থেকে আট দিন ফ্রিজে রাখতে পারবেন। প্রতিদিন ঘুমানোর আগে ময়েশ্চারাইজারের (Moisturizer) মতো সিরাম-টি মুখে লাগান। সকালে ঘুম থেকে উঠে ফেইসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন। ত্বকের জেল্লা (Skin Glow) আর কোমলতা আপনাকে চমকে দেবে।

৩য় পদ্ধতি

  • ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল
  • ১ টেবিল চামচ জোজোবা অয়েল
  • ৫ ফোটা ল্যাভেন্ডার অয়েল

এই নাইট গ্লো সিরাম-টির উপকরণগুলো বাংলাদেশে খুব বেশি সহজলভ্য না। তবে আজকাল বড় বড় শপিং মলগুলোতে এই এসেনশিয়াল (Essential Oil) অয়েলগুলো সবসময় পাওয়া যায়। তাছাড়া বিভিন্ন অনলাইন পেজেও এই তেলগুলো আপনি অর্ডার করতে পারেন। একটি কাঁচের বোতলের মুখে ছোট ফানেল (Small funnel) লাগান, এবার একে একে উপকরণগুলো ফানেল দিয়ে সাবধানে বোতলে ঢালুন। এবার বোতলটি ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিন। এমনভাবে ঝাঁকান যেন অ্যালোভেরা জেলের সাথে সব উপকরণ ভালোভাবে মিশে যায়। এবার এটি ফ্রিজে রেখে দিন। প্রতিবার ব্যবহারের পূর্বে ভালোভাবে বোতলটি ঝাঁকিয়ে নিবেন। এটি খুব বেশি ব্যবহার করা লাগে না। কয়েক ফোটা হাতে নিয়ে মুখে ভালোভাবে ম্যাসাজ করে নিলেই হবে। তবে ব্যবহারের পূর্বে মুখ অবশ্যই ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিবেন।

৪র্থ পদ্ধতি

  • ভিটামিন ই ক্যাপসুল (Vitamin E Capsul) একটি
  • অ্যালোভেরা জেল ১/৪ চ চামচ

আমার মতে এই নাইট গ্লো সিরাম-টি হচ্ছে সবচেয়ে সহজ সিরাম। বানানো যেমন সোজা, ব্যবহার করাও সোজা। খুব বেশি উপকরণও লাগে না। মাত্র দুটি উপকরণ দিয়ে এই গ্লো সিরাম-টি বানিয়ে ফেলা যায়। ভিটামিন ই ক্যাপসুল থেকে তেল বের করে নিন। এই তেলের সাথে অ্যালোভেরা জেল আঙ্গুল দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। রেডি আপনার গ্লো সিরাম। রোজ রাতে ঘুমানোর আগে মুখে লাগিয়ে ঘুমান। এক সপ্তাহ পর ফলাফল দেখে আপনি খুশি হয়ে যাবেন।

ছবি: সংগৃহীত – এভরিনিউট্রিয়েন্ট ডট কম