ঘরে বসেই চোখের সাজ (স্টেপ বাই স্টেপ) - Shajgoj ঘরে বসেই চোখের সাজ (স্টেপ বাই স্টেপ) - Shajgoj

ঘরে বসেই চোখের সাজ (স্টেপ বাই স্টেপ)

জুলাই ৪, ২০১৩

চোখ যে মনের কথা বলে! হ্যা ঠিকই ধরেছেন, বাঙালি মেয়েরা ঘর থেকে বের হলে,না সাজলেও চোখে একটু কাজলের ছোঁওয়া লাগাবেই। আর পার্টি সাজ হলে, চোখটা কে সুন্দর করে সাজালে, সিম্পল মুখের বেইসটা করে একটু গালে ব্লাস বুলিয়ে নিলেই হলো। পার্টিতে যাওয়ার জন্য তৈরী। তাছাড়া সবসময় আমাদের পার্লারে যাওয়ার সুযোগ হয়ে উঠেনা। তাই ঘরে বসে কিছু জিনিস কিনলেই সুন্দর আই মেক-আপ হয়ে যাবে। আজকাল পার্টি সাজে ব্ল্যাক স্মোকি আই, পিঙ্ক-পারপেল আই এর ট্রেনড চলছে। এখানে একটি পিঙ্ক-পারপেল আই এর Tutorial দেওয়া হলো।

pic1

০১. প্রথমে একটা টেপ দিয়ে চোখের বোটম লাইনর লাস্ট থেকে ব্রুর লাস্ট মাথা লাগিয়ে দিতে হবে। তারপর আই প্রাইমার লাগাতে হবে। আমাদের দেশে আই প্রাইমার পাওয়া যায়না। সেক্ষেত্রে বাইরে থেকে অর্ডার নিয়ে আনানো যায়। আজকাল অনেক ফেসবুক পেজ কসমেটিক্সের অর্ডার নেয়। কম দামের মধ্যে মুয়া (MUA) ব্র্যান্ডর সব আই প্রোডাক্ট ভালো। প্রাইমার এর বদলে যে কোনো শ্যাডো পেন্সিল দিয়েও কাজ চালিয়ে নেওয়া যায়। প্রাইমার দেওয়ার পর কালো কাজল দিয়ে ব্রু একে নিতে হবে। আজকাল মোটা ব্রুর ফ্যাশান চলছে।

০২. তারপর যে কোনো হালকা গোলাপি শ্যাডো দিয়ে চোখের বেইস তৈরী করতেহবে।

০৩. চোখের লিডে ( চোখের পাতার নীচের ভাগ) ভালো করে ব্লেন্ড করতে হবে। মনে রাখতে হবে ভালো করে ব্লেন্ড না হলে চোখের সাজ পরিপূর্ণ হবে না, এটা চোখের সাজের সব চাইতে প্রধান বিষয়।

০৪. চোখের পাশে কাজল দিয়ে একটা দাগ দিতে (ছবিতে দেওয়া আছে) হবে।

০৫. সেটাকে ব্লেনড করতে হবে ব্রাশ দিয়ে। স্পঞ্জ ব্রাশ দিয়েও ব্লেনড করা যায়, যদি ব্রাশ সেট না থাকে।

০৬. তারপর বেগুনী আর কমলা কালার এর আইশ্যাডো দিয়ে ক্রিজ করতে হবে। ভালো করে ব্লেন্ড করতে হবে।

০৭. ব্রু বোন হাইলাইটস করতে হবে যেকোনো শিমারি সাদা, গ্রে, গোল্ডেন শ্যাডো দিয়ে। টেপটা তুলে ফেলতে হবে। টেপ দিয়ে চোখের সাজ করলে সাজের শেপটা সুন্দর থাকে। চোখের বাইরে কোন শ্যাডোর ডাস্ট যায় না।

০৮. নীচের ওয়াটার লাইনে গ্রীন শ্যাডো আঙ্গেল ব্রাশ দিয়ে দিতে হবে।

০৯. দেয়া শেষ হলে আইলাস কার্লার দিয়ে লাস কার্ল করতে হবে। এতে করে আইলাস বড় দেখাবে।

১০. মাস্কারা দিতে হবে, চোখে বাঁকা করে। তাতে করে চোখের পাপড়ি বড় দেখাবে।

১১. আই লাইনার দিতে হবে টানা করে যাতে করে চোখটা বড় লাগে, দেখতেও সুন্দর লাগবে।

১২. সাজ পুরোটা শেষ হলে সবকিছু আবার ব্লেন্ড করতেহবে।

এখন আসা যাক ঘরে বসে আই মেক-আপ করতে নুন্যতম কি কি লাগবে? নতুন দের জন্য কিছু এসেনসিয়াল জিনিসের প্রয়োজন পড়বে। সেগুলো বিভিন্ন পেজের মাধ্যমে বাইরে থেকে আনালেই ভালো। আমাদের দেশেও ভালো পাওয়া যায় কিন্তু অনেক সময় জিনিস গুলো আসল না নকল দ্বিধায় ভুগি। নতুন দের জন্য যা লাগবে তা হলো –

০১. wet n wild (USA) এর শ্যাডো প্যালেট ৩টা এবং MUA ব্রান্ডের (UK) undressed, glamour night, poptastic প্যালেট। এটা আমাদের দেশে নেই। অর্ডার করে আনাতে হবে। এক একটা প্যালেট ৬০০-৮০০ এর মধ্যে পাওয়া যাবে। এই প্যালেটগুলো গুণগত ভাবে খুব ভালো। মোটামুটি এই কটা প্যালেট দিয়ে সব রকমের আই মেক-আপ করতে পারবেন। নুড, স্মোকি , ন্যাচারাল, পার্টি আই মেক-আপ।

০২. বাজারে পার্লারে ব্যবহার করা হয় এমন কিছু কমন শ্যাডো। দাম পড়বে এক একটা শ্যাডো ১০-১৫ টাকা।

০৩. একটা আই লাইনার এবং মাস্কারা, বাজারে lakme, alixavien, flormar, golden rose, revlon, loreal এর ভালো আই লাইনার এবং মাস্কারা পাওয়া যায়। বিদেশ থেকে আনাতে গেলে কম দামের মধ্যে ELF, wet n wild এর আই লাইনার জেল খুব  ভালো। দাম পড়বে ৩০০-৬০০ এর মধ্যে। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে জেল আইলাইনার ব্যবহার করার পর যথাসম্ভব বন্ধ করে ফেলতে হবে আইলাইনার মুখ। না হলে শুকিয়ে যাবে আইলাইনার।

০৪. একটা আইলাস কার্লার। বাজারে ভালো কার্লার পাওয়া যায়। দাম পড়বে ১৫০-৬০০ এর মধ্যে।

০৫. সব ধরনের কালার পাওয়ার জন্য একটা BH OR CS কসমেটিকস এর ১২০ কালার এর আইশ্যাডো বক্স আনাতে পারলে ভালো। দাম পড়বে ৩০০০-৪০০০ টাকা। চোখ নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে এই প্যালেট এর তুলনা নেই।

০৬. আই মেক-আপ বা মুখের মেক-আপ যেটাই হোক, একটা ভালো মানের ব্রাশ সেট লাগবে। প্রাথমিক অবস্থায় Coastal scents oreco tools or real techniques এর ব্রাশ নেয়া যেতে পারে। মোটামুটি কম দামের মধ্যে পাওয়া যাবে, যখন sale চলবে। দাম পড়বে ১১০০-৩০০০ এর মধ্যে।

০৭. একটা আই প্রাইমার লাগবে। কমের মধ্যে ELF এবং MUA primer এর দাম পড়বে ১৮০-৫০০।

মনে রাখতে হবে একদিনে কোন কিছুই শেখা যায়না। আস্তে আস্তে সব কাজে হাত এসে যায়। ধন্যবাদ সবাই কে।

লিখেছেনঃ তাপসী

মডেলঃ পাপিয়া রহমান