একনে প্রন স্কিনের জন্য চাই পারফেক্ট মেকাপ ! - Shajgoj একনে প্রন স্কিনের জন্য চাই পারফেক্ট মেকাপ ! - Shajgoj

একনে প্রন স্কিনের জন্য চাই পারফেক্ট মেকাপ !

অক্টোবর ১৫, ২০১৬

একনে/ পিম্পল/ ব্রণ যেটাই বলুন না কেন, এটি আমাদের অনেকের জন্যই একটি বড় সমস্যা। যার কারণে অনেকেই মেকাপ করতে ভয় পান। কিন্তু বিভিন্ন অকেশনে অনেক সময় মেকাপ নেয়ার প্রয়োজন পড়ে। আবার যাদের একনে প্রন স্কিন তাদের ব্রণ বেড়ে যাওয়ার ভয় তো রয়েছেই।  কিন্তু  অনুসরণ করলে আপনার ব্রণ নিয়ে চিন্তা একটু হলেও কমবে এবং ব্রণ বেড়ে যাওয়ার ভয়ও থাকবে না।  চলুন জেনে নিই।

(১) মেকাপ শুরুর আগে একটি মাইল্ড ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। খেয়াল রাখবেন ফেসওয়াশটি যেন আপনার একনে প্রন স্কিনের জন্য মানানসই হয়।
(২) একনে প্রন স্কিনে মেকাপের আগে স্ক্রাবিং না করাই ভালো। এতে পিম্পল বেড়ে যেতে পারে।
(৩) মেকাপ শুরুর আগে লাগিয়ে নিন একটি লাইটওয়েট, অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার। যেটি আপনার স্কিনের সাথে মানানসই।
(৪) এরপর একটি ম্যাট প্রাইমার লাগিয়ে নিন। প্রাইমার আপনার ফেসে একটি মসৃন ক্যানভাস তৈরি করতে এবং মেকাপ অনেকক্ষন ধরে রাখতে সাহায্য করবে। ম্যাট প্রাইমার আপনার ফেসের অতিরিক্ত অয়েল কন্ট্রোল করবে।

(৫) এবার ফাউন্ডেশন এর পালা। একটি লাইটওয়েট, ম্যাট ফাউন্ডেশন নির্বাচন করুন। স্যালসিলিক এসিড আছে এমন ফাউন্ডেশনগুলো একনে প্রন স্কিনে ভালো কাজ করে এবং পিম্পলের পরিমান কমিয়ে আনতেও সাহায্য করে।
এক্ষেত্রে, ই.এল.এফ একনে ফাইটিং ফাউন্ডেশনটি ভালো কাজে দিবে।
 ব্রাশ/স্পঞ্জের সাহায্যে ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড করে নিন।
(৬) এরপর আপনার দাগ, ডার্ক সার্কেল ঢাকার জন্য কনসিলার ব্যবহার করুন। ভালো কভারেজ এবং লাইটওয়েট একটি কনসিলার  বেছে নিন।
(৭) ফাউন্ডেশন /কনসিলার যেটিই ব্যবহার করুন না কেন, সেটি ব্রাশ/স্পঞ্জের সাহায্যে আপনার স্কিনের সাথে ঘষবেন না অথবা জোড়ে চেপে বসানোর চেষ্টা করবেন না। যত সম্ভব ধৈর্য নিয়ে আস্তে আস্তে ব্লেন্ড করবেন।
(৮) এবার ফাউন্ডেশন এবং কনসিলার সেট করে নেয়ার জন্য একটি লাইটওয়েট পাউডার লাগিয়ে নিন। এটিও জোরে প্রেস করার চেষ্টা করবেন না।
(৯) মেকাপ ব্রাশ/ বিউটি স্পঞ্জ যেটিই ব্যবহার করুন না কেন, তা যেন পরিষ্কার হয়। অপরিষ্কার মেকাপ ব্রাশে ব্যাক্টেরিয়া জমে। যা স্কিনে পিম্পল বাড়ানোর জন্য যথেষ্ট। এছাড়া আপনার হাতও পরিষ্কার হওয়া দরকার। এজন্য মেকাপ শুরুর আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সাহায্যে হাত পরিষ্কার করে নিন।
(১০) এরপর আপনার পছন্দমত ব্লাশ, কন্টুরিং, হাইলাইটার,  আই মেকাপ এবং লিপস্টিক লাগিয়ে নিন।
(১১) মেকাপের ফেস এ থাকাকালীন সময়ে ফেস যদি অয়েলি হয়ে যায়। তাহলে হাতের কাছে ব্লটিং পেপার রাখুন। যখনই ফেস অয়েলি মনে হবে। তখন একটি ব্লটিংপেপার নিয়ে ফেসে হালকা চাপ দিয়ে ধরে অয়েল শুষে নিন। ব্লটিং পেপার না থাকলে টিস্যুপেপার ব্যবহার করতে পারেন।
(১২) মেকাপ করার পরে মেকাপ তুলে ফেলতে ভুলবেন না। অধিকাংশই এই কারণে পিম্পল বাড়তে পারে। তাই অবশ্যই মেকাপ রিমুভ করে নিবেন। একটি ওয়েট ওয়াইপ মেকাপ রিমুভারে ভিজিয়ে নিয়ে পুরো ফেস এর মেকাপ তুলে নিন। এরপর ক্লিনজারের সাহায্যে ফেস পরিষ্কার করে নিবেন।
 
এভাবে, কিছু সাবধানি টিপস ফলো করলে অতিরিক্ত পিম্পলের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারেন।  আশা করি, এ লেখা থেকে আপনার একনে প্রন স্কিনে মেকাপের ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও উপকার হবে।

ছবি – বিউটিকেয়ার ডট কম

লিখেছেন – জান্নাতুল মৌ