ব্রণ সমস্যা দূরীকরণে জায়ফলের জাদুকরী ১০ ব্যবহার - Shajgoj

ব্রণ সমস্যা দূরীকরণে জায়ফলের জাদুকরী ১০ ব্যবহার

muskatni-orascic

সুপ্রাচীনকাল থেকে ভারতীয় উপমহাদেশে রান্নায় একটি অতি জরুরী সুগন্ধী মসলাহিসেবে জায়ফলের (Nutmeg) ব্যবহার হয়ে আসছে। রান্নায় ব্যাবহারের পাশাপাশি আমাদের মা–দাদীমায়েরা তাদের ত্বকের যত্নেও এই বিশেষ মসলার ব্যবহার করে এসেছেন। কারণ এতে রয়েছে বিশেষধরণের anti-oxidantএবং anti-bacterialসমৃদ্ধ  হিলিং প্রপার্টি যা কিনা ব্রণ হবার জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়া এবং ব্রণ থেকে সৃষ্ট ক্ষত সারানোর জন্য বিশেষ উপযোগী। আজকাল বাজারে বা সুপার শপগুলোতে জায়ফল গুঁড়া সব সময় পাওয়া যায়।চলুন এবারে জেনে নিই, এই জাদুকরী জায়ফল এর ১০টি ব্যবহার এর কৌশল যা কিনা আপনার ত্বককে ব্রণ থেকে মুক্ত করে আরও আকর্ষণীয় করে তুলবে।

[picture]

১। তৈলাক্ত ত্বকে একটি ভয়াবহ সমস্যা হল ব্রণ। এই ব্রণ সারাতে জায়ফল গুঁড়া করে এর সাথে মধু মিশিয়ে ৩০ মিনিট মুখে মেখে উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২। যাদের শুস্ক ত্বক তবুও রয়েছে ছোট ছোট জেদি পিম্পল, সেগুলো সারাতে জায়ফল গুঁড়ো করে এর সাথে জাফরান এবং দুধ মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন দেখবেন পিম্পল সেরে যাবে।

৩। ঘরোয়া উপাদান দিয়ে ফেইস স্ক্রাব বানানোর জন্য জায়ফল গুঁড়ার সাথে কফি ও অলিভ অয়েল মিশিয়ে ব্যাবহার করুন। এটি ত্বকের মরা চামড়া দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে খুবই কার্যকরী স্ক্রাব।

৪। Cystic acne সারানোর জন্য জায়ফল গুঁড়ার সাথে দারুচিনি গুঁড়া এবং টক দই মিশিয়ে মুখে মাখুন দেখবেন ২-৩ দিনের মধ্যে রেজাল্ট পাওয়া শুরু করবেন। তবে তার আগে পরীক্ষা করে নিবেন যেন আপনার ত্বকে দারুচিনি গুঁড়া সহ্য হয়। যদি ত্বকে লাগানোর পর জ্বালা পোড়া শুরু হয় তবে সাথে সাথে ধুয়ে ফেলতে হবে এবং পরবর্তীতে এটি বাদ দিতে হবে।

৫। ব্রণ এর ক্ষত সারানোর জন্য জায়ফল এর গুঁড়ার সাথে হলুদ গুঁড়া এবং ডাবের পানি মিশিয়ে ব্যাব্যহার করুন।

৬। ত্বক এর অতিরিক্ত তৈলাক্তভাব দূর করার জন্য জায়ফল গুঁড়ার সাথে বেকিং সোডা এবং পানি মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে ব্যাবহার করুন।

৭। ত্বককে টানটান রাখতে রেগুলার কফি গুঁড়া এবং জায়ফল গুঁড়ার সাথে পানি মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

৮। মুলতানী মাটির সাথে জায়ফল গুঁড়া এবং শঙ্খ গুঁড়া মিশিয়ে ব্রণ এর জন্য ফেইস প্যাক বানিয়ে সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের ফ্রেশনেস বাড়াবে।

৯। ব্রণ ঠেকাতে আরেকটি জাদুকরী উপায় হল, জায়ফল এর সাথে লেবুর রস এবং মধু মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট রাখুন এবং কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি রাতে ঘুমানোর আগে ব্যবহার করুন। কারণ যে কোন হিলিং মেথড এর জন্য রাত সবথেকে ভালো সময়।

১০। লবঙ্গ তেল এর সাথে জায়ফল গুঁড়া মিশিয়ে ব্রণ এর উপর ১৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণ এর ফোলা ভাব কমবে। লালচে ভাব দূর হবে এবং আকারে ছোট হয়ে আসবে।

আশা করি টিপসগুলো আপনাদের কাজে লাগবে এবং ব্রণ মুক্ত জীবন-যাপন করতে সাহায্য করবে।

লিখেছেন – ফারহানা শারমিন তৃষা

ছবি – ইমুজের.কম

3 I like it
1 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...