পিরিয়ডের দিনগুলো হোক সহজ - Shajgoj পিরিয়ডের দিনগুলো হোক সহজ - Shajgoj

পিরিয়ডের দিনগুলো হোক সহজ

মার্চ ৩১, ২০১৭

প্রত্যেকটি মেয়ের জীবনে একটা নির্দিষ্ট সময়ে পিরিয়ড শুরু হয় এবং প্রতি মাসে এটা হয়ে থাকে। পিরিয়ডের দিনগুলো কমবেশী সবার কাছেই একটু অন্যরকম যায়। অনেকেই মানিয়ে নিতে পারেন না, অনেক ধরণের সমস্যা দেখা দেয়, আবার অনেকে তো এটাকে ঝামেলাই মনে করেন!

তাই, পিরিয়ডের দিনগুলো যাতে একটু সহজ হয়, তার জন্য আজকে রইল কিছু টিপস। চলুন, জেনে নেই।

১. পিরিয়ডের সময় ব্লিডিং কখনো কম আবার কখনো বেশি হতে দেখা যায়। তাই বলে তো অনেক ধরনের প্যাড / স্যানিটারি ন্যাপকিন কেনা সম্ভব নয়। নরমাল দিনগুলোতে নরমাল প্যাডগুলো ব্যবহার করুন এবং অতিরিক্ত ব্লিডিং অথবা রাতের বেলা ঘুমাতে গেলে একটা নরমাল প্যাডের উপর অন্য একটা প্যাড লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে অতিরিক্ত ব্লিডিং হলেও ভয় থাকে না।

২. পিরিয়ডের সময় অনেকেরই তলপেটে ব্যথা হয়। এই ব্যথা দূর করতে হট ওয়াটার ব্যাগ ব্যবহার করুন তলপেটে। এই ব্যাগে হট ওয়াটার ভরে নিয়ে পেটে চেপে রাখুন, ব্যথা অনেক উপশম হবে।

আপনার কাছে হট ওয়াটার ব্যাগ না থাকলে একটা কাপড়ের ব্যাগে কিছু চাল ভরে নিন। ব্যাগের মুখ আটকে নিন ভালোভাবে যাতে চাল বেরিয়ে আসতে না পারে। এবার ব্যাগটি মাইক্রোওয়েভে / চুলার উপর একটি তাওয়া রেখে গরম করে নিন, যতটা আপনি সহ্য করতে পারবেন। এটাকেও একইভাবে ব্যবহার করুন।

৩. পিরিয়ডের দিনে চেষ্টা করবেন গাঢ় রঙ এর ড্রেস পড়তে। এতে আপনার ড্রেস এ দাগ লেগে গেলেও তা কম বোঝা যাবে।

৪. এই সময়ে নিজেকে ভেতর থেকে হাইড্রেট রাখা খুবই জরুরী। পানি পান করুন। তবে ঠান্ডা পানি একদমই খাবেন না। এছাড়া গ্রিন টি খেতে পারেন। এতে পেটেও আরাম পাবেন।

৫. পিরিয়ডের সময় কাপড়ে যদি দাগ লেগে যায়, তবে তা পরিষ্কার করতে গরম পানি ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। ব্যবহার করুন ঠান্ডা পানি । কারণ এতে সাবান ব্যবহারের ফলে দাগ উঠে গেলেও আপনার কাপড়ের কম ক্ষতি হবে।

৬. অতিরিক্ত ব্লিডিং এর সময় দিনের বেলা বাইরে গেলে অনেক সময় দাগ লেগে যাওয়ার ভয় থাকে। এক্ষেত্রে আপনাকে প্রটেক্ট করতে পারে লং কুর্তি, টপস অথবা কামিজ। তাই ঐ সব দিনগুলোতে এই ড্রেসগুলো পরার চেষ্টা করুন।

৭. যখন পিরিয়ডের সময় শাড়ি/ সালোয়ার পরবেন, তখন এক্সট্রা প্রোটেকশন পেতে শাড়ি/সালোয়ারের নিজে শর্ট প্যান্ট পরে নিতে পারেন। এতে অনেকটা হলেও দাগ লাগার ভয় থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৮. পিরিয়ডের সময় চা / কফি পান করা থেকে বিরত থাকুন। কারণ এগুলো আপনার তলপেটে ব্যথার সৃষ্টি করে। তবে গ্রিন টি খেতে পারেন।

৯. যারা স্কুল, কলেজ, অথবা জব করছেন, তারা তাদের ব্যাগে একটা ছোট ইমার্জেন্সি ব্যাগ রাখতে পারেন। যে ব্যাগে কিছু বেবি ওয়াইপ্স, কিছু প্যাড এবং বেবি র‍্যাশ ক্রিম রাখবেন। স্কুল, কলেজ, জবে লং টাইম ধরে একই প্যাড পরে থাকার ফলে র‍্যাশ দেখা দিতে পারে। তখন বেবি র‍্যাশ ক্রিম খুবই কাজে দেবে। এছাড়াও অনেকেরই পিরিয়ড সঠিক তারিখে হয় না। তাদের জন্য এই ব্যাগ খুব কাজে দেবে।

১০. যাদের পিরিয়ড ঠিক সময়ে হয় না, অনেকে তারিখ খেয়াল থাকে না, তাদের জন্যে রয়েছে একটি এপ্স। এই এপ্সটির নাম হলো “Clue”. এটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন। এতে আপনার পিরিয়ড কবে হবে তা আপনি আগে থেকেই বের করে ফেলতে পারবেন এবং এলার্মের মাধ্যমে আগে থেকেই আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে। এতে আপনি টেনশন ফ্রি থাকতে পারবেন।

সবশেষে বলবো, যাদের নতুন পিরিয়ড শুরু হয়েছে তাদের জন্যে এই দিনগুলো খুবই কঠিন মনে হয়। অনেক সমস্যা থাকে যা সমাধানের উপায় জানা থাকে না।তাদের জন্যে খুব সহায়ক হবে একজন ভালো বন্ধু। যে হতে পারে আপনার বেস্ট ফ্রেন্ড অথবা বোন। তাদের থেকে পেতে পারেন অনেক ধরণের টিপস এবং ট্রিকস।

ছবি – আইস্টক ডট কম
লিখেছেন – জান্নাতুল মৌ