রোজ ওয়াটার বিউটি হ্যাকস | সেলফ কেয়ারে গোলাপজল

রোজ ওয়াটার বিউটি হ্যাকস | সেলফ কেয়ারে গোলাপজল ব্যবহার করুন ৫টি উপায়ে

1

ত্বক ও চুলের যত্নে আমরা যত ধরনের প্রোডাক্টই মার্কেট থেকে কিনে ব্যবহার করি না কেন, ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে স্কিন এবং হেয়ার কেয়ার করার ব্যাপারটা কিন্তু একদম আলাদা এবং সেইফ। এমনই একটি উপকারী ইনগ্রেডিয়েন্ট রোজ ওয়াটার। আজকে জানাবো কয়েকটি রোজ ওয়াটার বিউটি হ্যাকস সম্পর্কে। এই হ্যাকসগুলো আপনার রেগুলার স্কিন এবং হেয়ার কেয়ারে কাজে লাগাতে পারবেন। চলুন তাহলে দেরি না করে জেনে নেই দারুণ ৫টি হ্যাকস সম্পর্কে।

সেলফ কেয়ারে রোজ ওয়াটার বিউটি হ্যাকস

১. রোজ ওয়াটার লিপ মাস্ক

শীতকাল চলছে। তাই এখন আমাদের ঠোঁট সহজেই ড্রাই এবং কালচে হয়ে যাবে সেটাই স্বাভাবিক। এছাড়া বাজে মানের লিপস্টিক ব্যবহারেও ঠোঁটের রঙ কালচে হয়ে যায়। রোজ ওয়াটার লিপ মাস্ক ব্যবহার করে ঠোঁটের কালচে ভাব সরিয়ে ঠোঁটে পিংকিশ ভাব আনতে পারবেন সহজেই।

এজন্য যা যা লাগবে –

  • রোজ ওয়াটার
  • বিটরুট
Lip mask
যেভাবে রোজ ওয়াটার লিপমাস্ক বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন-

১) একটি বিটরুটের ছোট টুকরো নিয়ে গ্রেটারের ছোট অংশ দিয়ে গ্রেট করে নিন।

২) এবার গ্রেটেড বিটরুট থেকে জুসটুকু ছেঁকে নিন। এর মধ্যে কিছুটা রোজ ওয়াটার যোগ করুন।

৩) প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে এটি ঠোঁটে ম্যাসাজ করুন। সারারাত রেখে সকালে ধুয়ে নিন। প্রতিদিন এই রুটিন মেনে চললে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে।

২. রোজ ওয়াটার ফেইস মাস্ক

অনেক সময় আমাদের স্কিন দেখতে প্রাণহীন লাগে, সাথে স্কিন টোনও নরমালের থেকে কালচে লাগে। এই অবস্থায় স্কিনকে একটু ব্রাইট দেখাতে ব্যবহার করতে পারেন রোজ ওয়াটার ফেইস মাস্ক।

এজন্য যা যা লাগবে –

  • রোজ ওয়াটার
  • মধু
  • হলুদ
face apply
রোজ ওয়াটার ফেইস মাস্ক যেভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন –

১) একটি বাটিতে ৩ চা চামচ রোজ ওয়াটার, ৪ চা চামচ মধু এবং হাফ চা চামচ হলুদ গুড়ো মিশিয়ে নিন।

২) এই মিশ্রণটি পুরো মুখ এবং গলায় অ্যাপ্লাই করুন এবং হাত দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এরপর ২০ মিনিট রেখে দিন।

৩) ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২-৩ দিন রাতে এই ফেইস মাস্কটি ব্যবহার করবেন।

৩. রোজ ওয়াটার ময়েশ্চারাইজার

ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে বাসায় বানানো ময়েশ্চারাইজার কিন্তু স্কিনের জন্য বেশ ভালো কাজ করবে। যদি আপনি এই শীতে সফট এবং গ্লোয়িং স্কিন চান, তবে রোজ ওয়াটার ময়েশ্চারাইজার আপনার অন্যতম বন্ধু হতে পারে।

এজন্য যা যা লাগবে –

  • রোজ ওয়াটার
  • গ্লিসারিন
  • আমন্ড অয়েল
moisturizer
রোজ ওয়াটার ময়েশ্চারাইজার যেভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন-

১) একটি বাটিতে ৩ চা চামচ রোজ ওয়াটার, ২ চা চামচ আমন্ড অয়েল, ১ চা চামচ গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি একটা বোতলে ভরে নিন।

২) পরিষ্কার ফেইস বা বডিতে এটি অ্যাপ্লাই করবেন। এতে স্কিন অনেক বেশ সফট এবং গ্লোয়ি হবে।

৪. রোজ ওয়াটার হেয়ার মাস্ক

চুলের যত্নে রোজ ওয়াটার খুব কম ব্যবহার করা হলেও এটি চুলের জন্যে বেশ কার্যকরী। চুলকে সফট এবং স্মুথ বানাতে এই রোজ ওয়াটার হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন।

এজন্য যা যা লাগবে –

  • রোজ ওয়াটার
  • মধু
  • অ্যালোভেরা জেল
hair mask
রোজ ওয়াটার হেয়ার মাস্ক যেভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন –

১) একটি পাত্রে ৩ টেবিল চামচ রোজ ওয়াটার, ২ টেবিল চামচ মধু এবং ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল নিয়ে মিশিয়ে একটা স্মুথ পেস্ট বানিয়ে নিন।

২) এটিকে চুলের স্ক্যাল্প থেকে নিচ পর্যন্ত অ্যাপ্লাই করুন। ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার লাগান। ফ্রিজ ফ্রি হেয়ার পেতে এটি সপ্তাহে ২ দিন ব্যবহার করবেন।

৫. রোজ ওয়াটার ফুট মাস্ক

শীতকালে অনেকেই পা ফাটার সমস্যায় ভোগেন। এছাড়া পায়ে ট্যান পড়ে যাওয়ার সমস্যা তো আছেই সবসময়। এর থেকে মুক্তি দিতে পারে রোজ ওয়াটার ফুট মাস্ক।

এজন্যে যা যা লাগবে –

  • রোজ ওয়াটার
  • কফি
  • কোকোনাট অয়েল
foot mask
রোজ ওয়াটার ফুট মাস্ক যেভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন –

১) একটি বাটিতে ১ চা চামচ করে কফি এবং কোকোনাট অয়েল নিন। এর মধ্যে ২ টেবিল চামচ রোজ ওয়াটার নিয়ে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

২) এই মিশ্রণটি পরিষ্কার পায়ে অ্যাপ্লাই করুন এবং ম্যাসাজ করতে থাকুন কিছুক্ষণ। ১০ মিনিট রেখে ওয়ার্ম ওয়াটার দিয়ে পা ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ২ দিন এই ফুট মাস্ক অ্যাপ্লাই করবেন। আস্তে আস্তে ট্যান এবং পা ফাটা দূর হয়ে যাবে।

এই তো জেনে নিলেন, রোজ ওয়াটারের কিছু বিউটি হ্যাকস। আশা করি, আপনাদের অনেক হেল্প হবে। অথেনটিক স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কিনতে চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত, সেখান থেকে কিনতে পারেন আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন।

 

 

ছবিঃ সাজগোজ

0 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...