ব্রেস্ট ঝুলে পড়ার কারণ ও সমাধান সম্পর্কে জেনে নিন

ব্রেস্ট ঝুলে পড়ার কারণ ও সমাধান

Untitled-1

দিন দিন আমার ব্রেস্ট ঝুলে যাচ্ছে, দেখতে খুবই বাজে লাগে! এখন আমি কী করব? প্রশ্নটি আমরা প্রায়ই শুনে থাকি। এতে আতঙ্কিত বা মন খারাপ করার কিছু নেই। অনেক কারণেই আমাদের ব্রেস্টের আকারে পরিবর্তন আসতে পারে। তার মধ্যে কিছু মেইন কারণ হলো আমাদের বয়স, ওজনের পরিবর্তন, ধূমপান করা, পর্যাপ্ত সাপোর্ট ছাড়াই ভারী কাজ করা ইত্যাদি। অনেক সময় আবার জেনেটিক কারণেও এমন হতে পারে। তবে এমন অবস্থায় প্যানিক না করে কিছু নিয়ম মেনে চললে সহজে মিলবে এর সমাধান। অনেকের আবার বয়সের আগেই এমন সমস্যা দেখা দেয়! তাই আজকে আমরা জেনে নিব, ব্রেস্ট ঝুলে পড়ার কারণ ও সমাধান সম্পর্কে।

কেন ব্রেস্ট ঝুলে পড়ে?

১) বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্বাভাবিকভাবেই ব্রেস্ট ঝুলে যায়

বয়স যত বাড়তে থাকে আমাদের ত্বকের যে আবরণ বা চামড়াও ধীরে ধীরে  কুঁচকে যায়। আমাদের মুখের চামড়ার মত আমাদের ব্রেস্টের চামড়ার টান টান ভাবও দিন দিন মলিন হতে থাকে। এটি খুবই স্বাভাবিক ব্যপার।

২) নিচু হয়ে বা বেশি ঝুঁকে কাজ করলে

বাসা বাড়ি বা অফিসে নানা কাজে আমরা অনেকেই অনেকক্ষণ ধরে একটানা ঝুঁকে থাকি বা নিচু হয়ে থাকি। এর ফলে আমাদের ব্রেস্টের আকারের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। প্রথম প্রথম বুঝা না গেলেও কিছুদিন পরেই পরিবর্তনটি লক্ষ্য করা যায়।

৩) প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক ব্রা ব্যবহার না করলে

ব্রা শব্দটা আমাদের অনেকের কাছেই ট্যাবুর মতো। তাই আমরা আমাদের প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক ব্রা পরিনা বা সঠিক মাপ জানিনা। কিন্তু এই ব্যাপারে স্বচ্ছ ধারণা খুবই জরুরি।  একদম শুরু থেকেই সঠিক মাপের এবং প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক ব্রা নির্বাচন করলে ভবিষ্যতে বিভিন্ন সমস্যা থেকে সহজেই প্রতিকার পাওয়া যায়। ব্রেস্ট ঝুলে যাওয়ার মতো সমস্যাও অনেক সময় সঠিক ব্রা সিলেক্ট না করার জন্যে হয়ে থাকে। আর এর সাথে দরকার সঠিক খাদ্যাভ্যাস এবং পর্যাপ্ত ঘুম।

৪) ওয়ার্ক-আউটের সময় স্পোর্টস ব্রা ব্যবহার না করলে

ওয়ার্কআউটের সময় শরীরের ওপর প্রচুর প্রেসার পড়ে। আমাদের ব্রেস্টের কোলাজেন ওয়ার্ক-আউটের সময় ভাঙতে থাকে। তাই এসময় আমাদের ব্রেস্ট যদি প্রপার সাপোর্ট না পায় সেক্ষেত্রে ব্রেস্ট ঝুলে পড়ে সহজেই। ওয়ার্কআউটের সময় চেষ্টা করতে হবে ঢিলাঢালা ব্রা না পরে স্পোর্টস ব্রা বা টাইট ফিটিং ব্রা পরার।

৫) স্মোকিং বা ধূমপান করার অভ্যাস থাকলে

আমরা যখন স্মোক করি তখন আমাদের সেলে থাকা ইলাস্টেনে এর প্রভাব পরে এবং এই ইলাস্টেন আস্তে আস্তে ভাঙতে শুরু করে। এ থেকে আমাদের ব্রেস্ট ঝুলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

৬) ব্রেস্ট এর সাইজ তুলনামূলক ভাবে বেশি বড় হলে

আমাদের মাঝে অনেকেরই ব্রেস্ট এর সাইজ অনেক বেশি বড় এবং ভারী হয়ে থাকে। যাদের শারীরিক গঠন এমন হয়ে থাকে তাদের ব্রেস্ট অন্যদের তুলনায় আগে আগে ঝুলে পরার প্রবণতা থাকে।

৭) গর্ভধারণের পরবর্তীকালীন সময়ের প্রভাবে

গর্ভধারণের সময় মেয়েদের ব্রেস্টের সাইজ অনেকটাই বড় হয়ে যায়। আবার কিছুদিন পর স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে। এই পরিবর্তনের ফলেই অনেক সময় মেয়েদের ব্রেস্টের আকার পরিবর্তন হয়ে ঝুলে পড়ে।

৮) শরীরের ওজন বেড়ে গেলে

একটি নির্দিষ্ট শেইপে ব্রেস্ট থাকাকালীন হঠাৎ করে শারীরিক গঠনের পরিবর্তন হলে অনেক সময় ব্রেস্ট ঝুলে যেতে পারে।

৯) জেনেটিকাল কারণে

আমাদের সবার শারীরিক গঠনই আমাদের বাবা-মায়ের জিনের ওপর নির্ভর করে। যদি ফ্যামিলিতে এমন অনেকেরই হয়ে থাক তবে আপনিও অনেক সময় সেখান থেকে এটি বংশগত ভাবে পেতে পারেন।

কীভাবে এই সমস্যা থেকে সমাধান পাবো ?

আমরা অনেকেই এমন হলে আতঙ্কিত হয়ে লজ্জায় পড়ে যাই। আবার অনেকে নিজের শারীরিক গঠন নিয়ে ডিমোটিভেটেড ফিল করি। সমস্যা যেমন রয়েছে তেমনি সমস্যার সমাধানও রয়েছে। চলুন জেনে নেই সমাধানগুলো-

১) প্রতিদিন নিয়ম মেনে ফিজিক্যাল এক্সারসাইজ করতে হবে। এতে আমাদের শারীরিক গঠন ঠিক থাকবে।

২) প্রতিদিনের খাবারের রুটিনে টাটকা শাক-সবজি এবং ফলমূল রাখতে হবে।

৩) যেকোনো ধরনের ফ্যাট জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

৪) বয়স এবং হাইট অনুযায়ী শরীরের ওজন স্বাভাবিক এবং নির্দিষ্ট রাখতে চেষ্টা করুন। শারিরিক ব্যালেন্স বজায় রাখাটা এক্ষেত্রে খুবই জরুরী।

৫) স্মোকিং বা ধূমপান যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।

৬) বাড়িতে বা অফিসে যেকোন ধরনের কাজ করার ক্ষেত্রে চেষ্টা করতে হবে যতটা সম্ভব মেরুদণ্ড সোজা রেখে কাজ করতে।

৭) সারাদিনে ঘুম থেকে উঠার পর থেকে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে ভুলবেন না।

৮) সঠিক মাপের এবং কাজ অনুযায়ী সঠিক ব্রা সিলেক্ট করুন।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্বাভাবিক ভাবেই আমাদের শরীরের গঠনে নানা রকম পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। আমরা আমাদের স্কিন এবং হেয়ার কেয়ারের ব্যপারের যতটা সচেতন তার মতোই যদি আমাদের ব্রেস্টের কেয়ারের ব্যাপারেও একটু খেয়াল রাখি, তাহলে সহজেই এমন সমস্যার সমাধান মিলবে।

আশা করছি, আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের উপকারে আসবে। আন্ডারগারমেন্টস কেনা নিয়ে যত প্রশ্ন আছে যেমন- কী রকম ব্রা পরবেন, কী সাইজের পরবেন, কী ফ্যাব্রিকের পরবেন, ব্রা কীভাবে ধুতে হবে, কোন বয়সে কীরকম শারীরিক গঠনে কেমন ব্রা পরবেন, এ সব ধরনের উত্তর নিয়েই সাজগোজ আছে আপনাদের সাথে। স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের পাশাপাশি আপনার জন্য সঠিক লঞ্জেরি আইটেমটি কিনতে ভিজিট করতে পারেন শপ.সাজগোজ.কম। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

ছবি- সাটারস্টক

278 I like it
46 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...