স্বল্প বাজেটে চুলের যত্ন নিন ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে!

স্বল্প বাজেটে চুলের যত্ন নিন ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে!

Hair Growth

এই ব্যস্ত লাইফে নিয়ম করে চুলের যত্ন নেওয়াটা বেশ কঠিন। আবার কেমিক্যালযুক্ত নানা জিনিস ব্যবহারে চুলের অবস্থাও দফারফা! একে তো জিনিস কেনার বাজেট বেশি, সাথে চুলের অবস্থা যে ভালো হচ্ছে, তাও নয়! ভাবছেন চুলের রেগুলার কেয়ারে কোথায় পাবেন নির্দিষ্ট বাজেটে ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে তৈরি প্রোডাক্ট? আজকের আর্টিকেলে জানাবো স্বল্প বাজেটে চুলের যত্ন নেওয়ার ন্যাচারাল কয়েকটি হেয়ার প্যাক সম্পর্কে।

স্বল্প বাজেটে চুলের যত্ন নিতে কয়েকটি হেয়ার প্যাক 

১) হেয়ার গ্রোথ বাড়াতে কার্যকরী প্যাক

হেয়ার ফল এবং হেয়ার গ্রোথ না হওয়া কমবেশি আমাদের সকলেরই সমস্যা। এই সমস্যার সমাধান খুঁজতে আমাদের কতই না চেষ্টা! হেনা প্যাক কিন্তু খুব সহজেই হেয়ার ফল রিপেয়ার করে হেয়ার গ্রোথ বাড়ায়। সপ্তাহে ১ দিন ব্যবহারে হেয়ার গ্রোথ বুস্ট তো হবেই, সাথে চুল হবে সফট ও শাইনি।

স্বল্প বাজেটে চুলের যত্নে হেনা প্যাক

প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে-
যেভাবে বানাবেন

প্রতিটি উপাদান একসাথে ভালো করে মিক্স করে নিন। চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত ভালোভাবে লাগিয়ে ৪৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার শ্যাম্পু করে ফেলুন। এই প্যাক ব্যবহারে চুলের ভলিউম খুব দ্রুত বাড়ে, হেয়ার কিউটিকল সিল ও রিপেয়ার হয়, হেয়ার ব্রেকেজ প্রিভেন্ট হয়, স্ক্যাল্পের pH লেভেল ব্যালেন্স হয়।

২) ড্যামেজ হেয়ার রিপেয়ার মাস্ক

বিজি লাইফে হেয়ার কেয়ার করার সময় বের করা বেশ কঠিন। এদিকে হেয়ারও দিন দিন ড্যামেজ হয়ে যাচ্ছে! আজকে আপনাদের জানাবো স্বল্প বাজেটে চুলের যত্ন নিতে খুব ইজি একটি হেয়ার রিপেয়ার মাস্কের কথা, যেটি উইকলি মাত্র একবার ব্যবহারে ড্যামেজ হেয়ার রিপেয়ার হবে। এই মাস্কে আছে আমলা, নিম, রিঠা, হেনাসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদানের পারফেক্ট ব্লেন্ডিং।

মাস্কটি বানাতে যা যা লাগবে-
স্বল্প বাজেটে হেয়ার রিপেয়ার মাস্ক
যেভাবে বানাবেন

প্রতিটি উপাদান ভালোভাবে মিক্স করে চুলের আগা ও গোড়ায় অ্যাপ্লাই করে নিন। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। বেস্ট রেজাল্ট পেতে সপ্তাহে ১ দিন প্যাকটি ইউজ করুন।

৩) ড্যানড্রাফ দূর করার হেয়ার প্যাক

চুলের জন্য ড্যানড্রাফ খুব কমন একটি প্রবলেম। ঘরোয়া উপায়ে খুশকি দূর করার কার্যকরী সমাধান হতে পারে আমলার ব্যবহার। কারণ আমলা ভিটামিন সি, আয়রন ও ক্যালসিয়ামে ভরপুর। এতে উপস্থিত ভিটামিন ও মিনারেলগুলো কোলাজেন প্রোডাকশন বৃদ্ধি করে, হেয়ার গ্রোথ বাড়ায় এবং চুলের ড্যানড্রাফ দূর করে।

এই প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে-
যেভাবে বানাবেন

দুটো উপাদান ভালোভাবে মিক্স করে স্ক্যাল্পে লাগিয়ে নিন। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এই প্যাক ব্যবহারে খুশকি তো দূর হবেই, সাথে চুলের ড্রাইনেস ও ফ্রিজিনেসও কমে আসবে। নিয়মিত ব্যবহারে পার্থক্য আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

৪) শুষ্কতা ও রুক্ষতা দূর করার হেয়ারপ্যাক

প্রতিদিনের পল্যুশন এবং রেগুলার কেয়ার না করার কারণে চুল হয়ে ওঠে রুক্ষ ও শুষ্ক। এই রুক্ষতা দূর করে চুলে সজীবতা ফেরাতে হিবিসকাস পাউডার হতে পারে বেস্ট একটি সল্যুশন। এতে উপস্থিত অ্যান্টি অক্সিডেন্ট চুলের রুক্ষ শুষ্কভাব কমিয়ে আনে। এছাড়া জবা ফুলে থাকা অ্যামিনো অ্যাসিড চুল কোমল রাখতেও বেশ হেল্প করে।

প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে-
হিবিসকাস পাউডার
যেভাবে বানাবেন

সবগুলো উপাদান একসাথে ভালোভাবে মিক্স করে নিন। এবার স্ক্যাল্পে ও চুলে অ্যাপ্লাই করুন। ১ ঘন্টা পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। বেস্ট রেজাল্ট পেতে সপ্তাহে অন্তত একবার ব্যবহার করুন। জবা ফুল ন্যাচারাল একটি ইনগ্রেডিয়েন্ট। আর চুলের জন্য ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্ট ব্যবহার করলে বেনিফিট পাওয়া যায় সবচেয়ে বেশি।

৫) হেয়ার ফল দূর করার কার্যকরী প্যাক

মরিঙ্গা অর্থাৎ সজিনা পাতায় রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এ, বি১, সি, ই সহ আরও পুষ্টিকর নানা উপাদান। ১০০% ন্যাচারাল ও অর্গানিক এই মরিঙ্গা পাউডারের প্যাক ব্যবহারে চুল পড়ার সমস্যা কমে আসবে অনেকখানি। মরিঙ্গায় আরও আছে জিংক। এই উপাদানটি চুলকে শক্ত রাখতে, হেয়ার গ্রোথ বাড়াতে এবং ড্যামেজ হেয়ার রিপেয়ার করতেও বেশ কার্যকর।

প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে-
যেভাবে বানাবেন

সবগুলো উপাদান একসঙ্গে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। চুলে অ্যাপ্লাই শেষে ৪৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। গোসলের সময় মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। মরিঙ্গা পাউডার শুধু চুলের জন্যই নয়, ত্বকের জন্যও সমানভাবে বেনিফিসিয়াল। বয়সের ছাপ ও পিগমেন্টেশন দূর করতে, একনে কমাতে এবং ত্বক উজ্জ্বল করতে এর জুড়ি নেই।

মরিঙ্গা পাউডার

৬) চুল সিল্কি ও শাইনি করার প্যাক

চুল সিল্কি ও শাইনি করতে কে না চায়? কিন্তু চুলের টেক্সচার ঠিক রেখে সেটা সব সময় করা যায় না। আজকে এমন একটি প্যাক সম্পর্কে জানাবো যেটি ব্যবহারে চুল সিল্কি ও শাইনি তো হবেই, সাথে হেয়ার রুট শক্ত হবে, হেয়ার ফল কমবে, নতুন চুল গজাবে।

প্যাকটি বানাতে যা যা লাগবে-
যেভাবে বানাবেন-

সবগুলো উপাদান একসঙ্গে মিক্স করে চুলে অ্যাপ্লাই করুন। প্যাকটি ৩০ মিনিট রেখে দিন। এবার স্ক্যাল্প ও হেয়ার শাফটে ছোট ছোট সেকশন করে প্যাক অ্যাপ্লাই করুন। এক ঘন্টা পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। রেগুলার হেয়ার কেয়ারের পাশাপাশি এই প্যাক ব্যবহারে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ডিফারেন্স আপনার নজরে আসবে।

 

এই তো জেনে নিলেন, ন্যাচারাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে তৈরি রেডিমেড হেয়ার প্যাকগুলো সম্পর্কে। চুলের সমস্যা বুঝে এখন সহজেই বেছে নিতে পারবেন আপনার দরকারি প্যাকটি। হেয়ার কেয়ার সহ স্কিন ও মেকআপের বিভিন্ন প্রোডাক্টের জন্য সাজগোজ আমার পছন্দের জায়গা। অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে অথবা সাজগোজের চারটি ফিজিক্যাল শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার এবং উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) থেকে বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি।

ছবিঃ সাজগোজ

23 I like it
11 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...