ন্যাচারালি ফ্রেশ ও ব্রাইট লুক পেতে স্কিন কেয়ারে পাখির বাসা!

ন্যাচারালি ফ্রেশ ও ব্রাইট লুক পেতে স্কিন কেয়ারে পাখির বাসা!

2

স্কিন যেমনই হোক না কেন স্কিন কেয়ার কমবেশি আমরা সবাই করি। কিন্তু ন্যাচারালি স্কিনের ব্রাইটনেস কীভাবে বাড়বে, কীভাবে একনে প্রন প্রবলেমের সল্যুশন হবে, আবার একই সাথে অ্যান্টি এজিং প্রোপার্টিজ থাকবে কিনা এসব নিয়ে সব সময় আমাদের মাঝে কনফিউশন কাজ করে। স্কিন কেয়ারে অনেক ধরনের ইনগ্রেডিয়েন্ট ব্যবহার করলেও পাখির বাসা দিয়ে তৈরি প্রোডাক্টের কথা খুব বেশি প্রচলিত নয়। অথচ স্কিন ব্রাইটেনিং, অ্যান্টি এজিং, একনে ট্রিটমেন্টসহ অনেক বেনিফিট পাওয়া যায় এই উপাদানটি থেকে। আজকের আর্টিকেলে জানাবো ন্যাচারালি ফ্রেশ ও ব্রাইট লুক পেতে পাখির বাসা দিয়ে তৈরি স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কীভাবে ব্যবহার করা হয় সে সম্পর্কে।

স্কিন কেয়ারে পাখির বাসা কীভাবে এলো?

সাউথ ইস্ট এশিয়ার ছোট একটি পাখির নাম Edible-nest swiftlet। এই ছোট ছোট পাখিগুলো সাউথ ইস্ট এশিয়ার পরিত্যক্ত বাড়ি বা গুহাগুলোতে তাদের নেস্ট বা বাসা তৈরি করে। এই পাখির বাসাগুলো কিন্তু অন্যান্য পাখির বাসার মতো নয়। এগুলো একটু স্পেশাল হয়। কারণ পাখিগুলো তাদের saliva অর্থাৎ মুখের লালা থেকে এই বাসাগুলো তৈরি করে। নন-ট্রান্সপারেন্ট ও সাদা এই নেস্টগুলো খুব সহজেই ভেঙে ফেলা যায়। এই বাসা দিয়েই পরে বানানো হয় বিভিন্ন ধরনের হেলদি ও টেস্টি ফুড।

স্কিন কেয়ারে পাখির বাসা

বিউটি ট্রিটমেন্টে কেন এটি বেনিফিসিয়াল?

সুস্বাদু বিভিন্ন খাবারেই শুধু নয়, বিউটি ট্রিটমেন্টেও বার্ডস নেস্টের বেশ ভালো রেপুটেশন আছে। কারণ এই পাখিটির স্যালাইভাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, polysaccharides, trace elements সহ অন্যান্য পুষ্টিকর ও হারবাল প্রোপার্টিজ, যা স্কিনের জন্য বেশ উপকারী। Swiftlet Bird’s Nest Extract থেকে স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট ফরমেশনের জন্য নেস্ট এক্সট্র্যাক্টকে শুরুতে পাউডার ফর্ম করা হয়। পরে এই পাউডারের সাথে যোগ করা হয় প্রোডাক্ট ফর্মুলা। অনেক আগে থেকেই এই বার্ডস নেস্ট এক্সট্র্যাক্ট বিউটি ট্রিটমেন্ট হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। এই উপাদানটি স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড ও ব্রাইট করার পাশাপাশি স্কিনকে অক্সিডেশন থেকেও প্রোটেক্ট করে।

গ্রুমি ব্র্যান্ড নিয়ে কিছু কথা

স্বনামধন্য স্কিন কেয়ার ব্র্যান্ড গ্রুমি ডার্মাটোলজিস্ট ও এক্সপার্টদের পরামর্শ নিয়ে এবং সায়েন্স মেনে প্রোডাক্ট তৈরি করে। তাছাড়া এতে আর্টিফিসিয়াল কোনো কালার ব্যবহার করা হয় না। গ্রুমি ব্র্যান্ড স্কিন কেয়ার রেঞ্জে নিয়ে এসেছে দুটো নতুন ফেইস ওয়াশ। সেগুলো হচ্ছে- গ্রুমি বার্ডস নেস্ট ব্রাইটেনিং ফেইস ওয়াশ এবং গ্রুমি গ্রিন ক্লে অয়েল কন্ট্রোল ফেইস ওয়াশ

বার্ডস নেস্ট

গ্রুমি বার্ডস নেস্ট ব্রাইটেনিং ফেইস ওয়াশটি কেন স্পেশাল?

গ্রুমি’র নতুন এই ফেইস ওয়াশটি তৈরি হয়েছে Swiftlet Bird’s Nest Extract থেকে। মডার্ন রিসার্চ অনুযায়ী, এই বার্ডস নেস্ট এক্সট্র্যাক্টটি গ্রোথ ফ্যাক্টর কন্টেইন করে। অর্থাৎ স্কিন সেলসের মেটাবলিজম বাড়ায়। এতে হিউম্যান বডির স্কিন ও টিস্যু রিপেয়ার খুব ফাস্ট ও ইফেক্টিভলি হয়। এপিডারমাল গ্রোথ ফ্যাক্টর স্কিনে কোলাজেন প্রোডাকশন বুস্ট করার কারণে ইয়াংগার লুকিং স্কিন পাওয়া যায়। আরও একটি কারণে এই ফেইস ওয়াশটি স্পেশাল। সেটি হচ্ছে- সব ধরনের স্কিনেই এটি ব্যবহার করা যায়। এমনকি সেনসিটিভ স্কিনেও এটি স্যুইটেবল। এটি বেশ জেন্টল হওয়ায় স্কিনে মোটেও হার্শ ফিল হয় না।

ত্বকের জন্য এটি কেন বেনিফিসিয়াল?

১) ফেইস ওয়াশটি স্কিনকে ডিপলি ক্লিন করে। এই ফেইস ওয়াশে ব্যবহৃত বার্ডস নেস্ট এক্সট্র্যাক্টটি ন্যাচার থেকে পাওয়া পাওয়ারফুল একটি স্কিন লাইটেনিং ইনগ্রেডিয়েন্ট। ফলে এটি সেইফলি স্কিনের ডার্ক স্পটস এবং হাইপারপিগমেন্টেশন ফেড আউট করে স্কিনকে করে ব্রাইট অ্যান্ড লাইট। এক কথায় ন্যাচারালি ফ্রেশ ও ব্রাইট লুক পেতে এটি বেস্ট একটি অপশন।

২) এতে থাকা ভিটামিন এ ও ই স্কিনকে হেলদি ও ময়েশ্চারাইজড রাখতে বেশ হেল্পফুল। এটা রেডিশ স্কিনেও সুদিং ফিল দেয়।

৩) এতে আরও আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট প্রোপার্টিজ, কোলাজেন ও অ্যামিনো অ্যাসিড যা স্কিনকে ফার্ম করে, রিংকেলস ও ফাইন লাইনস রিমুভ করে। এছাড়া আছে প্রোটিন, যা স্কিন ব্যারিয়ার প্রোটেক্ট করে স্কিনে ইয়ুথফুল কমপ্লেক্সন দেয়।

৪) একনে সমস্যার সমাধানেও এই ফেইস ওয়াশটি বেশ কার্যকর। এটি ব্যবহারে পাবেন একনে ফ্রি ক্লিন স্কিন। কারণ বার্ডস নেস্ট এক্সট্র্যাক্ট এর অ্যান্টি অক্সিডেন্টসের কনসেন্ট্রেশন হাই হওয়ার কারণে ইফেক্টিভ একনে ট্রিটমেন্ট হিসেবেও কাজ করে।

৫) এতে আরও আছে নিয়াসিনামাইড, স্যালিসাইলিক অ্যাসিড যা পোর মিনিমাইজ করে, স্কিন এক্সফোলিয়েট করে, একনে ট্রিট করে এবং টেক্সচার স্মুথ করতে হেল্প করে।

ক্লেনজিং

যেভাবে ব্যবহার করবেন

  • হাতের তালুতে অল্প পরিমাণে ফেইস ওয়াশ নিয়ে ফেইসে অ্যাপ্লাই করে নিন।
  • জেন্টলি ম্যাসাজ করুন।
  • পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • ফেইস ক্লিন করার পর স্কিনের জন্য স্যুইটেবল ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।
  • ভালো ফলাফলের জন্য দিনে দুইবার ব্যবহার করুন।

সতর্কতা

  • ব্যবহারের আগে অবশ্যই প্যাচ টেস্ট করে নিন।
  • শুষ্ক ও ঠান্ডা স্থানে সরাসরি সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখুন।
  • শুধুমাত্র বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য প্রযোজ্য। চোখ থেকে দূরে রাখুন। চোখের সংস্পর্শে এলে তাৎক্ষণিকভাবে পর্যাপ্ত পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলুন।
  • শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

প্যাকেজিং ও দাম

গ্রুমির ডিপ গ্রিন কালারের এই ফেইস ওয়াশটির প্যাকেজিং বেশ আকর্ষণীয়। ক্রিমি টেক্সচারের ফেইস ওয়াশের কালার সাদা। এটির দামও বেশ রিজনেবল। বাজেট ফ্রেন্ডলি হওয়ায় স্টুডেন্টরাও ইজিলি কিনতে পারবে। প্যাকেটটির ওজন মাত্র ১০০ মি. লি.।

ক্রিমি টেক্সচার

টেক্সচার ও স্মেল

বার্ডস নেস্ট ফেইস ওয়াশটির টেক্সচার ক্রিমি। তাই প্রতিবার ব্যবহারে পরিমাণে খুব বেশি নিতে হয় না। আর এর স্মেলটাও বেশ মিষ্টি। ব্যবহারের সময় রিফ্রেশ ফিল হয়।

আমার এক্সপেরিয়েন্স

১) স্কিনের গ্লো ফেরাতে স্কিন কেয়ারে কিছুদিন আগেই আমি যুক্ত করেছিলাম গ্রুমির ভিটামিন সি ১২% সিরামটি। ইফেক্টিভ রেজাল্ট পাওয়ায় গ্রুমির প্রতি আলাদা ভরসা তৈরি হয়েছিল। সেই ভরসা থেকেই এবার এই ফেইস ওয়াশটি ব্যবহার করেছি। ন্যাচারালি ফ্রেশ ও ব্রাইট লুক পেতে এটি আমার কাছে বেশ হেল্পফুল মনে হয়েছে।

২) সারাদিন পর বাহির থেকে এসে এটি দিয়ে ক্লেনজিং করলে স্কিন ডিপলি ক্লিন হয়। সাথে স্কিন ব্রাইটও করে।

৩) একনের কিছু স্পট ছিল স্কিনে। সেটাও ধীরে ধীরে কমে আসছে।

৪) আমার স্কিন ড্রাই বলে দরকার ছিল এমন একটি ফেইস ওয়াশ যেটি স্কিনকে রাফ করবে না। গ্রুমি ব্যবহার করে আমার স্কিনে বেশ সফট ফিল হয়েছে। যাদের অয়েলি স্কিন, তাদেরকে আমি সাজেস্ট করবো গ্রুমির অয়েল কন্ট্রোল ফেইস ওয়াশটি ইউজ করার জন্য।

৫) ফেইস ওয়াশটির প্যাকেজিং ট্রাভেল ফ্রেন্ডলি হওয়ায় ইজিলি ক্যারি করা যায়।

 

এই তো ছিল আমার এক্সপেরিয়েন্স। স্কিন কেয়ারসহ হেয়ার ও মেকআপের জন্য অথেনটিক যে কোনো প্রোডাক্ট কেনার জন্য আমার ভরসার জায়গা সাজগোজ। অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে অথবা সাজগোজের চারটি ফিজিক্যাল শপ- যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার এবং উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) থেকেও কিনতে পারেন আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি।

ছবিঃ সাজগোজ

3 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...