ফ্ললেস মেকআপ বেইজ ক্রিয়েট করতে সেরা ৫টি প্রাইমার

ফ্ললেস মেকআপ বেইজ ক্রিয়েট করতে সেরা ৫টি প্রাইমার

5

মেকআপ করার কিছুক্ষণ পর মেল্ট বা কেকি হয়ে গেলে কিন্তু লুকটা দেখতে একদম ভালো লাগে না। এই সমস্যা যেন না হয় সেজন্য মেকআপ শুরুর আগে স্কিন প্রিপেয়ার করে নিতে হবে। আর স্কিন প্রিপেয়ার করার জন্য অ্যাপ্লাই করতে হবে প্রাইমার। আমাদের অনেকের স্কিনে অল্প বয়সেই ফাইন লাইনস বা রিংকেলস দেখা যায়, কারো হয়তো স্পটস বা পোরস বেশি ভিজিবল হয়। স্মুথ স্কিন পেতে মেকআপের ফার্স্ট স্টেপে প্রাইমার ইউজ করে এই প্রবলেমগুলো হাইড করা যায়। আপনি কি কনসার্ন অনুযায়ী প্রাইমার খুঁজছেন? আজকে আমি জানাবো ফ্ললেস মেকআপ বেইজ ক্রিয়েট করার জন্য বাজেট ও কনসার্ন অনুযায়ী সেরা ৫টি প্রাইমার সম্পর্কে। এই প্রাইমারগুলো থেকে খুব সহজেই আপনি আপনার পছন্দেরটি বেছে নিতে পারবেন।

Topface Pore Minimizer Sensitive Mineral Primer Beige 003

অয়েলি টু কম্বিনেশন স্কিনের জন্য যারা প্রাইমার খুঁজছেন তাদের জন্য Topface Pore Minimizer Sensitive Mineral Primer টি একদম পারফেক্ট। প্রাইমারটি স্কিনের পোরস মিনিমাইজ করতে, অয়েলি ভাব কমাতে এবং রিংকেলস ঢাকতে বেশ ভালো কাজ করে। এক কথায়, অয়েল কন্ট্রোল করে স্কিনে ইনস্ট্যান্ট স্মুথ ফিনিশ দিবে এটি। যারা এই প্রাইমারটি আগে ইউজ করেছেন তারা জানেন এটির ফিনিশিং কতটা স্মুথ। এই প্রাইমারের ফর্মুলায় আছে ভিটামিন ও মিনারেল কমপ্লেক্স, শিয়া বাটার ও প্রিবায়োটিকস, যা স্কিনে ড্রাই ফিল হতে দেয় না। ৩০ মি.লি. এর টিউবে প্রাইমারটি পাওয়া যায়। বেশ হ্যান্ডি বলে ইজিলি ব্যাগে ক্যারি করতে পারবেন। ফ্ললেস বেইজ মেকআপ ক্রিয়েট করতে পারফেক্ট একটি চয়েস হতে পারে এই প্রাইমারটি। যারা একটু হাই এন্ড রেঞ্জের প্রোডাক্ট প্রিফার করছেন তাদের জন্য এটি বেস্ট চয়েস হতে পারে।

ফ্ললেস মেকআপ বেইজ পেতে বেস্ট প্রাইমার

L.A. Girl Primer Spray

আমাদের মধ্যে অনেকেই জেল বা ক্রিমি টেক্সচারের বদলে প্রাইমার স্প্রে প্রিফার করেন। তাদের জন্য L.A. Girl Primer Spray বেস্ট অপশন হতে পারে। এই স্প্রে তে আছে Glycerin & Botanical purslane এক্সট্র্যাক্ট, যা স্কিন হাইড্রেটেড রাখতে হেল্প করে। অল টাইপ স্কিনে ইউজ করা যাবে। স্কিন প্রিপেয়ার করার জন্য চোখ বন্ধ করে চোখের এরিয়া হাত দিয়ে ঢেকে পুরো মুখে প্রাইমার স্প্রে করে নিন। অন্য ব্র্যান্ডের তুলনায় কম্পারেটিভলি এর দাম কিছুটা কম। টিনেজাররাও স্মুথ স্কিন পেতে এই প্রাইমারটি ইউজ করতে পারবেন। ৮০ মি.লি. এর এই স্প্রেটি ইজিলি ব্যাগে ক্যারি করা যাবে।

প্রাইমার স্প্রে

Maybelline Baby Skin Instant Pore Eraser (UK)

জনপ্রিয় মেকআপ ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে Maybelline ব্র্যান্ডের সাথে আমরা অনেকেই পরিচিত। Maybelline Baby Skin Instant Pore Eraser টি একই সাথে ইনস্ট্যান্ট ম্যাট ফিনিশ দিবে, স্কিন ফ্রেশ, সফট ও প্রোটেক্টেড রাখবে এবং কমিয়ে আনবে ফাইন লাইনস, রিংকেলসের ভিজিবিলিটি। এর জেল টেক্সচার ইনস্ট্যান্টলি ওপেন পোরস ব্লার করতে হেল্প করবে এবং সারাদিনের জন্য স্কিনে লাইট ফিল দিবে। অনেকে স্কিনে শাইনিভাব প্রিফার করেন না। তাদের জন্য এটি বেস্ট চয়েস হতে পারে। প্রাইমারটি ২০ মি.লি. পরিমাণে একটি টিউবে থাকে। ইজিলি ব্যাগে ক্যারি করতে পারবেন। ড্রাগস্টোর ব্র্যান্ডের প্রাইমারগুলোর মধ্যে এটি বেস্ট।

ফ্ললেস মেকআপ বেইজ ক্রিয়েট করতে প্রাইমার

Lollis Professional Touch Primer Base 01

Lollis Professional Touch Primer Base 01 প্রাইমারটি পোরস হাইড করতে, রেডনেস রিডিউস করতে, স্কিন হাইলাইটেড রাখতে হেল্প করে। আর এই সবগুলো পয়েন্ট একসাথে ফিলআপ হওয়া মানে বেইজ মেকআপ ফ্ললেস হওয়া। স্মুথ বেইজ পাওয়ার জন্য ফাউন্ডেশনের সাথে প্রাইমারটি মিক্স করে অ্যাপ্লাই করুন। অল টাইপ স্কিনে ইউজ করা যাবে। যাদের বাজেট একটু বেশি এবং কোয়ালিটির সাথে কম্প্রোমাইজ করতে চান না, তাদের জন্য নিঃসন্দেহে একটি বেস্ট চয়েস হতে পারে এটি। ৩০ মি.লি. পরিমাণে একটি ট্রান্সপারেন্ট বোতলে থাকে। ব্ল্যাক ও ট্রান্সপারেন্ট কম্বিনেশনের এই প্রাইমারের প্যাকেজিংটি দেখতে বেশ আইক্যাচি।

Lollis Professional Touch Primer Base 01

Note Skin Perfecting Primer

কম্বিনেশন বা অয়েলি স্কিনের জন্য অল্টারনেটিভ চয়েস হতে পারে Note Skin Perfecting Primer। এই প্রাইমারটির টেক্সচার স্মুথ ক্রিমি হওয়ায় এটি একদম লাইট ওয়েট। এর অয়েল ফ্রি ও ম্যাটিফাইয়িং ফর্মুলা ইনস্ট্যান্টলি ইমপারফেকশন ঢাকবে, ওপেন পোরসের ভিজিবিলিটি কমাবে এবং সাথে শাইন কন্ট্রোল করবে। এতে আছে আরগান অয়েল ও ভিটামিন ই এর মতো হাইড্রেটিং ও নারিশিং ইনগ্রেডিয়েন্টস। যার কারণে স্কিন থাকে সফট। এটি কিন্তু ১০০% প্যারাবেন ও Cruelty-Free! হাই এন্ড রেঞ্জের এই প্রাইমারটি পাওয়া যায় ৩৫ মি.লি. এর টিউবে। ট্রাভেল ফ্রেন্ডলি বলে ইজিলি ব্যাগে ক্যারি করা যাবে।

Note Skin Perfecting Primer

এই তো ছিল ৫টি ব্র্যান্ডের প্রাইমারের রিভিউ। সাজগোজে আরও অনেক ব্র্যান্ডের প্রাইমার আছে। যেমন- Technic, L’Oreal, Absolute New York, Smashbox, Milani ইত্যাদি। এই ব্র্যান্ডের প্রাইমারগুলোও ইউজ করে দেখতে পারেন।

কোথায় পাবেন অথেনটিক প্রোডাক্ট?

মার্কেটে এখন সব প্রোডাক্টেরই রেপ্লিকা পাওয়া যায়। তাই প্রয়োজনীয় প্রোডাক্ট কেনার জন্য বেছে নিন অথেনটিক শপ। এক্ষেত্রে আমার ভরসার জায়গা সাজগোজ। স্কিন কেয়ার, হেয়ার কেয়ার ও মেকআপ রিলেটেড যে কোনো প্রোডাক্ট কিনতে পারেন এখান থেকে। সাজগোজের চারটি ফিজিক্যাল শপ রয়েছে। শপগুলো যমুনা ফিউচার পার্ক, সীমান্ত সম্ভার, বেইলি রোডের ক্যাপিটাল সিরাজ সেন্টার এবং উত্তরার পদ্মনগর (জমজম টাওয়ারের বিপরীতে) এ অবস্থিত। এই শপগুলোতে ঘুরে নিজের পছন্দমতো অথবা অনলাইনে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন আপনার দরকারি প্রোডাক্টগুলো।

 

ছবিঃ সাজগোজ

11 I like it
0 I don't like it
পরবর্তী পোস্ট লোড করা হচ্ছে...