বর্ষাকালেও যত্নে থাকুক কাঠের আসবাবপত্র - Shajgoj বর্ষাকালেও যত্নে থাকুক কাঠের আসবাবপত্র - Shajgoj

বর্ষাকালেও যত্নে থাকুক কাঠের আসবাবপত্র

জুলাই ২১, ২০১৮

সেই রাজা বাদশাহদের আমল থেকেই কাঠের আসবাবপত্র ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তখনকার দিনে ভারী কারুকাজ করা ভালো মানের কাঠের আসবাবপত্র দ্বারা আভিজাত্য প্রকাশ পেতো। এখন সেই আভিজাত্যের ছোয়া কমে গেলেও কাঠের আসবাবপত্রের গুরুত্ব কিন্তু কমে যায় নি কারণ এটি যত্ন সহকারে ব্যবহার করলে বহুদিন ব্যবহার করা যায় এবং এতে রাখা যে কোন জিনিসই খুব ভালো থাকে। এবার আসা যাক বর্ষাকালে কিভাবে আপনার কাঠের আসবাবগুলোকে যত্নে রাখবেন সেই প্রসঙ্গে, প্রকৃতিতে বর্ষার আগমন ঘটেছে কিছুদিন হলো, এর মাঝেই খেয়াল করে দেখবেন আপনার কিছু কিছু আসবাবপত্রে ছত্রাকের আক্রমণ দেখা দিয়েছে বা স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে আছে। এর কারণ হলো বর্ষাকালে আবহাওয়া কিছুটা অন্যরকম থাকে, বাইরে বৃষ্টি না থাকলেও আকাশে ঘন মেঘের কারণে প্রকৃতিতে একটা স্যাঁতস্যাঁতে ভাব বিরাজ করে তাই সেটার প্রভাব কাপড়চোপড় এবং আসবাবপত্রেও পরিলক্ষিত হয়। তাহলে চলুন দেখে নেই কি কি উপায়ে আপনি এই বর্ষাকালেও আপনার আসবাবপত্রকে নতুনের মতো চকচকে রাখতে পারবেন।

 

১. ওয়াক্সিং

বর্ষাকালে আপনার কাঠের আসবাবগুলোকে  ওয়াক্সিং করুন মাসে কমপক্ষে ২ বার। কারণ এটি  আর্দ্রতা এবং ক্ষতি থেকে রক্ষা করে কাঠের তৈরি আসবাবকে। যদি বর্ষাকালে কাঠের আসবাবপত্রগুলোকে ছত্রাকের আক্রমণ  থেকে বাঁচাতে চান তাহলে নিয়মিত আপনার কাঠের আসবাবপত্রগুলোতে ওয়াক্সিং করে দেখতে পারেন।

২. বার্নিশ

আপনার বাড়িতে পুরোনো কাঠের আসবাবগুলোকে বর্ষাকালেও নতুনের মত রাখতে চাইলে পুনরায় বার্নিশ করুন। কারন নতুন করে বার্নিশ করলে পুরোনো কাঠের আসবাবে ছত্রাক জন্মাতে পারে না এবং ভেজা ও স্যাঁতসেঁতে ভাব থেকেও সুরক্ষিত থাকে কাঠের জিনিসপত্র।

৩. পানি থেকে দূরে রাখুন

বৃষ্টির পানি অথবা যে কোন ভেজা জিনিস থেকে কাঠের আসবাবগুলোকে দূরে রাখুন। কোন ভেজা জিনিস কাঠের টেবিল বা যে কোন আসবাবের উপর রাখবেন না। পানির জগ, গ্লাস ইত্যাদি ভালো করে মুছে রাখুন। কাঠের আসবাবে পানি জমে থাকলে সেটা কাঠের অনেক ক্ষতি সাধন করে, কাঠকে আদ্র করে দেয় এবং এতে ফাঙ্গাস জন্মাতে সাহায্য করে এবং কাঠে ফাটল ধরাতে সাহায্য করে। তাই পানি থেকে যতটা সম্ভব বাঁচিয়ে রাখুন আপনার শখের আসবাবপত্রকে।

৪. ঘরের ভেতর রাখুন

বৃষ্টির পানি থেকে কাঠের আসবাবপত্র রক্ষা করার জন্য, কাঠের আসবাবপত্রগুলোকে ইনডোর-এই রাখুন। এগুলোকে বাইরে বের করবেন না এমন কি খুব বেশি তাপ এগুলোর গঠন এবং আকৃতি নষ্ট করতে পারে। অথবা যদি আপনাকে অবশ্যই কাঠের জিনিস বাইরে রাখতেই হয় তাহলে, ওয়াটারপ্রুফ  আবরণ দিয়ে তবেই রাখবেন।

৫. দেয়াল থেকে দূরে রাখুন

কাঠের বেড এবং অন্যান্য কাঠের আসবাব দেয়াল থেকে কিছুটা দূরে রাখার চেষ্টা করুন। কারন বর্ষাকালে বাড়ির দেয়াল আদ্র ও ভেজাভাবযুক্ত থাকে আর তাই দেয়ালের সাথে কাঠের আসবাব লেগে থাকলে তাতেও স্যাঁতস্যাঁতে ভাব চলে আসতে পারে।

৬. বৃষ্টিপাতের সময় দরজা জানালা বন্ধ রাখুন

বৃষ্টিপাতের সময় জানালা খোলা থেকে বিরত থাকুন। বৃষ্টিপাতের সময় বৃষ্টির পানি ছিটে দরজা বা জানালা দিয়ে ঢুকতে পারে এবং সেটা কাঠের আসবাবপত্রের গায়ে লাগলে তা থেকে আপনার আসবাবগুলোর অনেক ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। তাই, যখন বৃষ্টি থামে, তখন উইন্ডো খুলুন এবং নিশ্চিত করুন ভালভাবে রুম পরিষ্কার করা হলো কিনা।

৭. আসবাবপত্র পরিষ্কারের জন্য ভিজা কাপড় ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন

আপনার কাঠের আসবাবগুলোকে যখন পরিষ্কার করবেন তখন শুকনো কাপড় বা ব্রাশ-এর সাহায্যে পরিষ্কার করুন। ধুলো ও ময়লা দীর্ঘদিন জমে থাকলে সেটা পরে আসবাবপত্রের গায়ে আরও বসে যায়। তাই নিয়মিত আপনার আসবাবপত্রগুলোকে শুকনো কিছুর সাহায্যে পরিষ্কার করুন। ভুল করেও ভেজা কাপড় লাগাবেন না, এতে হিতে বিপরীত হবে।

৮. বাসার মেঝে শুকনো রাখুন

অনেক সময় দেখা যায় বাইরে আবহাওয়া আদ্র থাকলে বাসার মেঝেও ভেজাভেজা ও স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে থাকে। অনেকদিন এ অবস্থায় থাকলে  কাঠের আসবাবের ক্ষতি হতে বেশি সময় লাগে না। তাই বাসার মেঝে, অভ্যন্তরীণভাবে শুকিয়ে রাখার চেষ্টা করুন। ভেজাভাব শুকিয়ে ফেলার জন্য শুকনা কাপড় দিয়ে মেঝে মুছে নিন এবং পাখা চালু করে রাখুন এতে মেঝে দ্রুত শুকিয়ে যাবে।

এই বর্ষাকালে উপরোক্ত টিপস মনে রাখুন এবং আপনার শখের কাঠের  আসবাবপত্রগুলোকে নতুনের মতো ভালো রাখুন বহুদিন।

 

লিখেছেন- নাইমা আক্তার

ছবি- এইচজিটিভি.কম